ভেঙে পড়ল ভারতীয় জঙ্গিবিমান
ভেঙে পড়ল ভারতীয় জঙ্গিবিমান

ভেঙে পড়ল ভারতীয় জঙ্গিবিমান

নয়া দিগন্ত অনলাইন

ওডিশার ময়ূরভঞ্জের কাছে ভেঙে পড়েছে ভারতীয় বিমানবাহিনীর বিমান৷ ঠিক কী কারণে এই ঘটনা ঘটে তা এখনও জানা যায়নি৷ প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে যান্ত্রিক গোলযোগের কারণেই এমন ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে৷

ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স হক অ্যাডভান্সড ট্রেনার জেট মঙ্গলবার ওডিশার ময়ূরভঞ্জের কাছে ঝাড়খণ্ড সীমান্তে ভেঙে পড়ে৷ ভিতর থেকে ট্রেনি পাইলট বেরিয়ে যেতে সক্ষম হলেও, তিনি আহত বলে জানা গেছে৷

খড়গপুরের কলাইকোন্ডা এয়ারফোর্স স্টেশন থেকে রুটিন ট্রেনিংয়ে বেরিয়েছিল এটি৷
এক মাসের কম সময়ের মধ্যে এটি ভারতীয় বিমানবাহিনীতে দ্বিতীয় দুর্ঘটনা। গত মাসে মাইক্রোলাইট ভাইরাস এসডব্লিউ-৮০ হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয় আসামেরে মাজুলি আইল্যান্ডে। এতে দুই পাইলট নিহত হয়।

নেপাল যাচ্ছেন মোদি ও শি
রাইজিং নেপাল

চলতি বছরই নেপাল সফর করবেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নতুন নেপালি পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রদিপ গয়ালি এ তথ্য জানিয়েছেন। এ লক্ষ্যে কাঠমান্ডু প্রস্তুতি শুরু করেছে বলেও নিশ্চিত করেছেন তিনি।
কাঠমান্ডুতে এক সংবাদ সম্মেলনে গয়ালি বলেন, ‘২০১৮ সালে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী মোদি ও চীনের প্রেসিডেন্ট শি নেপাল সফর করবেন। পাশাপাশি নেপাল থেকেও উচ্চ পর্যায়ের সফর অনুষ্ঠিত হবে। তাই নেপালের আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে বছরটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’ তিনি জানান, এ বছরের মধ্যেই দ্ইু প্রতিবেশী দেশের রাষ্ট্রপ্রধানকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য নেপাল সরকার প্রয়োজনীয় প্রস্তুতির কাজ শুরু করেছে।


গয়ালি বলেন, ‘২০১৬ সালে চীনা প্রেসিডেন্টের নেপাল সফরে আসার কথা ছিল। কিন্তু ঘন ঘন সরকার পরিবর্তনের কারণে তার সফর অনুষ্ঠিত হতে পারেনি। এ বছর যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও জাপানসহ অন্যান্য দেশ থেকেও উচ্চ পর্যায়ের সফর অনুষ্ঠিত হবে।’ সরকার একইভাবে প্রধানমন্ত্রী কেপি অলির বিদেশ সফরের ব্যাপারেও প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান। ভারত থেকে অলি তার বিদেশ সফর শুরু করবেন কি না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শিগগিরই বিদেশ সফর শুরু করবেন এবং আমরা সে লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছি। কিন্তু তিনি কোন দেশ দিয়ে সফর শুরু করবেন সে বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। এটা ভারত, চীন বা অন্য কোনো দেশ দিয়ে হতে পারে।’

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.