সারা দেশে বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উদযাপিত

নয়া দিগন্ত ডেস্ক

গতকাল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানে ৯৮তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস সারা দেশে উদযাপিত হয়েছে। এ উপলক্ষে সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচির আয়োজন করে। এ ছাড়া শিশু দিবস উপলক্ষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও বিভিন্ন অনুষ্ঠান হয়।
গাজীপুর সংবাদদাতা জানান, গাজীপুরে শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতাল ও নার্সিং কলেজে নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে।
দিবসটি পালন উপলক্ষে দিনভর বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান, ল্যাব ও রেডিওলোজির সব পরীায় বিশেষ মূল্য ছাড়, বিনামূল্যে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা প্রদান, বিনামূল্যে ডায়েটারি পরামর্শ প্রদান এবং বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা স্বাস্থ্য সচেতনতামূলক আলোচনা ও পরামর্শ প্রদান করা হয়। এ ছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে এতিমখানার শিশুদের নিয়ে কুরআন খতম, মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
সকালে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ তৌফিক বিন ইসমাইল এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানটির মেডিক্যাল ডিরেক্টর ডা: রাজীব হাসান, চিফ নার্সিং অফিসার নরলিজা কেমিন, চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার নূর আদিলা বিনতি শুইবসহ উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, বঙ্গবন্ধু শুধু বাংলাদেশের স্থপতি নন, তিনি বিশ্বের শোষিত মানুষের মুক্তির প্রেরণা। বঙ্গবন্ধুর স্বাধীনতা, জাতীয় পতাকা ও মুক্তিযুদ্ধ দিয়েছিলেন। তিনি স্থানীয় রীমা কনভেনশন সেন্টারে আলোচনা সভায় এ কথা বলেন।
সভাপতির ভাষণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবন দর্শন ও স্বপ্ন বাঙালির অন্তরে আমুল প্রোথিত।
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন মঞ্চে শিশু কিশোরদের নিয়ে জন্মদিনের শুভেচ্ছা কেক কেটে শিশু কিশোর সমাবেশের শুভ সূচনা করেন। এতে শিশুদের মধ্যে উপস্থিত বক্তৃতা করেন অর্পিতা ঘোষ, তৌফিক আহমেদ, রায়ান আহমেদ।
মহিলা আওয়ামী লীগ : চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরীর চশমা হিলস্থ বাসভবনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে দলের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন সভাপতিত্ব করেন।
উত্তর জেলা কৃষক লীগ : সকাল সাড়ে ৯টায় দোস্ত বিল্ডিংস্থ দলীয় কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণের মাধ্যমে দিবসের সূচনা হয়। পরে সংগঠনের সভাপতি নজরুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও দফতর সম্পাদক সেলিম সাজ্জাদের পরিচালনায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও মহানগর পিপি বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ফখরুদ্দিন চৌধুরী। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো: গিয়াস উদ্দিন।
ময়মনসিংহ অফিস জানায়, বর্ণাঢ্য র‌্যালি, আলোচনা সভা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতাসহ বর্ণাঢ্য কর্মসূচি গ্রহণ করেছে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।
টাউনহল প্রাঙ্গণে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ধর্মমন্ত্রী আলহাজ অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। এরপর প্রতিকৃতিতে ফুলেল শ্রদ্ধা জানান, ফাতেমা জোহরা রানী এমপি, বিভাগীয় কমিশনার জিএম সালেহ উদ্দিন, রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, জেলা প্রশাসক সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম, পৌরমেয়র ইকরামুল হক টিটু প্রমুখ। পুলিশ লাইনসে ৯৯ পাউন্ডের বিশাল কেক কেটে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন রেঞ্জ ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি। এ সময় অতিরিক্ত ডিআইজি ড. আক্কাস উদ্দিন ভূইয়া, পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস এ নেওয়াজীসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
এ ছাড়া দিবসটি উপলক্ষে ময়মনসিংহ প্রেস কাবে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ময়মনসিংহ শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. গাজী হাসান কামাল।
সাভার (ঢাকা) সংবাদদাতা জানান, গণবিশ্ববিদ্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইকিউএসি’র সভাকক্ষে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন গণবিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভিসি অধ্যাপক ডা: লায়লা পারভীন বানু।
আলোচনা সভায় ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের পটভূমি এবং বঙ্গবন্ধু ও বিশ্ব রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব’ শিরোনামে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি ও প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. এম নজরুল ইসলাম। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মো: দেলোয়ার হোসেন, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মীর মুর্ত্তজা আলী, আইন ভিাগের বিভাগীয় প্রধান মো: রফিকুল আলমসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকেরা বক্তব্য রাখেন।
খুলনা ব্যুরো জানান, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, শোভাযাত্রা, শিশু সমাবেশ, বক্তৃতা, কবিতা পাঠ, রচনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, প্রামাণ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শন এবং ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে দোয়া-মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
গতকাল সকালে নগরীর শহীদ হাদিস পার্কে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয় শিশু সমাবেশ, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও এমপি তালুকদার আব্দুল খালেক। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য ও মিজানুর রহমান, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো: হুমায়ুন কবীর, খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হারুনুর রশিদ, অতিরিক্ত ডিআইজি মো: হাবিবুর রহমান, পুলিশ সুপার মো: নিজামুল হক মোল্যা, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ খুলনা মহানগর ইউনিট কমান্ডার অধ্যাপক আলমগীর কবীর, মাহাথি ইসলাম ও ফাইরাজ মালিহা।। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক মো: আমিন উল আহসান।
কেসিসি সমাজকল্যাণ ও কমিউনিটি সেন্টার স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর মো: আলী আকবর টিপুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন কেসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা দেন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর পারভীন আক্তার। অন্যান্যের মধ্যে জনসংযোগ কর্মকর্তা সরদার আবু তাহের, শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা এস কে এম তাছাদুজ্জামান, কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি উজ্জ্বল কুমার সাহা ও সাধারণ সম্পাদক শেখ মহিউদ্দিন হোসেন বক্তৃতা দেন।
রাজশাহী ব্যুরো জানায়, রাজশাহীতে নানা আয়োজনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল সকালে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সরকারি ল্যাবরেটরি স্কুল থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। এরপর অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা।
সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার নূর-উর-রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশের রাজশাহী রেঞ্জের উপ-মহাপরিদর্শক এম খুরশীদ হোসেন, রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহাবুবর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার মো: শহীদুল্লাহ, সাবেক সিটি মেয়র অ্যাডভোকেট আবদুল হাদি ও মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি শাহীন আক্তার রেণী। সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক এস এম আবদুল কাদের।
আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন। সভা পরিচালনা করেন সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।
সকালে নগরীর লক্ষ্মীপুর মোড়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে জেলা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। এ সময় জেলা সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদসহ অন্য নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।
বঙ্গবন্ধুর আত্মার মাগফিরাত কামনায় নগরীর বিভিন্ন মসজিদে মিলাদ মাহফিল করা হয়।
রংপুর অফিস জানায়, আওয়ামী লীগ, বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন সংগঠন ডিসির মোড়ে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এরপর নগরীতে বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিশাল শোভাযাত্রা বের হয়। এতে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ প্রশাসন এবং রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা অংশ নেন। পরে টাউন হলে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার কাজী হাসান আহমেদ। এ ছাড়া বিভিন্ন সংগঠন নগরীতে শোভাযাত্রা, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ রংপুর আয়োজন করে শিশু-কিশোরদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।
বগুড়া অফিস জানায়, সকালে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অপর্ণ, দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলন, আলোচনা সভা, শিশু সমাবেশ, শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিশেষ মুনাজাতসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়।
পরে শোভাযাত্রা বের করা হয়। এতে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ নূরে আলম সিদ্দিকী, পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভুঞা, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিনসহ সরকারি কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রী, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।
বরিশাল ব্যুরো জানায়, বরিশাল নগরীর সদর রোডের অশ্বিনী কুমার টাউন হলের সামনে বঙ্গবন্ধুর অস্থায়ী প্রতিকৃতিতে প্রথমে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন জাতীয় সংসদের প্যানেল স্পিকার অ্যাডভোকেট তালুকদার মো: ইউনুস এমপি। পরে পর্যায়ক্রমে সংসদ সদস্য জেবুন্নেসা আফরোজ, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলালসহ সব সযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা, বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা শ্রদ্ধা জানান। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল সাড়ে ৯টায় বিভিন্ন স্কুল শিক্ষার্থীদের নিয়ে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে দুই দিনব্যাপী আলোচনা সভার পাশাপাশি রচনা, উপস্থিত বক্তৃতা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে।
ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল, বরিশালের উদ্যোগে ফ্রি গাইনি ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। ক্যা¤েপ ফ্রি চিকিসাসেবা প্রদান করেন অভিজ্ঞ গাইনি ও অবস বিশেষজ্ঞ এবং সার্জন ডা: ফরিদা বেগম, ডা: তানিয়া আফরোজ, ডা: ফারজানা ফেরদৌস (মুনমুন) ও ডা: মাসুদ আহমেদ চিকিৎসাসেবা প্রদান করেন। ক্যাম্প উপলক্ষে কনসালট্যান্সি সুবিধা সম্পূর্ণ ফ্রি এবং সব ধরনের ল্যাবরেটরি পরীক্ষায় ৩৫% ছাড় দেয়া হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.