জাবিতে মার্কেটিং বিভাগের অনুষ্ঠানে ছাত্রলীগের হামলা

জাবি প্রতিনিধি

গাড়ি নিয়ে রাস্তায় সাধারণ বাগি¦তণ্ডাকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়ায় চলমান অনুষ্ঠানে অতর্কিত হামলা চালায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় বেশ কয়েকটি দরজা-জানালা ভাঙচুর করা হয়। গত সোমবার রাত ৯টায় শহীদ রফিক-জব্বার হল ছাত্রলীগ কর্মীরা এ ভাঙচুর চালায়।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত সোমবার সন্ধ্যায় মার্কেটিং বিভাগের ‘বার্ষিক মার্কেটিং কার্নিভালের’ শেষ দিন গ্রান্ড ডিনারের আয়োজন ছিল ক্যাফেটেরিয়াতে। এ সময় ক্যাফেটেরিয়ার রাস্তায় মার্কেটিং বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক নিগার সুলতানার প্রাইভেট কারের সাথে জাবি ছাত্রলীগের সহসম্পাদক মাজেদুল ইসলাম রবিনের মোটরসাইকেলের ধাক্কা লাগে। তখন ওই শিক্ষিকার সাথে রবিনের বাগি¦তণ্ডা হয়। ওই সময় রবিন ঘটনাস্থল থেকে চলে গেলেও কিছুক্ষণ পর সাত-আটটি মোটরসাইকেলে মহড়া দিতে দিতে ১০-১১জন ছাত্রলীগ কর্মীকে সাথে নিয়ে ক্যাফেটেরিয়াতে এসেই আক্রমণ করে। অতর্কিত ক্যাফেটেরিয়ায় দরজা-জানালা ভাঙচুর শুরু করে। তখন ভেতরে অবস্থানকারী শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। এতে এক শিক্ষার্থী গায়ে কাচ পড়ে আহত হন।
এ হামলায় শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক রবিনের নেতৃত্বে আসিফ রিবন (পদার্থ বিজ্ঞান-৪৪), দ্বীপ (দর্শন-৪৩), সুপ্ত (পরিসংখ্যানসহ-৪৫) ১০-১১ জন অংশগ্রহণ করেছেন বলে জানা যায়। অভিযুক্তরা সবাই বিশ্ববিদ্যালয়ের রফিক-জব্বার হলের আবাসিক ছাত্র ও শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: জুয়েল রানার অনুসারী।
এ বিষয়ে জুয়েল রানা বলেন, ‘যারা এ ঘটনার সাথে জড়িত তাদের জন্য সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত আসবে।’
এ বিষয়ে ভুক্তভোগী শিক্ষক নিগার সুলতানা বলেন, ‘আমার ড্রাইভারের সাথে কিছু কথা কাটাকাটির জন্য তারা এমনটি করতে পরেনা। আমি ভিসির কাছে সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে বিচার চেয়েছি।’ সর্ব শেষ প্রশাসনিক তৎপরতা সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার সাহা বলেন, ‘ক্যাফেটেরিয়ায় হামলাকারীদের শনাক্তকরণের কাজ চলছে তবে আমরা সার্বিক বিষয়টি তদন্ত করে সিদ্ধান্ত নেবো।’

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.