লক্ষ্মীপুরে ধর্ষণ মামলায় একজনের যাবজ্জীবন

লক্ষ্মীপুর সংবাদদাতা

লক্ষ্মীপুরে ধর্ষণ মামলায় ফারুক হোসেন (২৪) নামে এক আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা আদায়ের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক নাজমুল হুদা তালুকদার সোমবার দুপুরে এই রায় দেন। আসামি ফারুক পলাতক রয়েছে।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালের ২৭ জানুয়ারি রাতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সদর উপজেলার কুশাখালী গ্রামের ফারুক হোসেন একই এলাকার মোহাম্মদ হানিফের কিশোরী কন্যাকে (১৫) বাগানে নিয়ে ধর্ষণ করে। পরে একপর্যায়ে কিশোরী গর্ভবতী হয়ে পড়লে এবং বিয়ের জন্য বলা হলে ফারুক বিয়ে করতে অস্বীকার করে।
ফারুক কৌশলে ছয়-সাত মাসের মাথায় স্থানীয় বাজার থেকে ওষুধ এনে খাওয়ালে একপর্যায়ে গর্ভের সন্তানসহ ওই কিশোরী মারা যায়। পরে এ ঘটনায় নিহত কিশোরীর বাবা মোহাম্মদ হানিফ বাদি হয়ে ফারুক ও গ্রাম্য ডাক্তার মো: মাসুদকে আসামি করে সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন।
আদালত দীর্ঘ শুনানি শেষে প্রধান আসামি ফারুককে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানার নির্দেশ দেন এবং অপর আসামি মাসুদকে বেকসুর খালাস দেন।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.