নাব্যতা হারিয়ে ব্রহ্মপুত্র নদ এখন ফসলের মাঠ

বাকি বিল্লাহ মনোহরদী (নরসিংদী)

নরসিংদীর মনোহরদী এবং গাজীপুরের কাপাসিয়া দুই উপজেলাকে ভাগ করে বয়ে যাওয়া ব্রহ্মপুত্র শাখা নদ নাব্যতা হারিয়ে এখন ফসলের মাঠে পরিণত হয়েছে। হুমকির মুখে পড়েছে এলাকার কৃষিসেচ, জীববৈচিত্র্য ও মৎস্যসম্পদ।
দীর্ঘ দিন ধরে নদী খনন না করা, নদীতে ময়লা ফেলা, নদীরপাড় কেটে মাটি নিচে নামিয়ে ফসলের চাষ উপযোগী করে তোলাই এ নদের নাব্যতা হারানোর মূল কারণ।
স্থানীয়রা জানান, একসময় এই নদে ইঞ্জিনচালিত ও পালের নৌকা চলত। বছরের পুরো সময় ছোট বড় অনেক মাছ পাওয়া যেত। কিন্তু এখন সেটি গল্পের মতো। পালের নৌকা তো দূরের কথা ছোট নৌকাও চলছে না।
সরেজমিন দেখা গেছে, নাব্যতা হারানো নদটিতে কৃষকের রোপণ করা ধানের চারাগুলো সবুজ হয়ে উঠেছে। অল্প কিছু দিন পরেই ধান বেরিয়ে আসবে। যত দূর চোখ যায় সবুজ ধানের সমারোহ দেখে বিশ^াসই হয় না এটা একসময় পূর্ণ যৌবনা নদ ছিল।
সনমানিয়া গ্রামের কৃষক আব্দুল মতিন বলেন, শুষ্ক মওসুমে এই নদ থেকে পানি উঠিয়ে বিভিন্ন সবজির চাষ করতাম। কিন্তু এখন সেটি সম্ভব হচ্ছে না। এতে সবজি উৎপাদনের খরচ বেড়ে গেছে।
ষাটোর্ধ্ব কৃষক আমির হোসেন দুঃখ করে বলেন, এখান থেকে মাছ ধরে সারাজীবন খেয়েছি কিন্তু এখন নদীর এমন পরিবেশ হয়েছে যে মনে হয় না আর সেই সুযোগ পাব। মনোহরদী পৌর মেয়র আমিনুর রশিদ সুজন বলেন, আমাদের দেশ নদীমাতৃক দেশ। নদীগুলো যদি দিন দিন নাব্যতা হারিয়ে ভড়াট হয়ে যায় তবে পরিবেশ হুমকির মুখে পড়বে। এ ক্ষেত্রে আমাদের সবার সচেতন হওয়া প্রয়োজন।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.