ফুলে ফুলে সাজাই অন্দর
ফুলে ফুলে সাজাই অন্দর

ফুলে ফুলে সাজাই অন্দর

ঝরনা রহমান

ঘরের সাজে প্রথম যে উপকরণটির কথা মনে আসে, সেটি হলো ফুল। যখন অন্দর সাজে এত আতিশয্য ছিল না, তখন শুধু সুন্দর একগোছা ফুল দিয়েই সাজানো হতো অন্দর। সময়ের সাথে সাথে অনেক নতুন জিনিস এসেছে ঠিকই, তবে ফুলের অবস্থান এখনো একই রয়েছে। বরং বলা যায়, ফুল এখন পেয়েছে নতুন মাত্রা। পর্দা, সোফা, বেডকভারে যেমন থাকতে পারে ফুলের প্রিন্ট, তেমনি ফুলের ওয়াল হ্যাঙ্গিং, শোপিস, ওয়াল পেপার, ওয়াল আর্ট যেকোনো কিছুতেই থাকতে পারে ফুল বা ফুলেল নকশা।

ফুলের নকশার রয়েছে কিছু সুবিধাজনক দিক। যেমন- ফুলের নকশা ব্যবহার করা হলে একই সাথে অনেক রঙের সমন্বয় ঘটানো যায়। ফুল যেহেতু অনেক রঙের হয়, তাই ফুলের নকশায় অনেক রঙের সমন্বয় দেখতে ভালোই দেখায়। অন্য দিকে আকার নিয়ে কাজ করারও সুযোগ রয়েছে। অর্থাৎ ছোট বা বড় দুই সাইজের ফুলের ডিজাইনের রয়েছে দুই রকম সৌন্দর্য। তবে ফুলের প্রিন্ট বা ডিজাইন ব্যবহার করার আগে ঘরের দেয়ালের রঙের বিষয়টি গুরুত্ব দিতে হবে। দেয়ালের রঙ ফুলের রঙের সাথে কন্ট্র্রাস্ট হলে ভালো লাগবে। তবে সাদা বা অফ হোয়াইট দেয়ালের রঙের সাথেই ফ্লোরাল মোটিফস ভালো মানায়।

ফুলের নকশা বা ফুলের উপস্থিতি অন্দরসজ্জায় সতেজ ও নান্দনিক আবহ নিয়ে আসে। বাড়িতে যেন একটা সজীবতা বিরাজ করে। একটি ঘরে ফ্লোরাল মোটিফ ব্যবহার করলে সে ক্ষেত্রে ফুলের আকার বড় হতে পারে। তবে একই সাথে একাধিক ঘরে একাধিক উপকরণে ফুলের ডিজাইন ব্যবহার করলে এ ক্ষেত্রে ছোট ফুলের নকশা ব্যবহার করলেই ভালো লাগবে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.