সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচন

দলীয় রাজনীতিমুক্ত প্যানেল ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক

আইনজীবীদের শীর্ষ সংগঠন সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশনের ২০১৮-১৯ সালের নির্বাচনের প্রার্থিতা নিয়ে এখন আইনজীবীদের মধ্যে ব্যাপক আলোচনা চলছে। গত কয়েক দিনে এ নির্বাচনের প্রার্থিতা নিয়ে একাধিক প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। সর্বশেষ গতকাল দলীয় রাজনীতিমুক্ত একটি প্যানেল ঘোষণা করা হয়েছে। এ প্যানেল থেকে সভাপতি পদে প্রার্থী হচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় আইনজীবী সমিতির সভাপতি শাহ মো: খসরুজ্জামান। সহসভাপতি পদে শামছুল জালাল চৌধুরী, সম্পাদক পদে মো: আবুল বাশার ও ট্রেজারার পদে সাবিনা ইয়াসমিন লিপি প্রার্থী হয়েছে।
এ বিষয়ে তৈমূর আলম খন্দকার বলেন, এ প্যানেল অনিয়মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছে। আমি প্রার্থী হবো না। তবে একই ব্যক্তিকে বারবার প্রার্থী করা ঠিক নয়। এ বিষয়ে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে মিটিং হবে, যে সিদ্ধান্ত হয় আমরা তা মেনে নেবো।
এর আগে মঙ্গলবার বিএনপি সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্যপরিষদের ‘নীল’ প্যানেলের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়। এ প্যানেলে সুপ্রিম কোর্ট বারের বর্তমান সভাপতি জয়নুল আবেদীনকে সভাপতি পদে ও বর্তমান সম্পাদক মাহবুবউদ্দিন খোকনকে সম্পাদক পদে প্রার্থী করে ১৪ সদস্যের প্যানেল ঘোষণা করেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেলের ২৫ সদস্যের নমিনেশন বোর্ডে। এতে সহসভাপতি পদে আবদুল জব্বার ভুইয়া ও এমডি গোলাম মোস্তফা, কোষাধ্য নাসরিন আক্তার, সহ-সম্পাদক কাজী জয়নুল আবেদীন, আনজুমানারা বেগম মুন্নী, সদস্য পদে ব্যারিস্টার সাইফুর আলম মাহমুদ, জাহাঙ্গীর জমাদ্দার, এমদাদুল হক, মাহফুজ বিন ইউসুফ, সৈয়দা শাহীনারা লাইলী, নাসরিন খন্দকার শিল্পীকে প্রার্থী করা হয়েছে।
এ প্যানেল ঘোষণার পর বুধবার বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা তৈমূর আলম খন্দকার ও এ বি এম রফিকুল হক তালুকদার রাজার নেতৃত্ব জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্যপরিষদের আরো একটি প্যানেল ঘোষণা করা হয়। তবে এ প্যানেলের কয়েকজন জানিয়েছেন তারা নির্বাচন করছেন না। তাদের না জানিয়ে প্যানেলে নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এ বিষয়ে মো: আকবর হোসেন লিখিতভাবে অভিযোগ করেন।
অন্য দিকে অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়নকে সভাপতি ও অ্যাডভোকেট এস কে মোরশেদকে সম্পাদক প্রার্থী করে আওয়ামী লীগ সমর্থক আইনজীবীদের একক প্যানেল সুপ্রিম কোর্ট বার নির্বাচনের প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে। এতে সহসভাপতি পদে আলালউদ্দীন ও ড. মোহাম্মদ শামসুর রহমান, ট্রেজারার পদে ড. মোহাম্মদ ইকবাল করিম, সহ সম্পাদক মোহাম্মদ আবদুর রাজ্জাক ও ইয়াদিয়া জামান, সদস্য ব্যারিস্টার আশরাফুল হাদী, হুমায়ুন কবির, চঞ্চল কুমার বিশ্বাস, শাহানা পারভীন, রুহুল আমিন তুহিন, শেখ মোহাম্মদ মাজু মিয়া, মোহাম্মদ মুজিবর রহমান সম্রাটকে প্রার্থী করা হয়েছে।
আগামী ২১ ও ২২ মার্চ (বুধবার ও বৃহস্পতিবার) ভোট অনুষ্ঠিত হবে। ১১ মার্চ পর্যন্ত মনোনয়ন সংগ্রহ ও দাখিল এবং ১৪ মার্চ মনোনয়ন প্রত্যাহারের তারিখ ধার্য করা রয়েছে। ২১ ও ২২ মার্চ ভোট গ্রহণ। ভোট গ্রহণ শেষে ২২ মার্চ রাতেই এ নির্বাচনের ফল ঘোষণা করা হবে। কার্যনির্বাহী কমিটির মোট ১৪টি পদে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এবারের নির্বাচনে মোট ভোটার হচ্ছে ছয় হাজার ২৫২ জন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.