রাজনীতি ছবিতে শাকিব খান
রাজনীতি ছবিতে শাকিব খান

শাকিব খানের বিরুদ্ধে মামলা : ১৪ মার্চের মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ

হবিগঞ্জ সংবাদদাতা

চিত্রনায়ক শাকিব খানের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলায় আগামী ১৪ মার্চের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দিয়েছেন হবিগঞ্জের একটি আদালত।

জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সম্পা জাহান এ নির্দেশ দেন। এ নিয়ে চার বার প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ জারী করা হয়েছে।

এদিকে মামলার বাদী বানিয়াচংয়ের ইজাজুল মিয়া জানান, ‘তদন্তকারী কর্মকর্তা ইচ্ছাকৃতভাবে সময় ক্ষেপন করছেন। এখন শোনা যাচ্ছে মামলার এক নম্বর আসামি শাকিব খানকেই না কি বাদ দিয়ে প্রতিবেদন দাখিলের পাঁয়তারা করা হচ্ছে।’

এব্যাপারে মামলার বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট এম এ মজিদ জানান, ‘শাকিব খানের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলাটি প্রতারণা ও মানহানির মামলা। এটি একটি ডকুমেন্টারি অ্যাভিডেন্স বেইজ মামলা। প্রতিবেদন দাখিল করতে বিলম্ব হওয়া দুঃখজনক। মামলার আসামির তালিকা থেকে নায়ক শাকিব খানকে বাদ দেয়ার কোনো সুযোগ নেই।’

জানা যায়, ‘রাজনীতি’ সিনেমায় নায়ক শাকিব খান নায়িকা অপু বিশ্বাসকে উদ্দেশ করে একটি মোবাইল নাম্বার বলেন। সেই মোবাইল নাম্বারের মালিক হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ের ইজাজুল মিয়া। ছবিটি মুক্তি পাওয়ার পর থেকে নায়ক শাকিব খান ভেবে অনবরত ফোন আসতে থাকে ইজাজুল মিয়ার নাম্বারে। অতিষ্ট ইজাজুল মিয়া থানায় জিডি করেন। এক পর্যায়ে গত ২৯ অক্টোবর তারিখে নায়ক শাকিব খান, রাজনীতি সিনেমার পরিচালক বুলবুল বিশ্বাস, প্রযোজক আশফাক আহমেদের বিরুদ্ধে প্রতারণা ও মানহানির অভিযোগে মামলা দায়ের করেন ইজাজুল মিয়া।

ম্যাজিস্ট্রেট সম্পা জাহান হবিগঞ্জের ডিবির ওসিকে তদন্তের নির্দেশ দেন। এর পর গত ১৮ ডিসেম্বর, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২৫ ফেব্রু য়ারি তিনটি তারিখেও প্রতিবেদন দাখিল করা হয়নি। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি তারিখে আদালত পরবর্তী সাত কার্যদিবসের মধ্যে বিলম্বের কারণ ব্যাখ্যাসহ প্রতিবেদন দিতে ডিবির ওসিকে নির্দেশ দেন। সাত কার্যদিবস অতিবাহিত হওয়ার পরও প্রতিবেদন দাখিল করা হয়নি। এবার ১৪ মার্চের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.