ম্যাচের ভাগ্য রোনালদোর পায়ে, কী করবেন ডি মারিয়া!
ম্যাচের ভাগ্য রোনালদোর পায়ে, কী করবেন ডি মারিয়া!
ম্যাচের ভাগ্য রোনালদোর পায়ে, কী করবেন ডি মারিয়া!

ম্যাচের ভাগ্য রোনালদোর পায়ে, কী করবেন ডি মারিয়া!

নয়া দিগন্ত অনলাইন

মঙ্গলবার রাতে পার্ক দ্য প্রিন্সেস স্টেডিয়ামে প্যারিসিয়েনদের জাতীয়তাবোধে উদ্বুদ্ধ হয়ে দ্বাদশ ব্যক্তির ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানালেন পিএসজি কর্তৃপক্ষ। ক্লাবের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে— ‘এনসেম্বেল অন ভা লে ফেয়ার’। অর্থাৎ ‘টুগেদার উই ক্যান ডু ইট’। পি এস জি’র দল মালিক আল খেলাফি সমর্থকদের কাছে আবেদন রেখেছেন, গ্যালারির একটি আসনও যেন ফাঁকা পড়ে না থাকে। পিএসজি’র কোচ উনাই এমেরি তার দলের ফুটবলারদের কানে মন্ত্রের মতো আউড়ে যাচ্ছেন— ‘এখনো ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব।’ আর সেই কারণেই প্যারি সাঁ জার্মাঁ টিম ম্যানেজমেন্ট মঙ্গরবার পার্ক দ্য প্রিন্সেস স্টেডিয়ামের দর্শক গ্যালারি থেকে উদগীরিত বিপুল শব্দব্রহ্মের ওপর ভরসা রাখছেন। যাতে ম্যাচের শুরু থেকেই কেঁপে যায় রিয়াল মাদ্রিদ দল।

২০১৫ সাল থেকে পিএসজি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোনো হোম ম্যাচে হারেনি। তবে মঙ্গলবার নেইমারবিহীন সম্ভাব্য ফরাসি লিগ চ্যাম্পিয়নরা শুরু থেকেই অল-আউট আক্রমণে ঝাঁপাতে মরিয়া। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের রাউন্ড অব সিক্সটিনে প্রথম পর্বের হোম ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদ ৩-১ গোলে হারিয়েছিল পিএ জি’কে। তাই মঙ্গলবার ম্যাচের প্রথমার্ধেই সেই ব্যবধান মুছে ফেলতে চায় প্যারিসের ক্লাবটি। রিয়াল মাদ্রিদ একটা অ্যাওয়ে গোল করে দিলে পিএসজি’র কাজটা দ্বিগুণ কঠিন হয়ে যাবে। মঙ্গলবার ৪-৩-৩ ছকে দল নামাচ্ছেন উনাই এমেরি। গোলে আরেওলা, লেফট ব্যাক ড্যানি আলভেস, দুই সেন্ট্রাল ডিফেন্ডার-থিয়াগো সিলভা, কিমপেম্বে ও রাইট ব্যাকে বেরিচে। মাঝমাঠের বাঁ দিকে র‌্যারিয়ট, ডানদিকে মার্কো ভেরাত্তি, সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার লো সেলসো। আপফ্রন্টে কিলিয়ান এমবাপে, অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া ও এডিনসন কাভানি।

রিয়াল মাদ্রিদের কোচ জিনেদিন জিদান চোটের দরুণ পূর্ণ শক্তির দল হয়তো নামাতে পারছেন না। প্রথম পর্বের ম্যাচের হিরো টনি ক্রুজ ও লুকা মডরিচ প্র্যাকটিসে নামলেও দুজনেই অনিশ্চিত। এই দুই তারকা না খেলতে পারলে মিডফিল্ডে খেলতে দেখা যাবে মার্কো অ্যাসেন্সিও ইসকো ও হোল্ডিং মিডিও কাসেমিরোকে। তবে আপফ্রন্টে শুরু থেকে ‘বি বি সি’ অর্থাৎ বেল-বেনজেমা-ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে এক সঙ্গে মাঠে নামানোর পক্ষপাতী কোচ জিদান। আর ব্যাক ফোরে ড্যানি কার্ভাহাল, রাফায়েল ভারানে, সের্গিও র‌্যামোস ও মার্সেলো। তবে দলে চোট আঘাত নিয়ে কোচ জিদান কখনো হাহুতাশ করেন না। প্যারিসে পৌঁছে জিদান জানান, ‘পুরো টিম নিয়ে এসেছি। তবে মঙ্গলবার সকালে বোঝা যাবে, লুকা মডরিচ ও টনি ক্রুজ পুরো ফিট হয়ে মাঠে নামতে পারবে কিনা।’

প্রথম পর্বের ম্যাচে পিএসজি’র বিরুদ্ধে জোড়া গোল করেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। মঙ্গলবারের ম্যাচেও গোলের জন্য রিয়াল তাকিয়ে থাকবে সিআর সেভেনের দিকে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে রোনালদোর ১০১টি গোল করা হয়ে গিয়েছে। এবার এই প্রতিযোগিতায় প্রথম সাতটি ম্যাচেই তিনি গোল করেছেন।

অন্যদিকে, পিএসজি নেইমারের অভাব ঢাকতে অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া’র ব্যক্তিগত স্কিলের দিকে তাকিয়ে রয়েছে। এই মুহূর্তে টপ ফর্মে খেলছেন ডি’মারিয়া। নিয়মিত গোলের মধ্যে রয়েছেন এডিনসন কাভানিও। তাই জেতার জন্য এই দুই তারকার দিকেই তাকিয়ে পিএসজি। তবে ম্যাচের ভাগ্য ঝুলছে রোনালদোর পায়ে। পেনাল্টি বক্সে তার মতো তীব্র গোলক্ষুধার বহিঃপ্রকাশ ইদানিং খুব বেশি দেখা যায় না। আর কে না জানে, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এলেই জ্বলে ওঠেন সি আর সেভেন।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.