শাবি শিক্ষকদের কর্মবিরতি, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন অব্যাহত

শাবি সংবাদদাতা

বিশিষ্ট লেখক অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার ঘটনায় সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের আন্দোলন কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে। সোমবার বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি ও কর্মবিরতি পালন করেন শিক্ষকেরা। এর আগে সকাল ১০টায় আইআইসিটি ভবনের সামনে মৌন মিছিল ও মানববন্ধন করেন শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধন শেষে তারা ক্যাম্পাসের গোল চত্ত্বরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।

বেলা ১১টায় প্রশাসনিক ভবনের সামনে শাবি শিক্ষক সমিতির ব্যানারে কর্মসূচিতে অংশ নেন ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. ইলিয়াস উদ্দিন বিশ্বাস, অধ্যাপক ড. আখতারুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. রাশেদ তালুকদার, অধ্যাপক ড. কবির হোসেন, অধ্যাপক ড. সৈয়দ সামসুল আলম, অধ্যাপক ড. কামাল আহমেদ চৌধুরী, অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল ইসলাম, অধ্যাপক ড. রেজা সেলিম, অধ্যাপক ড. আশরাফ উদ্দিন, অধ্যাপক ড. আব্দুল আউয়াল বিশ্বাস, অধ্যাপক ড. আতিউল্লাহ, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. হাসানুজ্জামান শ্যামল, সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন আহমেদ, অধ্যাপক ফারুক উদ্দিন প্রমুখ।

কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ বলেন, বড় ধরনের আঘাত থেকে অধ্যাপক জাফর ইকবাল রক্ষা পেয়েছেন। এজন্য সৃষ্টিকর্তাকে ধন্যবাদ জানাই। ভিসি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সবাই মিলে আমরা ক্যাম্পাসের নিরাপত্তা নিশ্চিত করব। এসময় হামলার ঘটনা তদন্তে গঠিত বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্ত কমিটি কাজ করছে বলেও জানান তিনি।

শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক সৈয়দ হাসানুজ্জামান শ্যামল তার বক্তব্যে বলেন, মনে হচ্ছে এই হামলা পরিকল্পিত। অধ্যাপক জাফর ইকবালের উপর হামলা মূলত মুক্তচিন্তা ও মুক্তিযদ্ধের চেতনার উপর আঘাত। এ ঘটনার পেছনে থাকা মূল হোতাদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই।

সমিতির সাধারণ সম্পাদক জহির উদ্দিন আহমেদ বলেন, প্রকাশ্য দিবালোকে এ ধরনের বর্বর হামলার ঘটনায় আমরা হতবাক। দ্রুত এর বিচার না হলে এ ধরনের ঘটনা আরও ঘটতে থাকবে।

কর্মবিরতি শেষে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করে শাবি শিক্ষক সমিতি। সমিতির সাধারণ সম্পাদক সহযোগী অধ্যাপক জহির উদ্দিন আহমেদ সাংবাদিকদের জানান, অধ্যাপক জাফর ইকবালের উপর হামলার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বেলা ১১টায় একটি প্রতিবাদ র‌্যালি করবে শিক্ষক সমিতি।

অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর হামলার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট সন্ধ্যা ৬টায় লাল ব্যাজ ধারণ ও আলোর মিছিলের আয়োজন করে। সাড়ে ৭টায় কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ, ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ ও সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচির আয়োজন করে।

উল্লেখ্য, শনিবার বিকেল ৫টা ৪০ এর দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিকস বিভাগের ফেস্টিভাল চলাকালে অধ্যাপক জাফর ইকবালকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে তার পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা এক তরুণ। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ফেস্টিভালের অংশ হিসেবে রোবো কম্পিটিশন চলাকালে বিচারক হিসেবে মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক জাফর ইকবাল। এসময় পেছন থেকে আচমকা তার মাথায় ছুরিকাঘাত করা হয়।
উপস্থিত শিক্ষার্থীরা জানান, হামলার সময় পাশেই দাঁড়িয়েছিলেন তার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা। গুরুতর আহত অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ও পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য অধ্যাপক জাফর ইকবালকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকার সিএমএইচে নিয়ে যাওয়া হয়। আক্রমণের পর হামলাকারীকে ধরে মারধর করে শিক্ষার্থীরা। পরে রাত ৯টায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে র‌্যাব ও পুলিশের কড়া পাহাড়ায় হামলাকারীকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.