নেইমারের জন্য বিলাসবহুল রিসোর্ট
নেইমারের জন্য বিলাসবহুল রিসোর্ট

নেইমারের জন্য বিলাসবহুল রিসোর্ট

নয়া দিগন্ত অনলাইন

ব্রাজিলীয় সুপারস্টার নেইমারের পায়ের অস্ত্রপচার হয়েছে শনিবার। একদিন পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে তাকে। এখন বিশ্রামের পালা। এই সময়টা রিও ডি জেনিরোর বিলাসবহুল রিসোর্ট মানগারাতিবায় কাটাবেন নেইমার।

এই রির্সোটে আছে পিএসজি তারকার সুস্থ হয়ে উঠার সব ধরণের সারঞ্জাম। রিসোর্টে জিম ছাড়াও আছে প্রতিদিন ৩০ কেজি বরফ তৈরির একটি স্বয়ংক্রিয় যন্ত্র।

এছাড়া সেখানে হেলিপ্যাড থেকে শুরু করে টেনিস কোর্ট, ফুটবল অনুশীলনের মাঠ, এমনকি একটি জাহাজ ভেড়ানোর জেটিও আছে।

কবে নাগাদ নেইমার মাঠে ফিরতে পারবেন, এ ব্যাপারে এখনো কিছু জানানো হয়নি। তবে অস্ত্রোপচারের পর চিকিৎসক রদ্রিগো লাসমার জানিয়ে ছিলেন, পুরোপুরি সুস্থ হতে কমপক্ষে তিন মাস সময় লাগতে পারে নেইমারের। একজন খেলোয়াড়ের সুস্থ হয়ে ওঠা নির্ভর করে তার শারীরিক সক্ষমতার ওপর। ছয় সপ্তাহের মধ্যে নেইমারের ব্যাপারে একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছানো যাবে।

 

নেইমারকে নিয়ে নানা জল্পনা কল্পনা

ভেঙ্গে যাওয়া পায়ে সফল অস্ত্রোপাচার শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন ব্রাজিল ও প্যারিস সেন্ট জার্মেই’র (পিএসজি) ফুটবল সুপার স্টার নেইমার। তবে বিশ্বের সবচেয়ে দামী এই ফুটবলারের অনুশীলনে ফেরার সময় জানতে অন্তত ছয় সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে চিকিৎসকদের।

বেলোহরিজন্তের ম্যাটের ডেই হাসপাতাল থেকে রোববার সকালে ছাড়া পান নেইমার। এর ২৪ ঘন্টা আগে তার ডান পায়ের অস্ত্রোপাচার সম্পন্ন হয়। অস্ত্রোপাচারটি সফল হয়েছে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসকরা।

এখন পিএসজির হয়ে মৌসুমের বাকী ম্যাচগুলোতে নেইমার আদৌ অংশ নিতে পারবেন কিনা সেটিই বড় প্রশ্ন। তাছাড়া সুস্থতা ফিরে পাবার পরপর ২৬ বছর বয়সি এই ফুটবল তারকা আগামী জুনে রাশিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ফুটবলে কেমন পারফর্মেন্স দেখাতে পারবেন সেটি নিয়েও চলছে নানা জল্পনা কল্পনা।

নেইমারের পায়ে অস্ত্রোপাচার শেষে চিকিৎসক লাসমার বলেন,‘ তার বিবর্তন প্রক্রিয়ার উপর নির্ভর করছে সুস্থতা ফিরে পাওয়ার সময়। ছয় সপ্তাহ পর আমরা তার নতুন অবস্থা পর্যালোচনা করেত পারব।’ এ সময় হাসপাতালে পিএসজির প্রতিনিধিত্বকারী ফরাসি চিকিৎসক জেরার্ড সেইল্যান্ট নেইমারের মাঠে প্রত্যাবর্তন প্রসঙ্গে সাংবাদিকদের বলেন, ‘পুরোপুরি সুস্থ হয়ে অনুশীলনে ফিরতে নেইমারের অন্তত ছয় সপ্তাহ সময় লাগতে পারে। তিনি বলেন,‘ ওই ছয় সপ্তাহ অতিবাহিত হবার আগে আসলে বিস্তারিত তথ্য জানানো কঠিন।’

এর আগে লাসমার বলেছিলেন, বার্সেলোনা থেকে গত আগস্টে রেকর্ড পরিমান ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে পিএসজিতে যোগ দেয়া ফুটবল তারকার মাঠে ফিরতে দুই থেকে আড়াই মাস সময় লাগতে পারে। সেটি তিন মাসেও ঠেকতে পারে। তার কথা সঠিক হলে বিশ্বকাপের সুচনা লগ্নে নেইমারের মাঠে ফেরাটা দুস্কর হবে। দুই অনুশীলন ম্যাচেও খেলতে পারবেন না।

সেইল্যান্ট জানান, শনিবার এক ঘন্টা ১৫ মিনিট সময় লেগেছে নেইমারের পায়ে অস্ত্রোপাচারে। এরপর পুরো বিকেলটাই তিনি হাসপাতালের বিছানায় কাটিয়েছেন ট্রয়েসের বিপক্ষে পিএসজির লীগ ওয়ানের সরাসরি ম্যাচটি দেখে। ম্যাচে ২-০ গোলে জয় লাভ করে পিএসজি। তবে আগামী মঙ্গলবার রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের গুরুত্বপুর্ন ম্যাচে তার অনুপস্থিতি বিপাকে ফেলতে পারে ফরাসি জায়ান্টদের। ক্লাবে যোগ দেয়ার পর নেইমার সর্বমোট ৩০টি ম্যাচে অংশ নিয়ে ২৮টি গোল করেছেন।
গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মার্সেইয়ের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জয় পাওয়া ম্যাচে পা ভেঙ্গে গেলে তার ওই ধারাবাহিকতায় ব্যাঘাত ঘটে। এসময় তার চিকিৎসা নিয়ে কিছুটা উত্তেজনা দেখা যায় পিএসজি ও ব্রাজিলীয় ফুটবল কর্তৃপক্ষের মধ্যে।

নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পিএসজি বলেছে,‘ ক্লাবের ফিজিও থেরাপিস্টদের তত্বাবধানেই পরিচালিত হবে নেইমারের অস্ত্রোপাচার পরবর্তী পুর্বাসনের কাজ। এর আগে প্যারিসের সংবাদ মাধ্যম এল’ইকুইপের রিপোর্টে বলা হয়েছে, নেইমারের বাস্তবিক অবস্থা নিয়ে মিথ্যাচার করেছেন ব্রাজিলীয় চিকিৎসক লাসমার। এতে বলা হয়, মার্সেইয়ের বিপক্ষে নেইমারের ইনজুরিটি খুব বেশী গুরুতর ছিলনা। লাসমার যখন ঘোষণা দিলেন আঘাত গুরুতর এবং এবং সুস্থ হতে অনেক সময় লাগবে তখন কিছুটা আহত হয় পিএসজি।’

তবে শনিবার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন যে পিএসজি ও ব্রাজিলীয় ফেডারেশনের মধ্যে কোনো ধরনের বিভেদের সৃষ্টি হয়নি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.