ভারতকে মালদ্বীপের হুঁশিয়ারি
ভারতকে মালদ্বীপের হুঁশিয়ারি

ভারতকে মালদ্বীপের হুঁশিয়ারি

অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ
এএফপি

অভ্যন্তরীণ রাজনৈতিক সঙ্কটে হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে ভারতকে হুঁশিয়ার করে দিয়েছে মালদ্বীপ। জরুরি অবস্থা বৃদ্ধির খবরে ভারতীয় প্রতিক্রিয়ার জবাবে এই হুঁশিয়ারি দিয়েছে দ্বীপ দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ বিবৃতিতে এক সময়ে মালদ্বীপের মিত্র ভারতের সাথে দেশটির সম্পর্কের তিক্ততার বিষয় প্রকাশ পেয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার মালদ্বীপের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে বলেছে, ‘এতে সন্দেহ নেই যে মালদ্বীপ তার ইতিহাসের সবচেয়ে কঠিন সময় পার করছে। তবে তার চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ হলো ভারতসহ আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের বন্ধু ও অংশীদার রাষ্ট্রগুলোর কাছ থেকে এমন কোনো পদক্ষেপ যাতে না আসে, যা এই পরিস্থিতির সমাধানকে আরো কঠিন করে তোলে।’
গত বুধবার মালদ্বীপে জরুরি অবস্থা বৃদ্ধির খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ভারত। গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই দেশটিতে চলছে রাজনৈতিক অস্থিরতা। ভারত দেশটির রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নিয়ে ‘শঙ্কা’ প্রকাশ করেছে।

প্রেসিডেন্ট আবদুল্লাহ ইয়ামিন ২০১৩ সালে ক্ষমতা গ্রহণের পরই বিরোধী মতের রাজনীতিকদের ওপর ব্যাপক ধরপাকড় চালিয়েছেন। সবশেষ গত মাসে সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক রাজবন্দীদের মুক্তি দেয়ার নির্দেশে দেশটিতে নতুন অস্থিরতা শুরু হয়। সরকার আদালতের নির্দেশনা না মেলে প্রধান বিচারপতিসহ শীর্ষ কয়েকজন কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করে। এ অবস্থায় দেশটির নির্বাসিত সাবেক প্রেসিডেন্ট ও বর্তমান বিরোধীদলীয় নেতা মোহাম্মদ নাশিদ ভারতের সামরিক হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

পাল্টাব্যবস্থা হিসেবে ভারতে হুঁশিয়ার করে দেয় চীন। এক পর্যায়ে ওই অঞ্চলে টহল দিতে আসে চীনা যুদ্ধজাহাজ। তবে শেষ পর্যন্ত পরিস্থিতি সরকারের নিয়ন্ত্রণেই আছে। আবদুল্লাহ ইয়ামিনের সরকার শুরু থেকেই অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিকভাবে অনেকটাই চীনপন্থী হিসেবে পরিচিত।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.