রায়ে যেভাবে খালেদা জিয়ার জবানবন্দি বিকৃত করা হয়েছে
রায়ে যেভাবে খালেদা জিয়ার জবানবন্দি বিকৃত করা হয়েছে

রায়ে খালেদা জিয়ার জবানবন্দি বিকৃত করা হয়েছে : রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় রায়ে উদ্ধৃতিতে খালেদা জিয়ার জবানবন্দি বিকৃত করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

আজ বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আদালতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যে জবানবন্দিতে দিয়েছেন সেটিকে বিচারক ড. আখতারুজ্জামান তার রায়ে বিকৃতি করে উদ্ধৃত করেছে। জবানবন্দিতে বেগম জিয়া এক জায়গায় বলেছিলেন, নির্বিচারে গুলি করে প্রতিবাদী মানুষদের হত্যা করা হচ্ছে, ছাত্র ও শিক্ষকদের হত্যা করা হচ্ছে। এগুলো কি ক্ষমতার অপব্যবহার নয়? অপব্যবহার আমি করেছি? উনি প্রশ্ন করছেন বিক্ষুব্ধ হয়ে। এটাকে বিচারক (রায়ে) বলেছেন যে আসামি বেগম খালেদা জিয়া ফৌজদারি কার্যবিধি ৩৪২ ধারার বিধান মতে আত্মপক্ষ সমর্থনমূলক বক্তব্য প্রদানের সময় নিজ জবানিতে স্বীকার করেছেন যে তিনি অপরাধ করেছেন। খালেদা জিয়ার বক্তব্য এভাবে বিকৃত করে বিচারক রায় দিয়েছেন। প্রশ্নবোধক চিহ্ন তুলে দিয়ে উনি (বিচারক) দাড়ি দিয়ে দিয়েছেন।

রিজভী বলেন, ন্যায়বিচারকে পদদলিত করে বিচারক ড. আখতারুজ্জামান যে কুৎসিত দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, তাতে তিনি ইতিহাসে কলঙ্কিত ব্যক্তি হয়ে থাকবেন। শেখ হাসিনার জমানায় ইনসাফ যে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছে তা এই ড. আখতারুজ্জামানদের মতো বিচারকদের কারণে। আমরা বলতে চাই, সৃষ্টিকর্তা মহান আল্লাহ ও জনগণের সাজা থেকে এ সমস্ত মানুষরা কখনো রেহাই পাবেন না। পক্ষপাতদুষ্ট এই বিচারকরা সরকারের অনুগ্রহভাজন হওয়ার প্রতিযোগিতায় লিপ্ত থাকায় এই ভোটারবিহনী সরকার গণতন্ত্রকে ধুলোয় লুটিয়ে দেশে অরাজকতা, বিশৃঙ্খলা, হিংসা, গুম-খুনে আগ্রহী হয়ে উঠেছে।

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলন হয়।

ভারতের অনলাইন পোর্টাল ‘লুক ইস্ট’ থেকে উদ্ধৃতি করে বাংলাদেশের একটি অনলাইনে পত্রিকায় দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ‘তারেক রহমান, তার স্ত্রী জোবাইদা রহমান ও কণ্যা ব্রিটিশ নাগরিকত্বের আবেদন চেয়ে দরখাস্ত’ শীর্ষক প্রকাশিত সংবাদের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, এটি একেবারেই হীন উদ্দেশ্যপ্রণোদিত এবং বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও তার পরিবারের ওপর ভয়াবহ কলঙ্ক লেপনের দেশী ও আন্তর্জাতিক মাস্টার প্ল্যানের অংশ।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.