কিশোর মুসা রবিনের অভিযান

রকিব হাসান

ছাব্বিশ.
প্রচণ্ড জোরে ঘেউ ঘেউ করে ছুটে এলো কুকুরগুলো। লাফিয়ে উঠল। থাবা মারতে লাগল গাছের গায়ে।
একটা কুকুর লাফিয়ে উঠে আমার জুতো কামড়ে ধরল। মাথা ঝাঁকি দিয়ে আমাকে টেনে নামানোর চেষ্টা করল।
চেঁচিয়ে উঠে হ্যাঁচকা টান মারলাম। পা থেকে জুতো খুলে গেল। জুতোটা মুখে নিয়ে উড়ে গিয়ে মাটিতে পড়ল কুকুরটা।
আরেকটা কুকুর আমার মোজা কামড়ে ধরল।
লাথি মেরে ফেলে দিলাম ওটাকে। হাতে ভর দিয়ে নিজেকে টেনে তোলার চেষ্টা করলাম।
হঠাৎ পিছলে গেল হাত। চেঁচিয়ে উঠলাম। চিত হয়ে পড়লাম মাটিতে। একেবারে ক্ষুধার্ত কুকুরগুলোর মাঝখানে।
আমাকে ওভাবে পড়তে দেখে থমকে গেল কুকুরগুলো।
জিভ বের করে হাঁপাতে হাঁপাতে দেখছে আমাকে। যেন আমার উদ্দেশ্য বোঝার চেষ্টা করছে।
যখন বুঝল, কিছু করার সাধ্য নেই আমার, ধীরে ধীরে সামনে এগোতে শুরু করল আবার।
আমি জানি, উঠে বসতে গেলেই ঝাঁপিয়ে পড়বে। ছিঁড়ে টুকরো টুকরো করবে।
চাপা গরগর করে ইঞ্চি ইঞ্চি করে এগোচ্ছে ওগুলো।
মায়ানেকড়ের দাঁতটার কথা মনে পড়ল আমার।
সাপুড়ে বুড়ো দাঁতটা দেখে ভয় পেয়েছিল। কুকুরগুলোও পেতে পারে।
আস্তে করে একটা হাত তুলে আনলাম গলার কাছে।
আরো কাছে এসেছে কুকুরগুলো। ওগুলোর দুর্গন্ধে ভরা গরম নিঃশ্বাস লাগছে আমার মুখে।
শার্টের ভেতরে হাত ঢোকালাম।
(চলবে)

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.