ভাইসহ আ’লীগ নেতা গ্রেফতার

নড়াইলে ইউপি চেয়ারম্যান হত্যায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নড়াইল সংবাদদাতা

নড়াইলের দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা লতিফুর রহমান পলাশকে (৪৮) গুলি করে হত্যার ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরীফ মনিরুজ্জামান মনি, লোহাগড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মাসুদুজ্জামান মাসুদ, দিঘলিয়ার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ইমতিয়াজ আহম্মেদ মাসুম, দিঘলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি স ম ওহিদুর রহমানসহ ১৫ জনকে আসামি করে মামলা হয়েছে। গত শনিবার রাত পৌনে ১২টায় লোহাগড়া থানায় এ মামলা দায়ের করেন নিহত পলাশের বড় ভাই জেলা পরিষদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান হিলু।
মামলার অন্য আসামিরা হলোÑ আওয়ামী লীগ নেতা শরীফ মনিরুজ্জামানের ভাই শরীফ বাকি বিল্লাহ, তিনটি হত্যা মামলাসহ একাধিক মামলার আসামি সোহেল খান, শেখ বনিরুল ইসলাম বনি, শেখ পনিরুল ইসলাম কটো, সৈয়দ হেদায়েত আলী, শেখ খায়রুল ইসলাম খায়ের, শেখ বাবু মিয়া, রওশন শেখ, রিপন দত্ত, নজরুল ফকির ও আব্দুর রব মোল্যা। এর মধ্যে সৈয়দ হেদায়েত আলী ও নজরুল ফকির বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত থাকলেও অন্যরা আওয়ামী লীগের বিভিন্নপর্যায়ের নেতাকর্মী বলে জানা গেছে। এ ছাড়া ইমতিয়াজ আহম্মেদ মাসুমের বাড়ি দিঘলিয়া ইউনিয়নের তালবাড়িয়া এবং অন্যদের বাড়ি কুমড়ি গ্রামে। নিহত পলাশের বাড়িও কুমড়ি গ্রামে। এ দিকে পলাশ হত্যা মামলার প্রধান আসামি জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শরীফ মনিরুজ্জামান মনিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে নড়াইলের সহকারী পুলিশ সুপার মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে ঢাকা থেকে মনিরুজ্জামান মনিকে গ্রেফতার করে গতকাল রোববার দুপুরে লোহাগড়ায় নিয়ে আসা হয়। এর আগে মনিরুজ্জামানের ভাই শরীফ বাকি বিল্লাহকে সন্দেহজনকভাবে আটকের পর শনিবার আদালতে পাঠানো হয়। মামলার বাদি মুক্তিযোদ্ধা সাইফুর রহমান হিলু বলেন, অন্য আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার করে বিচারের মুখোমুখি করতে হবে। আমরা ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করি।
নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের শ্রমবিষয়ক সম্পাদক লতিফুর রহমান পলাশকে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দুপুর পৌনে ১২টায় লোহাগড়া উপজেলা পরিষদ চত্বরে গুলি করে এবং কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.