ঢাকা, সোমবার,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

আরো খবর

নারায়ণগঞ্জে বুড়িগঙ্গায় ডুবে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু, আটক ৪

নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,বৃহস্পতিবার, ০০:০০


প্রিন্ট
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় চলন্ত ট্রলার থেকে বুড়িগঙ্গা নদীতে পড়ে রাকিবুল ইসলাম শান্ত (১৮) নামে এসএসসি পরীক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় পাগলা এলাকায় বুড়িগঙ্গায় এ ঘটনা ঘটে। এক ঘণ্টা পর কোস্টগার্ড পাগলা স্টেশনের সদস্যরা নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছেন।
পরিবারের অভিযোগ, শান্তকে ট্রলার থেকে ধাক্কা দিয়ে নদীতে ফেলে দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ তার তিনজন সহপাঠী ও এক বন্ধুকে আটক করেছে। ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষে ওই ৫ জন মিলে বুড়িগঙ্গার দক্ষিণ পাশে কেরানীগঞ্জের পানগাঁও এলাকাতে ঘুরতে গিয়েছিল। 
নিহত শান্ত নারায়ণগঞ্জের পাগলায় নয়ামাটি এলাকার মিলন ডাক্তারের বাড়ির ভাড়াটিয়া শফিকুল ইসলাম রতনের ছেলে। শান্ত এ বছর পাগলা উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছিল।
আটককৃতরা হলোÑ ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটি এলাকার আবুল বাশারের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেল, একই এলাকার হাকিম হাওলাদারের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী সজিব, আমির হোসেনের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী মেহেদী হাসান শুভ ও একই এলাকার মোখলেছের ছেলে ওয়ার্কশপের শ্রমিক রাব্বি।
আটককৃতদের বরাত দিয়ে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ নৌপুলিশ ফাঁড়ির এসআই ফরহাদ আলম জানান, শান্ত তার চার বন্ধুর সাথে ফতুল্লার পাগলার বাড়ি থেকে বুড়িগঙ্গা নদী পার হয়ে কেরানীগঞ্জের পানগাঁও এলাকায় ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ঘুরতে যায়। সেখান থেকে বাড়ি ফেরার পথে একটি ট্রলারে বিকেল সাড়ে ৪টায় বুড়িগঙ্গা নদী পার হওয়ার সময় মাঝ নদীতে শান্ত ট্রলার থেকে পড়ে পানিতে ডুবে যায়। তবে নিহতের মায়ের অভিযোগে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। নিহত শান্তের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্টে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। 
শান্তর মা আসমা বেগম বলেন, শান্তকে পরিকল্পিতভাবে নদীতে ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে হত্যা করেছে তার বন্ধুরা। আমি এর বিচার চাই।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫