আইএস সন্ত্রাসীরা পালানোর সময় ফেলে গেছে ইসরাইলি অস্ত্র
আইএস সন্ত্রাসীরা পালানোর সময় ফেলে গেছে ইসরাইলি অস্ত্র

আইএস সন্ত্রাসীরা পালানোর সময় ফেলে গেছে ইসরাইলি অস্ত্র

নয়া দিগন্ত অনলাইন

সিরিয়ার দেইর আজ-জোরের আশপাশের এলাকা থেকে আবারও ইসরাইলি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। দায়েশের নিয়ন্ত্রণ থেকে ওই সব এলাকা মুক্ত করার পর সেখানে উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে সিরিয়ার সেনাবাহিনী। আইএস সন্ত্রাসীরা পালানোর সময় এসব অস্ত্র ফেলে গেছে।

দেইর আজ-জোরের বুকামাল শহরের অদূরে আস-সিয়াল ও হাসারাত গ্রাম থেকে মর্টার, ট্যাংক ও মাইনসহ বিভিন্ন সামরিক সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। সিরিয়ায় আইএসের আস্তানা থেকে এর আগেও ইসরাইলি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিরিয়ার এক সেনা কর্মকর্তা বলেন, এসব অস্ত্রই প্রমাণ করে এ অঞ্চল ও বাইরের বিভিন্ন দেশ আইএসকে সরাসরি অস্ত্র দিচ্ছে।

গত ১০ ডিসেম্বর সিরিয়ার সেনাবাহিনী আইএসের একটি আস্তানা থেকে বিপুল পরিমাণ বিদেশি অস্ত্র উদ্ধার করে। এর মধ্যে ট্যাঙ্ক, সামরিক যান, স্থল মাইন, গাড়ি বোমাসহ বিভিন্ন ধরনের বিস্ফোরক ও যোগাযোগ সরঞ্জামও ছিল। তার আগে গত ১৯ অক্টোবরও দেইর আজ-জোরের মায়াদিন শহর থেকে বিপুল পরিমাণ ইসরাইলি অস্ত্র উদ্ধার করে সিরিয়ার সেনাবাহিনী।

 

মার্কিন সহায়তায় যেভাবে আফগানিস্তানে ঢুকছে আইএস

রুশ প্রেসিডেন্টের দূত জামির কাবুলভ বলেছেন, আমেরিকা আইএস উগ্রবাদীদেরকে আফগানিস্তানে প্রবেশের সুযোগ দিচ্ছে। সিরিয়া ও ইরাকে পরাজিত হওয়ার পর আইএস সদস্যরা এখন আফগানিস্তানে এসে জড়ো হচ্ছে বলে তিনি জানান।

আফগানিস্তানে রুশ প্রেসিডেন্টের দূত গতকাল বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘এটা উল্লেখযোগ্য যে, বহু সাক্ষ্য-প্রমাণে দেখা যাচ্ছে উগ্রবাদীরা অস্ত্রসহ হেলিকপ্টারে করে আফগানিস্তান ভূখণ্ডে প্রবেশ করছে। তাদেরকে কোনো বাধা দেয়া হচ্ছে না।’

তিনি আরও বলেন, আফগানিস্তানের আকাশের পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ রয়েছে আমেরিকা ও ন্যাটোর হাতে। এটা অবিশ্বাসের কোনো কারণ নেই যে, এ ক্ষেত্রে তাদের হাত রয়েছে। অন্তত এটাতো ঠিক যে, আমেরিকা ও ন্যাটো দায়েশের হেলিকপ্টার চলাচলে বাধা দেয়নি।

গত নভেম্বরে আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই আল-জাজিরা টিভি চ্যানেলকে বলেছেন, আমেরিকা আফগানিস্তানে আইএসের সঙ্গে গোপনে সমঝোতা করেছে। এর ভিত্তিতে তারা আফগানিস্তানে আইএসকে অবস্থান শক্তিশালী করার সুযোগ দিচ্ছে। সম্প্রতি ইরানের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, আমেরিকা আফগানিস্তানে নিজেদের সেনা উপস্থিতির পক্ষে যুক্তি দাঁড় করাতে সেখানে আইএস সদস্যদের জড়ো করছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.