অর্থের অভাবে পাকিস্তান-জিম্বাবুয়ে সিরিজ আয়োজনে শঙ্কা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

আগামী অন্তত এক মাস পাকিস্তানী খেলোয়াড়রা পাকিস্তান সুপার লীগের (পিএসএল) খেলা নিয়ে দারুণ ব্যস্ত সময় কাটাবে।

আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে পিএসএল, যা চলবে ২৩ মার্চ পর্যন্ত। পাকিস্তান এরপর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি২০ সিরিজে খেলবে। এরপরপরই রয়েছ ইংল্যান্ড ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ। এরপর স্কটল্যান্ড ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। যদিও এই মুহূর্তে জিম্বাবুয়ে সফর নিয়ে কিছুটা শঙ্কা দেখা দিয়েছে। জুনে তিন ধরনের ফর্মেটেই পাকিস্তানকে আতিথেয়তা দেয়ার কথা ছিল। একইসাথে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে অস্ট্রেলিয়ারও জিম্বাবুয়ে সফরে যাওয়ার কথা ছিল। যদিও সিরিজগুলোর সূচি এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

ঘরের মাঠে আসন্ন এই আন্তর্জাতিক সিরিজগুলো আয়োজনে আর্থিক সঙ্ক একটি বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেকোন দলের বিপক্ষে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন সবসময়ই ব্যয়বহুল। সফরকারী দলগুলোর জন্য বিভিন্ন ধরনের লজিস্টিক সাপোর্টের দরকার হয়। যদিও এর মাধ্যমে বেশ বড় অঙ্কের রাজস্ব আয় হয়। কিন্তু জিম্বাবুয়ের মাটিতে তা কতটা লাভজনক হবে সেটাই এখন বড় বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

যদিও জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট এখন চেষ্টা করছে উভয় দেশের সাথে আলোচনা করে দ্বিপাক্ষিক নয় বরং ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজনের। কিন্তু সেখানে অর্থেও প্রয়োজন রয়েছে। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের ব্যবস্থপনা পরিচালক ফয়সাল হাসনাইন বলেছেন, আর্থিকভাবে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজটি আয়োজন কঠিন হয়ে পড়েছে। কারণ আমরা টিভি স্বত্ত থেকে তেমন কিছুই পাই না। দিনের শেষে দেখা যায় এ ধরনের সিরিজ থেকে ব্যপক আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।

২০১৯ বিশ্বকাপ ক্রিকেটকে সামনে রেখে বাছাইপর্বের ম্যাচগুলো আগামী মাসে জিম্বাবুয়েতে শুরু হচ্ছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.