ঢাকা, সোমবার,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডা

জুনিয়র ট্রাম্পের চিঠিতে সন্দেহজনক পাউডার, স্ত্রী হাসপাতালে

রয়টার্স

১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,বুধবার, ১০:৫৮


প্রিন্ট

ডাকে আসা একটি চিঠিতে অজ্ঞাত সাদা পাউডার দেখে বমি পাওয়ার কথা জানানোর পর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পুত্রবধূ ভেনিসা ট্রাম্পকে নিউ ইয়র্কের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্বামী ট্রাম্প জুনিয়রের নামে ডাকে আসা চিঠিগুলো খুলে দেখছিলেন ভেনিসা, তার মধ্যে একটিতে ওই পাউডার পাওয়া যায় বলে কর্মকর্তারা জানান। অবশ্য পরে ওই পাউডার পরীক্ষা করে বিষাক্ত কিছু পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন তারা।

সোমবারের এ ঘটনায় ট্রাম্পের পুত্রবধূর সাথে থাকা আরো দুই ব্যক্তিকেও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় বলে জানিয়েছে নিউ ইয়র্ক পুলিশ।

নিউ ইয়র্ক পুলিশের মুখপাত্র কার্লোস নিয়েভেস বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প জুনিয়রের ঠিকানায় লেখা চিঠির সাথে ডাক মারফত ওই পদার্থটি এসেছিল।

বিভিন্ন গণমাধ্যম ও কংগ্রেস সদস্যের কাছে খামে ভরে অ্যানথ্রাক্সের জীবাণু পাঠানোর ঘটনায় পাঁচজনের মৃত্যুর পর ২০০১ সাল থেকে মার্কিন কর্তৃপক্ষ ডাকে পাঠানো পাউডারের ব্যাপারে সতর্কতা জারি করে রেখেছে।

দমকল বিভাগের মুখপাত্র সোফিয়া কিম জানান, ভেনেসার অভিযোগ পাওয়ার পর ওই ঘর থেকে তিনজনকে নিউ ইয়র্কের ওয়েইল কর্নেল মেডিক্যাল সেন্টারে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। তিনজনের মধ্যে ভেনিসার মা-ও আছেন, যদিও তিনি খারাপ লাগার কথা জানাননি বলে জানিয়েছেন পুলিশ বিভাগের মুখপাত্র।

ভেনিসা যে চিঠিতে সাদা পাউডার পেয়েছেন, তাতে বোস্টনের পোস্টমার্ক ছিল বলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অজ্ঞাত এক সূত্রের বরাত দিয়ে এবিসি নিউজ ও নিউ ইয়র্ক পোস্টের খবরে বলা হয়েছে। নিউ ইয়র্কের পুলিশ এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫