ঢাকা, বুধবার,২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ঢাকা

প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন নিজেই!

ঘিওর (মানিকগঞ্জ) সংবাদদাতা

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,মঙ্গলবার, ১৭:৪৪


প্রিন্ট
প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন নিজেই!

প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে গিয়ে ফেঁসে গেলেন নিজেই!

প্রতিপক্ষকে পূর্বের জমি সংক্রান্তের বিরোধের জের ধরে ফাঁসাতে গিয়ে ঘিওর উপজেলায় উজ্জল হোসেন (২৮) নামে এক যুবক নিজেই ফেঁসে গেলেন। মোঃ রুহুল আমীন নামে প্রতিপক্ষের বাড়িতে 7.62- smg রাইফেলের গুলি তাজা -১টি, 9 mm– চায়না রাইফেলের ব্যবহৃত খোসা -২ দিয়ে প্রতিপক্ষের লোকজনকে ফাঁসানোর নাটক তৈরি করে নিজেই নাট্যকার বনে গেছেন তিনি। পুলিশের হাতে গুলিসহ ধরা পড়া যুবক শ্রীবাড়ী পূর্ব পাড়া গ্রামের আব্দুর রশিদের পুত্র উজ্জল হোসেন।

ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার রাত ৯টায় উপজেলার বড়টিয়া ইউনিয়নের শ্রীবাড়ী পূর্ব পাড়া রুহুল আমীনের নিজ বাড়ীতে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে ঘিওর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, ওই দিন রাতে টহল দিচ্ছিল ঘিওর থানা পুলিশ রাত ৯টায় উজ্জল নামে একটি যুবক ফোন করে এ এস আই ফিরোজ মিয়া সরকারকে বলে শ্রীবাড়ী একটি বাড়িতে কিছু মাল আছে এখন আসলে ধরতে পারবেন।

পুলিশের ধারণা ছিল হয়তো কোনো মাদক দ্রব্য আছে । পুলিশ দ্রত সেখানে পৌঁছে যায়। সেখানে গিয়ে উজ্জল নামে একটি ছেলে রুহুলের বাড়ি দেখিয়ে দেয়। ঐ বাড়িতে অবৈধ মাল আছে। পুলিশ রুহুলের বাড়ি গিয়ে ঘরের সব কিছু খোঁজে দেখে কিছুই পায় না।

পরে উজ্জল রুহুলের বাড়ির টয়লেটের পাশে পলিথিনের কাগজে মোড়ানো ১টি তাজা গুলি ও ২টি ব্যবহৃত গুলির খোসা দেখিয়ে দেয়। পুলিশের সন্ধেহ হয় ঐ বাড়ির কেউ জানে না উজ্জল ছেলেটি গুলির খবর কিভাবে জানে। পরে গুলিসহ উজ্জলকে জিঞ্জাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।

ঘিওর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রবিউল ইসলাম জানান, ব্যাপক জিঞ্জাসাবাদে প্রকৃত সত্য ঘটনাটি সে স্বীকার করে। এ ঘটনায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে । তদন্ত করে এর নেপথ্যে যে বা যারা রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫