ঢাকা, সোমবার,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

টেলিভিশন

'লাজুক ভাবী বেশ যত্ন নিয়ে কাজটি করেছেন'

আলমগীর কবির

১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,রবিবার, ১৭:০০


প্রিন্ট

রাশেদা আক্তার লাজুক, একাধারে একজন অভিনেত্রী, নাট্যকার ও নাট্যনিদের্শক। বাংলাদেশে তিনিই সেই নারী নাট্যরচয়িতা যিনি পাঁচ শতাধিক পর্বেরও বেশি ধারাবাহিক নাটক রচনা করেছেন। তার অভিনীত, রচিত এবং নির্মিত নাটক সবসময়ই দর্শক প্রশংসিত হয়েছে। আবারো দু’বছর পর লাজুক নতুন একটি রোমান্টিক গল্পের নাটক নিয়ে দর্শকের মাঝে উপস্থিত হচ্ছেন।

আসছে ভালোবাসা দিবসে বাংলাভিশনে প্রচারের জন্য ভিশন নিবেদিত ‘তুমি ছাড়া ইম্পসিবল’ নাটকটি নির্মাণ করেছেন রাশেদা আক্তার লাজুক। ১৪ ফেব্রুয়ারি রাত ১১.২৫ মিনিটে নাটকটি বাংলাভিশনে প্রচার হবে। নাটকটি প্রসঙ্গে লাজুক বলেন,‘ মূলত বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দু’জন তরুণ তরুণী’র গল্প নিয়েই এ নাটকের মূল কাহিনী। একটি রোমান্টিক গল্পের নাটক। আমি দু’বছর পর কোনো নাটক নির্মাণ করেছি। বেশ আন্তরিকতা, ভালোলাগা ও যত্ন নিয়ে কাজটি করেছি। তানভীর এবং এভ্রিল দু’জনই দারুণ অভিনয় করেছেন। কাজটি নিয়ে আমি খুব আশাবাদী।’

নাটকে আরশ চরিত্রে অভিনয় করেছেন ‘গহীন বালুচর’খ্যাত অভিনেতা তানভীর এবং সারাহ চরিত্রে অভিনয় করেছেন এভ্রিল। নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে তানভীর বলেন,‘ এটা আমার অভিনীত প্রথম নাটক। লাজুক ভাবী বেশ যত্ন নিয়ে একটি পারিবারিক পরিবেশের মধ্যদিয়ে কাজটি করেছেন। আমি ও এভ্রিল একসঙ্গে এবারই প্রথম কাজ করেছি। আমরা দু’জনই অভিনয়ের সময়টা বেশ উপভোগ করেছি।’

এভ্রিল বলেন,‘ একজন সন্তানকে মা যদি খুব বেশি আদর যত্ন করেন, বাইরের পরিবেশের সাথে মিশতে না দেন তাহলে সেই সন্তান কী সমস্যায় পড়তে পারে তা এই নাটকে বলা হয়েছে। লাজুক ভাবীর নির্দেশনায়য় প্রথম কাজ করেছি। তিনি মায়ের ভালোবাসা দিয়ে আমাদের আগলে রেখে অভিনয় করিয়েছেন। আমরা বেশ উপভোগ করেছি শুটিং-এর সময়টা।’

লাজুক প্রখ্যাত চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনের সন্তান সাজ্জাদ হোসেন দোদুলের স্ত্রী। তার হাত ধরেই নির্মাতা হিসেবে মিডিয়াতে লাজুকের অভিষেক। সর্বশেষ লাজুক দুই বছর আগে ‘রাইফেল মাঝি’ নাটকটি নির্মাণ করেছিলেন। তার নির্মিত প্রথম নাটক ছিল ২০০৬ সালে বিটিভিতে প্রচারিত ‘খড়ের পুতুল’।

উল্লেখ্য লাজুক নির্দেশিত ‘তুমি ছাড়া ইম্পসিবল’ নাটকটিতে আরো অভিনয় করেছেন শহীদুজ্জামান সেলিম, সাবেরী আলম।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫