রৌমারীতে পরীক্ষা কেন্দ্রে ইউএনও’র গাড়ি ভাঙচুর

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) সংবাদদাতা

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার যাদুরচর উচ্চ বিদ্যালয় এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে কড়াকড়িভাবে দায়িত্ব পালন করায় পরীক্ষা শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপঙ্কর রায়ের গাড়ি ভাঙচুর করেছে বিক্ষুদ্ধ পরীক্ষার্থীরা।

আজ শনিবার গণিত পরীক্ষা শেষে পরীক্ষার হল থেকে বের হয়ে উপজেলা নির্বাহীর গাড়ি, পরীক্ষা কেন্দ্রের রাখা শিক্ষকদের ১৫টি মোটরসাইকেল ও বিদ্যালয়ের পাঁচটি দরজা, তিনটি জানালা এবং পরীক্ষার কক্ষে থাকা সাতটি সিসি ক্যামেরা ও টিনশিডের ওয়াল ভাঙচুর করে পরীক্ষার্থীরা। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অবরুদ্ধ হয়ে পরে। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

পরীক্ষার্থীদের অভিযোগ, পরীক্ষার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অন্য কোনো কেন্দ্রে না গিয়ে যাদুরচর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে কর্তব্য পালন করে কোনো কারণ ছাড়াই পরীক্ষার্থীদের হয়রানী করায় এ ঘটনা ঘটেছে। রৌমারী উপজেলায় এবারের আসন্ন এসএসসি পরীক্ষায় পাঁচটি কেন্দ্র পরীক্ষার্থী প্রায় চার হাজার। কিন্তু যাদুরচর উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এক হাজার ১৩৪ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিচ্ছে।

রৌমারী থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

তবে এ ঘটনায় রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিপঙ্কর রায় জানান, পরীক্ষা শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত এই কেন্দ্রে থাকি এবং কড়াকড়িভাবে দায়িত্ব পালন করি। পরীক্ষা শেষে হটাৎ পরীক্ষার্থীরা কোনো কারণ ছাড়াই আমার উপর চড়াও হয় এবং পরীক্ষা কেন্দ্রে থাকা গাড়ি ভাঙচুর করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রৌমারী উপজেলা চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান বলেন, ওই কেন্দ্রে ইউএনও শুরু থেকে পরীক্ষা শেষ পর্যন্ত কড়াকড়িভাবে দায়িত্ব পালন করে। সেই সাথে আরো আটজন কর্মকর্তাকে পরীক্ষা চলাকালে কেন্দ্রে নিয়ে আসেন। এজন্য পরীক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়। ভয় ভয় নিয়ে পরীক্ষা দিয়েছে পরীক্ষার্থীরা। তাই তারা ইউএনও’র উপর চড়াও হয়ে গাড়ি ভাঙচুর করে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.