মাহরেজ লিস্টার থেকে সিটিতে ফিরতে পারবেন বলে আশা গার্দিওলার

নয়া দিগন্ত অনলাইন

ম্যানচেস্টার সিটির কোচ পেপ গার্দিওলার প্রত্যাশা লিস্টার ছেড়ে ম্যানচেস্টার সিটিতে পাড়ি জমাতে সক্ষম হবে আলেজেরীয় তারকা রিয়াদ মাহরেজ।
দল বদলে ব্যর্থ হয়ে ক্ষিপ্ত মাহরেজ দীর্ঘ প্রায় ৯ দিন বিনা অনুমতিতে ফক্সেসদের থেকে দূরত্ব বজায় রাখার পর শুক্রবার ফের দলীয় অনুশীলনে ফিরেছেন। তাকে দলে ভেড়ানোর জন্য ৫০ মিলিয়ন পাউন্ড প্রদানের প্রস্তাব দিয়েছিল প্রিমিয়ার লীগের শীর্ষ পয়েন্টধারীরা। তবে তাদের প্রস্তাবিত মুল্যে মাহরেজকে ছেড়ে দিতে অস্বীকৃতি জানায় লিস্টার।
এই ঘটনার জেরে বিনা অনুমতিতে দলীয় অনুশীলনে অংশগ্রহণ থেকে বিরত থাকার জরিমানা হিসেবে মাহরেজকে গুনতে হবে ২লাখ ৪০ হাজার পাউন্ড। তবে লিস্টার কোচ ক্লদে পুয়েল তার একাদশের নড়বরে মধ্যমাঠে মাহরেজকে ফিরিয়ে আনার পরিকল্পনা করছেন।
গার্দিওলার প্রত্যাশা তার স্কোয়াডে ঢুকার একটি পথ মাহরেজ অবশ্যই বের করে আনবেন। পাশাপাশি জানান সে যদি মাঠে নামে তাহলে তাদের খেলার মান আরো বেড়ে যাবে। গার্দিওলা বলেন, ‘আমার প্রত্যাশা সে খেলবে। আমি চাই সে দ্রুত মাঠে ফিরে আসুক এবং খেলায় অংশ নিক। কারণ আমরা তার খেলা উপভোগ করি। আশা করছি অতি সত্তর সে লিস্টার সিটির হয়ে মাঠে ফিরে আসবে এবং নিজের সেরা খেলাটা উপহার দিবে।’
সিটি চেয়েছিল ইনজুরির কবলে পড়া লেরয় সেনের পরিবর্তিত হিসেবে মাহরেজকে নিয়ে তারা নিজেদের আক্রমনভাগটি সাজিয়ে তুলবে। কার্ডিফে এফএ কাপের চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচে অংশগ্রহনের সময় পায়ের গোড়লির ইনজুরিতে পড়েছিলেন ওই সিটি তারকা। যে কারণে মার্চের মধ্যভাগ পর্যন্ত তাকে সাইডলাইনে কাটাতে হবে।
জার্মানির ওই তারকা ইনজুরিতে পড়ায় সিটির ইনজুরিগ্রস্ত তারকা খেলোয়াড়দের তালিকা আরো প্রলম্বিত হয়েছে। যার পরিপ্রেক্ষিত মাত্র ছয়জন নিয়মিত খেলোয়াড় এবং ৭জন পরিবর্তিত খেলোয়াড় নিয়ে গত সপ্তাহে লীগ ম্যাচে বার্নলির মোকাবেলা করতে হয়েছে। ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হওয়ায় বাঁধাগ্রস্ত হয়েছে ম্যানচেস্টার সিটির স্বাবলিল অগ্রযাত্রা। ফলে তালিকার দ্বিতীয়স্থান ধারী ম্যানইউর সঙ্গে ব্যবধান ১৩ পয়েন্টে নেমে এসেছে।
কাতালান কোচের দল গঠনের এই ধারার সমালোচনা করেছে ব্রিটিশ পন্ডিতরা। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক অধিনায়ক গেরি নেভিল মনে করেন এর মাধ্যমে গার্দিওলা তাদের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের সাইডলাইনে বসিয়ে রেখে একাডেমী ক্লাবের মেধাবী খেলোয়াড়দের দলে ভেড়ানোর সুযোগ খুঁজছেন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.