আগুনে পোড়া মায়ের লাশ দাফনে সন্তানদের বাধা, পুলিশে তুলে দেয়া হলো বাবাকে
আগুনে পোড়া মায়ের লাশ দাফনে সন্তানদের বাধা, পুলিশে তুলে দেয়া হলো বাবাকে

আগুনে পোড়া মায়ের লাশ দাফনে সন্তানদের বাধা, পুলিশে তুলে দেয়া হলো বাবাকে

মোঃ জাকির হোসেন, সৈয়দপুর (নীলফামারী)

নীলফামারীর সৈয়দপুরে শনিবার সকালে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামী জাহিদকে (৪৫) আটক করেছে পুলিশ। এতে নিহতের সন্তান মালেক একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
নিহত মালেকা বেগম (৪০) উপজেলার কামার পুকুর ইউনিয়নের আইসঢাল গ্রামের ট্রাক ড্রাইভার জাহিদের স্ত্রী।

এলাকাবাসী জানায়, সোমবার ৫ ফেব্রুয়ারি রাত ১টার দিকে গৃহবধু মালেকার চিৎকারে ছুটে আসেন মামাতো ভাই মিজানুর। তিনি দেখতে পান মালেকা বেগন অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় কাতরাচ্ছেন। মালেকার স্বামী এসময় ঘরেই ছিলেন। জাহিদ সাথে সাথে তার স্ত্রীকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করান। অবস্থার অবনতি হওয়ায় সে রাতেই মালেকা বেগমকে রংপুর মেডিকেল কলেজে ভর্তি করানো হয়। পর দিন মঙ্গলবার উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানোর জন্য বলা হয়। জাহিদ তার স্ত্রীকে ঢাকায় না নিয়ে গিয়ে বাসায় নিয়ে আসেন।

শুক্রবার সকালে অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে পার্বতীপুর ল্যাম্ব হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেদিন সন্ধ্যা ৬টার দিকে মালেকা বেগম মৃত্যুবরণ করেন। রাত ২টার দিকে মালেকার লাশ বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। শনিবার সকালে তার লাশ দাফন করার সময় বাধা দেন মালেকার ছেলে মালেক ও তার মামারা। বিষয়টি সৈয়দপুর থানা পুলিশকে অবহিত করা হলে নিহত মালেকার লাশ ও তার স্বামী জাহিদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

মালেকা বেগমের ছেলে মালেক (২০) জানান, বাবা আমার মাকে মেরে ফেলেছে। আমাদের এলাকার মমিনুর রহমান মমিন নামে এক ব্যক্তির সহায়তায় থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে আমার বাবা মায়ের লাশ দাফনের চেষ্টা করে। আমার মায়ের হত্যাকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।
সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম লোকমান জানান, ধারণা করা হচ্ছে পরিকল্পিতভাবে স্ত্রীকে হত্যা করেছে জাহিদ।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: শাহজাহান জানান, নিহতের স্বামী জাহিদকে আটক করা হয়েছে এবং লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্মে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

 

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.