ঢাকা, শনিবার,২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

শিক্ষা

রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কাল ছুটি ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক

০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,বুধবার, ২০:০৪


প্রিন্ট

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘিরে টান টান উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আগামীকাল বৃহস্পতিবার সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

রাজধানীর ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলগুলোতে আগাম ছুটির নোটিশ দেয়া হয়েছে। তবে, সারাদেশের সব সরকারি প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক-কর্মচারীদের কালকের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। শিক্ষক-কর্মচারীদের যথাসময়ে স্কুলে হাজির হয়ে পুরো সময় স্কুল প্রাঙ্গনেই অবস্থানেরও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোকে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর (ডিপিই) এবং মাধ্যমিক স্কুলগুলোকে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) থেকে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠান প্রধানরা জানিয়েছেন।

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অভিভাবকদের মধ্যেও শংকা বিরাজ করছে। উদ্বেগের মধ্যে রয়েছেন সারাদেশের ২০ লক্ষাধিক পরীক্ষার্থী। অনেক অভিভাবক কালকের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে কি না আজ সন্ধ্যার পর নয়া দিগন্ত অফিসের টেলিফোন করতে জানতে চেয়েছেন। কাল সাধারণ আট বোর্ডে ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা বিষয়ে এবং মাদরাসা বোর্ডে বাংলা দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তবে, কারিগরি বোর্ডে কাল কোনো পরীক্ষা নেই।

কালকেকের পরীক্ষার ব্যাপারে জানতে চাইলে, আন্তঃবোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির আহবায়ক মোঃ শাহেদুল খবির চৌধুরী আজ সন্ধ্যায় নয়া দিগন্তকে বলেন, পরীক্ষা বাতিল, পিছিয়ে দেয়া এবং তারিখ পরিবর্তনের মত কোনো ঘটনা এখন পর্যন্ত ঘটেনি। এ নিয়ে পরীক্ষা কর্তৃপক্ষও কোনো চিন্তা করছে না।

তিনি বলেন, পরীক্ষা ঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। এ ব্যাপারে অভিভাবক-পরীক্ষার্থীদের উদ্বিগ্ন বা শংকিত হবার কোনো কারণ নেই।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায়কে ঘিরে রাজধানীর অধিকাংশ ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল কর্তৃপক্ষ আজ ছুটি ঘোষণা করেছে। নোটিশে অনিবার্য কারণবশতঃ ছুটির কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

রাজধানীর উত্তরা গুলশান বনানী ও ধানমন্ডি এলাকায় অবস্থিত প্রায় সব কয়টি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে এ নোটিশ দেয়া হয়েছে আজ। বেসরকারি বাংলা মিডিয়াম স্কুলে আজ এ ধরনের কোনো নোটিশ না দেয়া হলেও অধিকাংশ স্কুলে চলমান এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র থাকায় কোন ধরনের ছুচিল নোটিশ নেই। যেমন মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলে পুরো পরীক্ষা চলাকালে সব ধরনের ক্লাস বাতিল থাকে এমনিতেই।

তবে, দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক কর্মচারীদের কাল ৮ ফেব্রুয়ারি স্কুলে বাধ্যতামূলকভাবে উপস্থিত থাকার জন্য লিখিত নির্দেশ দেয়া হয়েছে ডিপিই’র পক্ষ থেকে।

ডিপিই জেলা শিক্ষা অফিসগুলোকে প্রতিষ্ঠান খোলা রাখা এবং স্কুলের পুরো সময় শিক্ষক কর্মচারীদের স্কুল প্রাঙ্গনে উপস্থিতি নিশ্চিত করতে মনিটরিং করতে বলা হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।

সারাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা হচ্ছে, পুরাতন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা হচ্ছে ৩৬ হাজার তিন শতাধিক এবং ২০১৩ সালে জাতীয়করনকৃত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংখ্যা হচ্ছে, ২৬ হাজার ১৯৩টি। সব স্কুলে শিক্ষক-কর্মটারীর সংখ্যা হচ্ছে পাঁচ লক্ষাধিক। একই ধরনের অলিখিত নির্দেশনা দেয়া হয়েছে, সরকারি মাধ্যমিক স্কুলগুলোতেও।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫