দ. কোরিয়া সফর করবেন কিম জং উনের বোন

নয়া দিগন্ত অনলাইন

দক্ষিণ কোরিয়ায় অনুষ্ঠিতব্য শীতকালীন অলিম্পিকে যোগ দেবেন তাদের প্রতিবেশী শত্রুদেশ উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং উনের বোন। আয়োজকদের পক্ষ থেকে আজ একথা জানানো হয়েছে। ফলে বিভক্ত হবার পর উত্তর কোরিয়ার শাসক পরিবারের কোন সদস্যের এটিই হবে প্রথম দক্ষিণ কোরিয়া সফর।
জং উনের বোন কিম ইয়-জং উত্তর কোরিয়ার ক্ষমতাসীন দলের সিনিয়র সদস্য। আগামী শুক্রবার শুরু হতে যাওয়া গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উত্তর কোরিয়ার উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিবেন তিনি। দুই কোরিয়ার একীভূতকরণ সংক্রান্ত মন্ত্রণালয় একথা জানিয়েছে।
১৯৫৩ সালে কোরিয়ান যুদ্ধের সময় বিভক্ত হয়ে যায় দুই কোরিয়া। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়ার পরামাণবিক বোমা তৈরী এবং মহাদেশীয় ও আন্ত:মহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর কারণে দেশ দুটি’র মধ্যে উত্তেজনা আরো বেড়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘসহ গোটা বিশ্বে উদ্বেগ দেখা দেয়।
এমন উত্তেজনাকর মুহুর্তকে কিছুটা হলেও প্রশমিত করতে ভুমিকা রাখছে এই অলিম্পিক গেমস। যাকে ক্রীড়া কূটনীতিও বলা হয়। সিউলে অবস্থিত ইউনিভার্সিটি অব নর্থ কোরিয়ান স্টাডিসের প্রফেসর ইয়ং মু-জিন বলেন, ‘এই প্রথম উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম পরিবারের কোন সদস্যের দক্ষিণ কোরিয়া সফর খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’
সফরকালে তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রপতি মুন জেই-ইনের সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে আশা করা হচ্ছে। ওই বৈঠকে তিনি রাষ্ট্রপতির হাতে তুলে দেবেন তার ভাইয়ের একটি ব্যক্তিগত চিঠি। যে চিঠিতে অলিম্পিকের সফলতা কামনা করার পাশাপাশি দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নয়নের বিষয় উল্লেখ থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
প্রফেসর ইয়ং এর মতে, ‘এর মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে নাম লেখাতে যাচ্ছেন কিম ইয়-জং। ভাইয়ের পর উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ ক্ষমতাশালী হিসেবে নিজেকে তৈরি করে নিচ্ছেন ৩০ বছর বয়সি এই নারী। ক্ষমতাশীন পলিটব্যুরোতে ভাইয়ের বিকল্প শক্তি হিসেবে গত অক্টোবরে তাকে মনোনীত করা হয়েছে। শুক্রবারের এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পিন্স, যে কারণে দুই পক্ষের মধ্যে বৈঠকের সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.