ঢাকা, বুধবার,২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ফ্যাশন

ফেসিয়ালের সাত-সতেরো

ফাহমিদা জাবীন

০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,সোমবার, ১৭:৪৭ | আপডেট: ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮,শনিবার, ০৮:৪০


প্রিন্ট
ফেসিয়ালের  সাত-সতেরো

ফেসিয়ালের সাত-সতেরো

কোনো বিশেষ ম্যাসাজ ও পরিচর্যার নাম ফেসিয়াল। ফেসিয়াল করার অভিপ্রায় হলো মুখের ত্বক পরিষ্কার করা। শরীরের বর্জ্য পদার্থ বের করে দেয়া, রক্তসঞ্চালন উজ্জীবিত করা। ত্বকে স্বাভাবিক পানি ও তেলের ভারসাম্য ঠিক রাখা। ত্বককে মরা কোষ থেকে রক্ষা করা ও নতুন কোষ বৃদ্ধি করতে সাহায্য করা এবং সর্বোপরি রিলাক্সেশন দেয়া, যার ফলে ত্বক ফিরে পায় তার প্রকৃত সৌন্দর্য।

বিভিন্ন ধরনের ফেসিয়াল
পার্ল ফেসিয়াল : সানট্যান ও পিগমেন্টেশন প্রতিরোধ করে।

পদ্ধতি : প্রথমে ডিপ ক্লিনজিং করা হয়। তার পর ফেসিয়াল ম্যাসাজের জন্য পার্ল পাউডার দিয়ে তৈরি পার্ল ক্রিম দিয়ে ম্যাসাজ করা হয়। স্কিন সারফেসে অতিরিক্ত মেলানিন ট্রান্সফার করতে পার্ল প্রতিরোধ করে। পার্ল সূর্যের রেডিয়েশন ফিল্টার করতে সাহায্য করে। তাই পার্ল ক্রিম ত্বকের কালার টোনে ব্যালান্স বজায় রাখতে সাহায্য করে। ত্বকের অয়েল ময়েশ্চার ও পিএইচ ব্যালান্স বজায় রাখার জন্য ও হেলদি সেল রিনিউয়ালের ক্ষেত্রে এই মাস্ক উপকারী। দক্ষ ব্যক্তির তত্ত্বাবধানে এই ফেসিয়াল ট্রাই করুন।

গোল্ড ফেসিয়াল : ত্বকের ওপর স্বর্ণের প্রভাব বহু দিনের। স্বর্ণ ত্বকে রক্তসংবহন বাড়াতে সাহায্য করে, বর্জ্য পদার্থ বের করে কোষের বৃদ্ধি ঘটায়। অক্সিজেনের ফলে ত্বকে কোলাজেন ফাইবারের ক্ষতি কমায়। এর বিশেষ ম্যাসাজ বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ রিল্যাক্স করিয়ে নতুন শক্তির সঞ্চার করে।
এ পদ্ধতিতে ত্বক স্বর্ণের গুণ শুষে নেয়ার জন্য প্রস্তুত থাকে। স্বর্ণ দিয়ে তৈরি ক্রিম দিয়ে করা হয় ম্যাসাজ। তার পর স্বর্ণ মেশানো প্যাক আর সবশেষে ঠাণ্ডা স্টিম।

অক্সিজেন ফেসিয়াল : ত্বকের উজ্জ্বল ভাব বজায় রাখে।
পদ্ধতি : অক্সিজেন ফেসিয়ালে ব্যবহার করা হয় অক্সিজেন স্কিন ক্রিম। তাই দিয়ে প্রথমে ম্যাসাজ করা হয়। অক্সিজেন ক্রিমের বোটানিক্যাল এক্সট্র্যাক্টস ত্বকের ওপর অক্সিজেনের আস্তরণ তৈরি করে ত্বকের অক্সিজেন কনটেন্ট বাড়াতে সাহায্য করে। বিশেষ পদ্ধতিতে ম্যাসাজের ফলে অক্সিজেন মলিকিউলস সরাসরি ত্বকের মধ্যে প্রবেশ করে। ত্বক রিভাইটালাইজ করার জন্য অক্সিজেন ফেসিয়াল উপকারী।

গ্যালভানিক ফেসিয়াল : ত্বকের অ্যাবজর্ব করার ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। এতে বোন স্কিন ট্রিটমেন্টের ক্ষেত্রে সুবিধা হয়।
পদ্ধতি : গ্যালভানিক গ্যাজেটের সাহায্যে ত্বকের ওপর গ্যালভানিক কারেন্টের মাধ্যমে ওয়াটার সলিউল সাবস্টেক্স প্রবেশ করানো হয়। ত্বকের বিশেষ কোনো সমস্যা থাকলে সাধারণত এ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়।

ফ্লাওয়ার ফেসিয়াল : ত্বকের রক্তসঞ্চালন ভালো করতে ইলাস্টিসিটি বজায় রাখতে সাহায্য করে। ফ্লাওয়ার ফেসিয়ালে ফুলের নির্যাস থেকে তৈরি ক্রিম দিয়ে ম্যাসাজ করা হয়। গোলাপ, ল্যাভেন্ডার জুঁই এ ধরনের ফুল ডিপ্রেশন। ইনসোমনিয়া, অ্যাংজাইটি কমাতে সাহায্য করে গাদা ও ক্যালেন্ডুলা তৈলাক্ত ও ব্রণপ্রবণ ত্বকের জন্য উপযোগী।

ফ্লাওয়ার ফেসিয়াল আপনার রিল্যাক্সেশনে সাহায্য করবে। স্টেস থেকে ত্বকের ওপর প্রভাব পড়লে ফ্লাওয়ার ফেসিয়াল ট্রাই করতে পারেন। সহজে রিল্যাক্সড হতে পারবেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫