বিএনপি-জামায়াতের অর্ধশতাধিক নেতাকর্মী গ্রেফতার

নয়া দিগন্ত ডেস্ক

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায়কে সামনে রেখে সারা দেশে বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামীর নেতাকর্মীদের গণগ্রেফতার অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে দল দুইটির অর্ধশতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
বগুড়া অফিস ও আদমদীঘি সংবাদদাতা জানান, বগুড়ার শিবগঞ্জ, কাহালু, নন্দীগ্রাম ও আদমদীঘি উপজেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় পুলিশ বিএনপি, স্বেচ্ছাসেবক দল ও শ্রমিক দলের আট নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। রোববার আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছিল। এ নিয়ে গত তিন দিনে পুলিশ ২৯ জনকে গ্রেফতার করেছে।
শিবগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) জাহিদ হোসেন জানান, শনিবার রাতে উপজেলার আটমুল ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জহুরুল ইসলাম ঠাণ্ডু ও বিএনপি কর্মী শাহ আলমকে আটক করা হয়। আদমদীঘি থানার ওসি আবু সায়িদ মো: ওয়াহেদুজ্জামান জানান, শনিবার রাতে উপজেলার সান্দিড়া খেলার মাঠ থেকে উপজেলা শ্রমিক দলের সম্পাদক মিজানুর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম পাভেল ও বিএনপি কর্মী ফেরদৌস আলীকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় ১২ জনের নাম উল্লেখসহ ৪০ জনের নামে মামলা করা হয়েছে। নন্দীগ্রামে আব্দুল মান্নান ও মো: শাজাহান নামে বিএনপির দুই কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে নন্দীগ্রাম থানার এসআই ইনামুল ইসলাম জানান।
গোপালগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা জানান, জেলার কাশিয়ানী উপজেলা বিএনপির তিন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শনিবার রাতে উপজেলার খায়েরহাট গ্রাম থেকে উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি মো: হান্নান সিকদার (৬৫), কোষাধ্য মো: জাফর সিকদার (৪৬) ও সদস্য মোস্তফা সিকদার (৬০) কে গ্রেফতার করা হয়।
কাশিয়ানী থানার ওসি এ কে এম আলী নূর হোসেন বলেন, রোববার ১৫১ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাদের আদালতে পাঠানো হবে।
রূপগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে নাশকতা পরিকল্পনা মামলায় জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান মনির, বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সহকোষাধক্ষ্য মুস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া দিপু, কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র আবুল বাশার বাদশাসহ ৭৭ জনের নাম উল্লেখ করে বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। গতকাল রাতে রূপগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাব্বির হোসেন বাদি হয়ে রূপগঞ্জ থানায় মামলা করেন।
গ্রেফতারকৃত কাঞ্চন পৌর মেয়র ও বিএনপি নেতা দেওয়ান আবুল বাশার বাদশা, ঠাকুরবাড়িরটেক এলাকার মাসুদ মিয়া, পাচাইখাঁ এলাকার ইস্রাফিল মিয়া, ভোলাব এলাকার জহির মিয়া, গুতিয়াবো এলাকার ইকবাল হোসেন, মৈকুলী এলাকার নজরুল ইসলামসহ ১৩ জনকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে।
নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৯ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও বিএনপি নেতা ইস্রাফিল প্রধানকে আটক করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গতকালর রোববার রাত ১০টায় সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুড়ির বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়। ইস্রাফিল সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। জেলা গোয়েন্দার ওসি তদন্ত মাজহারুল ইসলাম আটকের কথা স্বীকার করেছেন।
মনোহরদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা জানান, নরসিংদীর মনোহরদীতে জিয়াউর রহমান (২৫) নামে ছাত্রশিবিরের এক সদস্যকে গ্রেফতার করেছে মনোহরদী থানা পুলিশ। গত শনিবার রাতে তাকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।
জিয়াউর রহমান উপজেলার লেবুতলা ইউনিয়নের ধরাবান্দা গ্রামের হাবিবুল্লার ছেলে এবং ছাত্রশিবিরের নরসিংদী জেলা এইচআরডি সম্পাদক।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, শনিবার রাতে জিয়াউর রহমান নিজ বাড়িতে ঘুমাচ্ছিল। ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে জাগিয়ে উঠিয়ে পুলিশ মনোহরদী থানায় নিয়ে আসে। পর দিন রোববার গ্রেফতার দেখিয়ে নরসিংদী জর্জ কোর্টে চালান করে দেয়।
সোনারগাঁও (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, সোনারগাঁওয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে বাড়িতে ব্যাপক তল্লাশি শুরু হয়েছে। শনিবার রাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এ তল্লাশি চালায়। এ সময় ১০ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের গতকাল দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে পাঠানো হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন সোনারগাঁও পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও পৌর বিএনপি নেতা নাসিম পাশা, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক হারুন অর রশিদ মিঠুর বাবা সোনারগাঁও পৌরসভা বিএনপির সহসভাপতি সালাউদ্দিন আহমেদ, মিঠুর ছোট ভাই সোনারগাঁ থানা ছাত্রদল নেতা ওমর ফারুক টিটু, থানা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক নুর-এ ইয়াসিন নোবেলের বড় ভাই সোহেল মিয়া, জামপুর ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান, পিরোজপুর ইউনিয়ন বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সামসুল হক সরকার, পৌর বিএনপি নেতা আলমগীর হোসেন, ছাত্রদল নেতা মামুন, যুবদল নেতা মহসিন ও আনিসুর রহমান।
সোনারগাঁও থানার ওসি (অপারেশন) আবদুল জব্বার জানান, নাশকতা ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।
মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা জানান, গতকাল উপজেলার বিরামপুর থেকে বিএনপির তিন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। এদের মধ্যে মাধবদী পৌর শহরের ৪নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ তোফাজল হোসেনকে থানায় ডেকে এনে এবং বিএনপির কর্মী মুকুল ও আক্তারকে তাদের বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। থানার ওসি ইলিয়াছ জানান. নাশকতার মাধ্যমে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টির পরিকল্পনার অভিযোগে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।
বুড়িচং (কুমিল্লা) সংবাদদাতা জানান, বুড়িচংয়ে বিএনপি ও ছাত্রদলের তিন নেতাকর্মীকে আটক করেছে থানা পুলিশ। উপজেলা বিএনপি সূত্রে জানা যায়, উপজেলা বিএনপির সহসভাপতি আ: অহেদ সুয়া মেম্বারকে গতকাল দুপুরে নিমসার পেট্রোল পাম্পের কাছ থেকে থানা পুলিশ আটক করেছে। এ ছাড়া ষোলনল ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি সালেহ আহম্মেদকে ভরাসার বাজার থেকে এবং ভারেল্লা উত্তর ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সুমনকে কংশনগর বাজারে তার নিজস্ব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান থেকে পুলিশ আটক করেছে।
বুড়িচং উপজেলা বিএনপি সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান এ টি এম মিজানুর রহমান বলেন, রাজনৈতিক হয়রানি করতেই এদের আটক করা হয়েছে। এ দিকে এই তিনজনকে আটকের তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন ২০ দলীয় জোটের শরিক দল বাংলাদেশ লেবার পার্টির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মো: ফরিদ উদ্দিন।ছাগলনাইয়া-পরশুরাম (ফেনী) সংবাদদাতা জানান, ছাগলনাইয়া পৌরসভার দক্ষিণ মটুয়া থেকে ইকবাল হোসেন (২৮) নামে ছাত্রদলের এক নেতাকে শনিবার রাতে তার বাড়ি থেকে আটক করেছে পুলিশ। নাশকতা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ছাগলনাইয়া থানার ওসি তদন্ত গোলাম জিলানী।
চৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা জানান, চৌগাছায় বিএনপি-জামায়াতের ১৬ নেতাকর্মীর নামে নাশকতা চেষ্টার অভিযোগে নতুন মামলা করা হয়েছে। এ মামলায় পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে। আটকরা হলেন নারায়ণপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও পেটভরা গ্রামের ইয়াকুব আলীর ছেলে অমেদুল ইসলাম সন্তোষ, সাধারণ সম্পাদক একই গ্রামের মতিয়ার রহমানের ছেলে নান্নু মিয়া ও স্বরূপদহ ইউনিয়ন জামায়াত নেতা আবুল কাশেমের ছেলে আতিয়ার রহমান।
আটক জামায়াত নেতার ছেলে মামুন কবির বলেন, আমার বাবার বিরুদ্ধে নাশকতার অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। পুলিশ শুক্রবার রাতে তাকে আমাদের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গেছে এবং আমাদের বাসা থেকে কোনো কিছুই উদ্ধার হয়নি। তিনি রাজনৈতিক মামলার শিকার। তিনি অত্যন্ত অসুস্থ। চৌগাছা এস আই আবু সুফিয়ান বলেন, আটকদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
লক্ষ্মীপুর ও কমলনগর সংবাদদাতা জানান, জেলার কমলনগর উপজেলা জামায়াতের আমির ডা: নূূর উদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রোববার সন্ধ্যা সোয়া ৬টার দিকে উপজেলা সদরের হাজির হাট বাজারের তালপট্টি এলাকার নিজ চেম্বার থেকে ডিবি পুলিশের একটি দল তাকে গ্রেফতার করে কমলনগর থানায় নিয়ে যায়। কমলনগর থানার ওসি আকুল চন্দ্র বিশ্বাস জানান, সোমবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে। এ দিকে জেলা জামায়াতের পক্ষ থেকে ডা: নূর উদ্দিনকে গ্রেফতারের তীব্র নিন্দা জানিয়ে তার মুক্তি দাবি করা হয়েছে।
গৌরনদী (বরিশাল) সংবাদদাতা জানান, গৌরনদী উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক মনির হোসেন হাওলাদারকে (৩৫) শনিবার রাতে থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে। থানা হাজতে বসে মনির হোসেন হাওলাদার জানান, তিনি চিকিৎসার জন্য গত ৩০ জানুয়ারি পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় যান। শনিবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে কলকাতা থেকে নিজ বাড়ি উপজেলার দক্ষিণ রামসিদ্ধিতে পৌঁছেন। বাড়িতে পৌঁছানোর সাথে সাথে থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি মো: আফজাল হোসেন জানান, মনির হাওলাদারকে রোববার দুপুরে বরিশাল জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্র্রেট আদালতে হাজির করলে আদালত তাকে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে প্রেরণ করেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা জানান, আশুগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের বাসা থেকে বিএনপির চার নেতাকর্মীকে আটক করে একটি হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ।
শনিবার রাতে উপজেলার স্টেশন রোড এলাকার উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু আসিফ আহমদের বাসভবন থেকে তাদের আটক করা হয়। আটকেরা হলেন, উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, আবদু মিয়া, সদর ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির ও বিএনপি কর্মী সালাম মিয়া।
আশুগঞ্জ থানার ওসি মো: বদরুল আলম তালুকদার জানান, থানায় পেন্ডিং একটি হত্যা মামলায় তাদের গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।
উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু আসিফ আহমেদ বলেন, শনিবার রাতে ব্যক্তিগত প্রয়োজনে দেখা করতে তার বাসায় এলে পুলিশ কোনো কারণ ছাড়াই নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করেছে। তিনি বলেন, তাদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দূরের কথা, কোনো অভিযোগই নেই।
কাহালু সংবাদদাতা জানান, রোববার বিকেলে কাহালু উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক আব্দুল মান্নানকে আটক করেছে। তবে তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেই।
নড়াইল সংবাদদাতা জানান, নাশকতার আশঙ্কায় জেলা বিএনপির সিনিয়র সহসভাপতি ও নড়াইল পৌরসভার সাবেক মেয়র জুলফিকার আলীকে আটক করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে শহরের আদালতপুরের বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়।
সদর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, নাশকতার আশঙ্কায় জুলফিকার আলীকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এর আগেও একাধিক মামলায় তিনি কারাগারে ছিলেন।
জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) সংবাদদাতা জানান, জীবননগর পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি সামসুজ্জামান ডাবলুকে (৪৮) পুলিশ গতকাল দুপুরের দিকে শহরের হাসপাতাল এলাকা থেকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
জীবননগর থানার এসআই সিরাজুল আলম বলেন, সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ডাবলুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।
শিবালয় (মানিকগঞ্জ) সংবাদদাতা জানান, শিবালয় উপজেলা বিএনপি সভাপতি রহমত আলী লাবলুকে গতকাল আটক করেছে পুলিশ। এ ছাড়া উপজেলা জামায়াত নেতা আবদুল মান্নান ও যুবদল নেতা আবদুল খালেককে আটক করে কোর্টে চালান দিয়েছে।
থানার এসআই মানোবেন্দ্র বালো জানান, নাশকতার আশঙ্কায় এদের আটক করা হয়েছে। এদের সম্পর্কে বিস্তারিত খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে।
কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা জানান, বিএনপি-জামায়াতের ৭০ নেতাকর্মীকে আসামি করে কালীগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশের ওপর ককটেল হামলা এবং সরকারি কর্তব্য কাজে বাধাদান ও আঘাত করার অভিযোগে থানার এসআই শেখ সুজাত আলী বাদি হয়ে শুক্রবার রাতে এ মামলা দায়ের করেন। তবে পুলিশ কোনো আসামিকে আটক করতে পারেনি। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই অমিত দাস জানান, আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
নারায়ণগঞ্জ সংবাদদাতা জানান, নারায়ণগঞ্জে বিএনপির নেতাকর্মীদের বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে। অভিযানকালে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক মাসুকুল ইসলাম রাজীবকে গতকাল বিকেল ৫টায় শহরের মিশনপাড়ার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।
নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার এসআই শফিকুল ইসলাম জানান, নাশকতার আশঙ্কায় রাজীবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ রয়েছে।
নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সেক্রেটারি এ টি এম কামাল জানান, শনিবার রাতে তার (এ টি এম কামাল), মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক শাহেদ আহমেদ, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া দিপুসহ অনেক নেতার বাড়িত সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে পরিবারের লোকদের হয়রানি করছে।
দেবিদ্বার (কুমিল্লা) সংবাদদাতা জানান, থানা পুলিশ পুলিশ বিশেষ অভিযান চালিয়ে তিন বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।
জানা যায়, শনিবার রাতে থানা পুলিশ উপজেলার রাজামেহার ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রউফ মাঝি, এলাহাবাদ ইউনিয়নের আহ্বায়ক কৌশিক আহমেদ হুমায়ন এবং গুনাইঘর দক্ষিণ ইউনিয়নের ইউপি সদস্য মো: মমিনুল হক মুন্নাকে আটক করে গতকাল দুপুরে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।
দেবিদ্বার থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, তিন বিএনপি নেতাকে রোববার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কোর্ট হাজতে পাঠানো হয়েছে।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.