‘বেলজিয়ামে জিয়া পরিবারের কোনো সম্পদ নেই’

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে বেলজিয়ামসহ বিভিন্ন দেশে টাকা পাচার প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে বক্তব্য দিয়েছেন তার প্রতিবাদ জানিয়েছে বেলজিয়াম শাখা বিএনপি।

গতকাল বৃহস্পতিবার দেশটির রাজধানী ব্রাসেলসের একটি হলরুমে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ প্রতিবাদ জানান বেলজিয়াম বিএনপির সভাপতি আহমদ সাজা ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন বাবু।

লিখিত বক্তব্যে ইকবাল হোসেন বাবু বলেন, গত ১০ই জানুয়ারি জাতীয় সংসদে এক বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এবং মরহুম আরাফাত রহমান কোকোর বেলজিয়াম, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া ও দুবাইয়ে বিপুল পরিমাণ অর্থ পাচারের যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট। যে সম্পদের কথা তিনি উল্লেখ করেছেন বাস্তবে সেই সম্পদের কোনো অস্তিত্বই নেই। বেলজিয়াম বিএনপির পক্ষ থেকে আমরা এহেন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সাথে বহির্বিশ্বের সব দেশের সুসম্পর্ক ছিল। একইভাবে বেলজিয়াম সরকারের সাথে জিয়া পরিবারের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আজো অটুট রয়েছে। তারেক রহমানের হাতধরে সেই সম্পর্ক উত্তরোত্তর ঘনিষ্ঠ হয়েছে। আগামী নির্বাচনে নিশ্চিত ভরাডুবি জেনে ও জিয়া পরিবারের জনপ্রিয়তায় ভয় পেয়েই সরকার এই সব অসত্য ও বানোয়াট তথ্য পরিবেশন করছে।

তিনি অভিযোগ করেন, বেলজিয়ামে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নেতাদের সাথে ও ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টের প্রতিটি গ্রুপের সংসদ সদস্যদের সাথে তারেক রহমানের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। তারেক রহমানের কূটনৈতিক সাফল্য দেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঈর্ষান্বিত হয়ে পড়েছে। তাই বেলজিয়ামে তারেক রহমানের নামে প্রচুর অর্থ রয়েছে বলে জাতীয় সংসদে অসত্য মিথ্যা বানোয়াট বক্তব্য দিয়েছেন। অবিলম্বে এই মানহানিকর বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে বেলজিয়াম বিএনপির সহসভাপতি আলী জাহাঙ্গীর, সৈয়দ মাহমুদ আক্কাস, আবুল হাসনাত শামছুল, রাকিব হাসান প্রধান, গোলাম নবী শ্যামল, আবু বক্কর, কবির আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আলী নূর শামীম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ, যুগ্ম সম্পাদক আশিক আহমদ বাপ্পী, যুবদলের আহবায়ক কাজী রহিমুল বাবু, যুগ্ম আহ্বায়ক মনির মোড়ল মাসুদ, মোহাম্মদ মোস্তাফা বাবু, সাখাওয়াত হোসেন রাফি শরিফ সাদিক, সাইফ উদ্দিন ইরানী প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.