পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচণ্ড ড্রোন হামলা
পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচণ্ড ড্রোন হামলা

পাকিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচণ্ড ড্রোন হামলা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

পাকিস্তানকে আর্থিকভাবে সাসপেন্ড করার পর এবার পাকিস্তানের কথিত সন্ত্রাসী আস্তানায় ড্রোন হামলা চালিয়েছে আমেরিকা। সেই হামলায় হাক্কানি নেটওয়ার্কের দুই সদস্যের মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। বুধবার পাকিস্তান প্রশাসনের পক্ষ থেকে একথা জানানো হয়েছে।

এক পুলিশ অফিসার জানিয়েছেন, পাকিস্তানের আদিবাসী অধ্যুষিত অঞ্চলের দাপা মামোজাই নামে একটি গ্রামে ড্রোন হামলা চালায় আমেরিকা। দুই মিসাইলের আঘাতে আহসান খোরাই, নাসির মেহমুদ নামে দুই হাক্কানি নেটওয়ার্কের সদস্য নিহত হয়েছে।

গত বছর ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর একাধিকবার আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী এই অঞ্চলে ড্রোন হামলা চালিয়েছে আমেরিকা। চলতি মাসের শুরুতেই এক ড্রোন হামলায় এক ব্যক্তি আহত হয়, এছাড়া গত বছরের ২৬ ডিসেম্বর আরও এক হামলায় হাক্কানি জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে। পাকিস্তানে হাক্কানি নেটওয়ার্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বারবারই চাপ দিয়েছেন ট্রাম্প। সম্প্রতি পাকিস্তানের জন্য বরাদ্দ ফান্ডেও কাটছাঁট হয়।

চলতি বছরের শুরুতেই পাকিস্তানকে সরাসরি ‘মিথ্যেবাদী’ বলে আক্রমণ করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ আফগানিস্তানে সন্ত্রাস এড়াতে সন্ত্রাসীদের শেষ করার জন্য অভিযান চালাচ্ছে মার্কিন সেনা৷ কিন্তু পাকিস্তান এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। পাকিস্তান বরং অভিযোগ করছে, ভারতের মদতপুষ্ট হয়ে সন্ত্রাসীরা পাকিস্তানের অভ্যন্তরে হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। পাকিস্তান বলছে, তাদের দেশে সন্ত্রাসীদের কোনো ঘাঁটি নেই।

এদিকে মুখ খুললেন পাকিস্তান সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাজওয়া৷ তিনি বলেন, পাকিস্তানে আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে আমেরিকা৷ কিন্তু সেই বিষয়টি নিয়ে কোনো পুনর্বিবেচনা চায় না পাকিস্তান৷

লিবিয়ার বেনগাজিতে জোড়া গাড়ি বোমা হামলায় ২২ জন নিহত
লিবিয়ার বেনগাজি নগরীতে মঙ্গলবার রাতে জোড়া গাড়ি বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে কমপক্ষে ২২ জনে দাঁড়িয়েছে। এতে আরো ২০ জন আহত হয়েছে।

নগরীর আল-জালা হাসপাতালের মুখপাত্র এএফপি’কে বলেন, নিহততের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।
নিরাপত্তা সূত্র জানায়, আল-স্লিমানির কেন্দ্রস্থলের একটি মসজিদের সামনে বিস্ফোরক ভর্তি একটি গাড়ির বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

প্রথম দফা বিস্ফোরণের মাত্র ৩০ মিনিট পর একই এলাকায় দ্বিতীয় গাড়ি বোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এতে অনেক লোক হতাহত হয়। এদের মধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও বেসামরিক নাগরিক রয়েছে।
মসজিদটি সালাফি অনুসারিদের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.