কুয়েতে অবৈধ শ্রমিক
কুয়েতে অবৈধ শ্রমিক

অবৈধদের কুয়েত ত্যাগে ২৫ দিনের সাধারণ ক্ষমা

মনির হোসেন

মধ্যেপ্রাচ্যের তেলসমৃদ্ধ দেশ কুয়েত সরকার তার দেশে থাকা অবৈধ বাংলাদেশীসহ সকল দেশের শ্রমিকদের দেশত্যাগে সাধারণ ক্ষমা ঘোষনা করেছে। আগামী ২৯ জানুয়ারি থেকে ২২ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত এই সাধারণ ক্ষমার সময় নির্ধারণ করা হয়েছে। যারা এসময়ের মধ্যে দেশত্যাগ করবে না, তাদের জেল জরিমানা দেয়া হবে বলে আরব টাইমস তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে।
আজ বাংলাদেশ সময় দুপুরে কুয়েত থেকে সাংবাদিক জালাল উদ্দিন নয়া দিগন্তকে টেলিফোনে জানান, কুয়েত সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় থেকে এদেশে অবৈধভাবে থাকা বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলংকাসহ বিভিন্ন দেশের শ্রমিকদের জন্য ২৫ দিনের সাধারণ ক্ষমা ঘোষনা করা হয়েছে। যা আরব টাইমস পত্রিকায়ও প্রকাশিত হয়েছে। তার ধারণা বর্তমানে ১০-১৫ হাজারের মতো অবৈধ বাংলাদেশী পুলিশের চোঁখ ফাকি দিয়ে বিভিন্ন স্থানে কাজ করছেন।
কুয়েত সরকারের ঘোষনা অনুযায়ী যারা সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নিবে, তারা পুনরায় এদেশে বৈধভাবে আসার সুযোগ পাবে। আর যারা এ সুযোগ নেবে না তাদের মধ্যে কেউ গ্রেফতার হলে, জেল জরিমানা ছাড়াও প্রত্যেকের ফিঙ্গারপ্রিন্ট রেখে দেয়া হবে। ফলে পরবর্তীতে তারা শুধু কুয়েত নয়, মধ্যেপ্রাচ্যের কোন দেশেই আর প্রবেশ করতে পারবে না বলে সাধারণ ক্ষমার চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যেসব বাংলাদেশী সাধারণ ক্ষমার সুযোগ নিতে চাইবেন তাদের কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দুতাবাস থেকে আউট পাশ নিতে হবে। তিনি বলেন, এর আগেও কুয়েত সরকার সাধারণ ক্ষমা ঘোষনা করেছিল। তখন এই সুযোগ অনেকে নিয়েছিলো। আবার অনেকেই নেয়নি। তবে এবার এই সংখ্যা বাড়বে বলে তিনি মনে করছেন। বর্তমানে দেশটিতে বৈধভাবে প্রায় ৩ লাখ বাংলাদেশী কর্মী আছেন বলে জানান সাংবাদিক জালাল উদ্দিন।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.