জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠায় নিরপেক্ষ নির্বাচন দরকার : নজরুল ইসলাম খান

নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্বাচিত সরকার ক্ষমতায় না থাকলে কোনো সমস্যারই সমাধান হবে না জানিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, জনগণের প্রকৃত সরকারই পারে দেশের সমস্যার সমাধান করতে। আর জনগণের সরকার কায়েম করতে প্রয়োজন নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন। সেজন্যই আমরা প্রহসনের নির্বাচন নয়, সব দলের অংশগ্রহণে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন চাই। যারা নির্বাচিত হয়ে জনদাবি বাস্তবায়ন করবেন। এছাড়া অবিলম্বে ভাটি অঞ্চলের জলাবদ্ধতা দূর করা না হলে বোরো ফসল উৎপাদন মারাত্মকভাবে হ্রাস পাবে এবং তীব্র খাদ্য সঙ্কট দেখা দিবে বলে মন্তব্য করেন নজরুল ইসলাম খান।

তিনি এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে বলেন, গত বছর উজানের পানির ঢলে ভাটি এলাকায় ব্যাপক ফসল ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। কৃষকরা এই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পারে নাই। এবার জলাবদ্ধতার কারণে ধানের চারা রোপণ করা যাচ্ছে না। তিনি ভাটি এলাকায় জলাবদ্ধতার জন্য বর্তমান সরকারের ভ্রান্তনীতি এবং উন্নয়নের নামে অপরিকল্পিতভাবে রাস্তা নির্মাণের কথা উল্লেখ করে বলেন, সারাদেশের মত সেখানেও উন্নয়ন না, লুটপাটের জন্য বড় বড় প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে, যা জনগণের কল্যাণে নয়। ক্ষমতাসীনদের পকেট ভারী করার জন্য করা হয়েছে।

আজ সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনের সড়কে ভাটি অঞ্চলের জলাবদ্ধতা দূর করে কৃষক রক্ষার দাবিতে ভাটি বাংলা জাতীয়তাবাদী ফোরাম আয়োজিত এক মানববন্ধনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন নজরুল ইসলাম খান।

বিএনপির সিলেট বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: সাখাওয়াত হাসান জীবনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরো বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফজলুর রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা এমরান সালেহ প্রিন্স, কলিম উদ্দিন মিলন, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম নূরুল, শ্রমিক দল নেতা হুমায়ুন কবির, ওয়াকিফুর রহমান গিলমান, বানিয়াচং উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ বশির আহমদ, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোঃ আব্দুল হক, মো: মুনাজ্জির হোসেন সুজন, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুজ্জামান আরিফ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক জাকির হোসেন প্রমুখ।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, বর্তমান সরকারের লুটপাটের জন্য ক্ষমতাসীনরা কালো টাকার মালিক হচ্ছে, কিন্তু হাওড়ের কৃষক কিংবা প্রাইমারী স্কুলের শিক্ষকদের ভাগ্যের কোনো পরিবর্তন হচ্ছে না।

শিক্ষকদের আন্দোলন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী এক সময় বলেছেন, শিক্ষকদের দাবি দাওয়া করতে হবে না। তিনি নিজেই শিক্ষকদের অবস্থা বিবেচনা করে সমস্যার সমাধান করবেন। কিন্তু আজ বাস্তবতা হচ্ছে দাবি আদায়ের জন্য শিক্ষকদেরকে স্কুল কলেজ ছেড়ে রাস্তায় অনশন করতে হচ্ছে। আসলে নির্বাচিত সরকার না থাকলে কৃষক, শ্রমিক, ছাত্র, শিক্ষক-কারই সমস্যার সমাধান হবে না।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.