ঢাকা, বুধবার,২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ক্রীড়া দিগন্ত

নিজেদের প্ল্যান বাস্তবায়নের লক্ষ্য মাশরাফির

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৯ জানুয়ারি ২০১৮,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট
ওয়ালশের কাছে টিপস নিচ্ছেন বাংলাদেশের বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান :নয়া দিগন্ত

ওয়ালশের কাছে টিপস নিচ্ছেন বাংলাদেশের বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান :নয়া দিগন্ত

হেড কোচের গেম প্ল্যানে বাস্তবায়নের তাগিদ থাকে। খেলোয়াড়রা ওটা সামনে রেখে আরো ভালো কিছু করার টার্গেটে খেলেন। বাংলাদেশ এখন হাতুরাসিংহে মুক্ত। এখন তিনি শ্রীলঙ্কার কোচ। কিন্তু মাশরাফিদের আজকের গেম প্ল্যানেও কী হাতুরাসিংহের ছোঁয়া থাকছে? মাশরাফি কিয়ার করে দিলেন বিষয়টা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাবেক কোচদের বিপক্ষে খেলার বহু রেকর্ড। এক দেশের কোচ পরবর্তীতে অন্য দলের কোচ হয়ে যান। ফলে এটা নরমাল বিষয়। আমরা এগুলো নিয়ে মোটেও ভাবছি না। হাতুরাসিংহে চলে যাওয়ার সাথে সাথে উনার সব প্ল্যান আমরা ভুলে গিয়েছি। এখন আমরা খেলব আমাদের প্ল্যানে। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আমরা কিভাবে জয় পাবো, সেগুলো নিয়েই ভাবছি। সে প্ল্যানগুলোই করছি। এর মধ্যে সাবেক কোচ কিভাবে কী বলতেন, এমন মুহূর্তে তিনি কিভাবে প্ল্যান দিতেন এগুলো নিয়ে ভাবলে বাড়তি একটা প্রেসার চলে আসে। ফলে ওইগুলো নিয়ে ভাবার সময় নেই। আমরা খেলব আমাদের মতো করেই।’
শ্রীলঙ্কার মোকাবেলা করবে আজ বাংলাদেশ। গত ম্যাচে জিম্বাবুয়ের কাছে হেরে গেছে তারা। এটা অনেকটা বিস্ময় জাগানোর মতোই ঘটনা। প্রথম ব্যাটিং করে জিম্বাবুয়ে সংগ্রহ করেছিল ২৯০ রান। বোলিংয়ে দুর্দান্ত করেছে। এবং জিম্বাবুয়ে জিতে গেছে। মাশরাফি এ ম্যাচে লঙ্কার বিপক্ষে খুবই সতর্কতার সাথে পা ফেলতে চান। তিনি বলেন, ‘জিম্বাবুয়ে এমন ম্যাচ খেলবে এটা ছিল কল্পনাতীত। অথচ দুর্দান্ত খেলেছে তারা। শ্রীলঙ্কাকে যখন হারিয়ে দিয়েছে, তার মানে তারা ভালো খেলে জিতেছে। আমাদেরও ব্যাটিং বোলিংয়ে অমন খেলতে হবে।’ জিম্বাবুয়ের উদাহরণ টেনে তিনি বলেন, ‘জিম্বাবুয়েকে নিয়ে যা কেউ প্রত্যাশা করেনি তারা সেটা করেছে। এ ম্যাচে শ্রীলঙ্কাও যে অমন ম্যাচ খেলবে না তার কোনো গ্যারান্টি নেই। ফলে আমাদের প্রতিটা বিষয়েই সতর্ক থেকে খেলতে হবে।’ মিরপুর শেরেবাংলার উইকেট এখন ব্যাটিংসহায়ক। প্রচুর রান উঠছে। মাশরাফি বলেন, ‘আমরা যদি এ ম্যাচে প্রথম ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাই তাহলে ৩০০ রান করার টার্গেট থাকবে। আমরা জিম্বাবুয়ের সাথে যে ব্যাটিংটা করেছি, সেটা কিন্তু অমনই ছিল। (জিম্বাবুয়ের ১৭০ রানের জবাবে ২৯তম ওভারে ম্যাচ শেষ)। আর যদি প্রথম বোলিং করি তাহলে প্রতিপক্ষকে ২৭০-২৮০ রানের মধ্যে আটকে দিতে হবে। বোলিং আমরা যে টার্গেট করেছি ওটা করারও ক্ষমতা আমাদের আছে।’
তবে নিজের দল নিয়েও অনেক আত্মবিশ্বাসী মাশরাফি। কারণ, প্রথম ম্যাচটাতে খুবই ভালো খেলেছেন সবাই। ব্যাটিং, বোলিং প্রতিটা ডিপার্টমেন্টেই চমৎকার খেলেছে সবাই। মাশরাফি বলেন, ‘ওপেনিংয়ে বিজয় এসেছে বেশ কিছু দিন পর। সে যে কয়েকটা শটস খেলেছে তার তার ফর্ম ও আত্মবিশ্বাসের প্রমাণ মেলে। আমি চাই ও আস্থার সাথে খেলুক। বড় ইনিংস খেলুক।’ তেমনিভাবে মুস্তাফিজেরও ভরসা তার। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘ওই ম্যাচে ও খুবই ভালো বোলিং করেছে। ওর যে উন্নতি হয়েছে। ও যে পরিশ্রম করছে সেটা ওর বোলিং থেকে বোঝা গেছে। বেশ কিছু কাটার করেছে।’ সব মিলিয়ে মুস্তাফিজের ওপরও অগাধ আস্থা এ অভিজ্ঞ ক্রিকেটারের।
এটাও ঠিক, শ্রীলঙ্কা এ ম্যাচে জয়ে ফেরার আপ্রাণ চেষ্টা চালাবে। বাংলাদেশও চায় এ ম্যাচে তারা জয়ে থাকুক। মাশরাফি মুখে না বললেও একটা অলিখিত চ্যালেঞ্জের মুখে যেন তারা। এমনিতেই দেশের মাটিতে বেশ কিছু দিন পর তারা আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলছে। প্রথম ম্যাচে ভালো খেলে যে আত্মবিশ্বাসটা বেড়েছে, মাশরাফিরা চাচ্ছেন এ ম্যাচেও ওই পারফরমেন্স ধরে রাখবেন। শুধু তিন জাতি টুর্নামেন্টই নয়। বাংলাদেশের তো এ বছর অনেক খেলা। সে ধারাবাহিকতা যেন এ সিরিজ থেকেই থাকে আসল প্ল্যান মাশরাফিদের সেটাই।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫