ঢাকা, বুধবার,২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

আরো খবর

উত্তরা আধুনিক মেডিক্যালের ৫৭ শিক্ষার্থীর ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

নিজস্ব প্রতিবেদক

১৮ জানুয়ারি ২০১৮,বৃহস্পতিবার, ০০:৪১


প্রিন্ট
রাজধানীর উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের ২০১৭-১৮ শিাবর্ষে সাধারণ কোটায় ভর্তিকৃত ৫৭ শিার্থীর অ্যাকাডেমিক কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। আদেশে আপিল বিভাগ ওই শিার্থীদের শিাকার্যক্রম চালানোর পাশাপাশি মেধা তালিকায় থাকা বঞ্চিত শিার্থীকে সাত দিনের মধ্যে ভর্তি করানোরও নির্দেশ দিয়েছেন।
দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো: আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতির আপিল বিভাগ বেঞ্চ গতকাল এ আদেশ দেন।
আদালতে মেডিক্যাল কলেজের পে শুনানি করেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস ও ব্যারিস্টার মেহেদী হাসান চৌধুরী। রিটের পে ছিলেন অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী রোজিনা মাহমুদ।
আদেশের পরে মেহেদী হাসান চৌধুরী সাংবাদিকদের বলেন, আদালত হাইকোর্টের রুলসহ আবেদনটি নিষ্পত্তি করে আদেশ দিয়েছেন। ফলে ৫৭ শিার্থীর শিা কার্যক্রম চলবে। একই সাথে বঞ্চিত শিার্থীকে সাত দিনের মধ্যে ভর্তি করাতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক এবং কলেজ কর্তৃপকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 
ভর্তিচ্ছু এক শিার্থীর অভিভাবকের করা ওই রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে গত ৯ জানুয়ারি ৫৭ শিার্থীর কার্যক্রমে বিরতি দিয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট। এর বিরুদ্ধে আপিলে আবেদন করে মেডিক্যাল কর্তৃপ। ‘আগে এলে আগে ভর্তির সুযোগ’ পদ্ধতিতে ওই শিার্থীদের ভর্তি করা হয়।
প্রসঙ্গত, গত ১৭ ডিসেম্বর ‘উত্তরা মেডিক্যালে ভর্তিতে মেধাতালিকাকে উপো’ শিরোনামে একটি প্রতিবেদন সংবাদপত্রে প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটি যুক্ত করে চলতি শিাবর্ষে এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি থেকে বঞ্চিত হওয়া তারিকুলের বাবা নজরুল ইসলাম গত ২ জানুয়ারি আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের ভর্তি পদ্ধতি চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদনটি দায়ের করেন। রিটের প্রাথমিক শুনানি শেষে গত ৯ জানুয়ারি উত্তরা আধুনিক মেডিক্যাল কলেজের ২০১৭-১৮ শিাবর্ষে সাধারণ কোটায় ভর্তিকৃত ৫৭ শিার্থীর অ্যাকাডেমিক কার্যক্রমে ৩০ দিনের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলেন হাইকোর্ট।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫