দেড় শ'তেই খেল খতম!‌ শোচনীয়ভাবে হারল ভারত
দেড় শ'তেই খেল খতম!‌ শোচনীয়ভাবে হারল ভারত

দেড় শ'তেই খেল খতম!‌ শোচনীয়ভাবে হারল ভারত

নয়া দিগন্ত অনলাইন

টেস্টের এক নম্বর দল। টানা ৯ টেস্ট সিরিজ জিতে রিকি পন্টিংয়ের অস্ট্রেলিয়ার রেকর্ড ছোঁয়া। আর একটা সিরিজ জিততে পারলেই এককভাবে শীর্ষে থাকতেন ভারতীয় দল। কিন্তু সামনে যে ছিলেন এবিডিরা। যে দেশ থেকে ২৫ বছরে সিরিজ জিতে ফিরতে পারেনি ভারত। শোচনীয় পরাজয়ের ফলে অধরা মাধুরী ছোঁয়া হলো না এবারও। এমনকি এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজে তাদের পরাজয় নিশ্চিত হয়ে গেল।

সেঞ্চুরিয়ানে সিরিজ খোয়াতে হলো ভারতকে। এক ম্যাচ বাকি থাকতেই টেস্টের এক নম্বর দলের দর্পচূর্ণ। হারের ব্যবধান ১৩৫ রানের। ভারতের দ্বিতীয় ইনিংস থামল ১৫১ রানে।

এই টেস্টের দেয়াল লিখন চতুর্থদিনই লেখা হয়ে গিয়েছিল। এনগিডির বলে বিরাট আউট হওয়ার পরই। বাকি কাজটা পঞ্চমদিন লাঞ্চের মধ্যেই সেরে ফেললেন প্রোটিয়া পেসাররা। পঞ্চমদিন খেলার শুরুতেই বোকার মতো রান আউট হলেন পূজারা। প্রথম ইনিংসের মতো। রান করলেন ১৯। বিরল নজির এটা।

এরপর ফেরেন পার্থিব প্যাটেল। তাঁর অবদানও ১৯। সর্বোচ্চ ৪৭ এল রোহিত শর্মার ব্যাট থেকে। মহম্মদ সামি করলেন ২৮। লুঙ্গি এনগিডির দখলে ৫ উইকেট। ম্যাচে ৬। স্টেন চোট না পেলে যার খেলাই হত না। কাগিসো রাবাদার দখলে ৩ উইকেট।

প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৩৫ রানের জবাবে ভারত শেষ হয়েছিল ৩০৭ রানে। একা লড়েছিলেন বিরাট। এরপর প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ২৫৮ রানে। ভারতের সামনে জয়ের লক্ষ্য ছিল ২৮৭ রানের। কেপটাউনে ২০৮ রান তাড়া করে ১৩৫ রানে শেষ হয়ে গিয়েছিল টিম ইন্ডিয়া। সেঞ্চুরিয়ানেও যে কাজটা কঠিন তা জানাই ছিল। কিন্তু এভাবে আত্মসমর্পণ!‌ ব্যাটিং শক্তি নিয়ে এত অহঙ্কার!‌ বিরাট ছাড়া রান পেলেন ক’‌জন?‌ এরপরেও রাহানেকে বসিয়ে রাখার জেদ ধরে রাখবে ভারত!‌ সফল হলেও ভুবিকে বাদ যেতে হবে!‌ ঘরের মাঠে দুর্বল শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে হইচই। মুখে বড় কথা। বিদেশে যেতেই বিড়াল। বিরাট–শাস্ত্রী জমানাতেও যা বদলাল না। ‌‌

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.