ঢাকা, শুক্রবার,২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

ক্রিকেট

লঙ্কান ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নামালো আফগান পেসার

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৭ জানুয়ারি ২০১৮,বুধবার, ১০:৫৫ | আপডেট: ১৭ জানুয়ারি ২০১৮,বুধবার, ১২:২৪


প্রিন্ট
নবিন-উল-হক

নবিন-উল-হক

অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের গ্রুপ-পর্বের ম্যাচে আজ শ্রীলঙ্কার মুখোমুখি হয়েছে আফগানিস্তান। ব্যাট হাতে ঝড় তোলার পর এবার বল হাতে তাণ্ডব চালাচ্ছে তারা। আফগান পেসার নবিন-উল-হক একাই শিকার করেছেন তিনটি উইকেট। টপ-অর্ডারের তিনজনকে ফিরিয়ে লঙ্কান ব্যাটিং লাইন-আপে ধস নামিয়েছেন ২৩ বছর বয়সী এই তরুণ।

শুরুতে তার শিকার হন উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান নিপুন পেরারা। মাত্র ৪ রানে সাজঘরে ফিরেন এই লঙ্কান ব্যাটসম্যান।

তার দ্বিতীয় শিকার জিহান দানিয়েল। অর্ধশত থেকে মাত্র দুই রান দুরে থাকতেই তাকে সাজঘরে ফেরান নবিন। তার সর্বশেষ শিকার নুয়ানিদু ফারনান্দো। ৬ রান করেই বিদায় হন তিনি।

শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ৫ উইকেট হারিয়ে ১৫৩ রান। জয়ের জন্য প্রয়োজন ৮২ রান।

এর আগে বাংলাদেশ সময় ভোর রাতে টস জিতে আফগানিস্তানকে ব্যাট করতে পাঠায় শ্রীলঙ্কা। দুর্দান্ত ব্যাটিং করে আফগানরা। তিন অর্ধশতে তাদের সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৮৪ রান। ৮৬ রানের চোখ ধাঁধানো ইনিংস খেলেন ইব্রাহিম জাদরান। অর্ধশত করেন ইকরাম আলি খিল ও দারুস রসুলি।

 

রশিদ খানকে নিয়ে আইপিএলে কাড়াকাড়ি

ইন্ডিয়ান ক্রিকেট লিগ তথা আইপিএল-এর বাজারে তিনি হতে চলেছেন বড় চমক। তার পিছনে ফ্র্যাঞ্চাইজিরা মোটা টাকাই খরচ করবেন। তিনি আফগানিস্তানের লেগ স্পিনার রশিদ খান। জাতীয় দলের বিশ্বস্ত সৈনিক। বয়স মাত্র ১৯। বিশ্ব টি২০তে তার দারুণ চাহিদা। সে বিগ ব্যাশ লিগ হোক বা ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ। গত বছর আইপিএল-এ ৬ লাখ ডলার দাম উঠেছিল রশিদের।

ইতোমধ্যে বিশ্বের সেরা টি২০ লিগে নিজেকে প্রমাণ করেছেন রশিদ। সপ্তম বিগ ব্যাশ লিগে অ্যাডিলেড স্ট্রাইকার্সের হয়ে খেলেছেন তিনি। ছ’টি বিবিএল ম্যাচে রশিদ মোট ১১টি উইকেট নিয়েছেন। কিন্তু এর থেকেও বড় বিষয় হলো কোনো ওভারে তিনি ছ’রানের বেশি দেননি। এই মাসের শেষেই আইপিএল-এর নিলাম। তার আগে রশিদের এই পারফরম্যান্স ফ্র্যাঞ্চাইজিদের মাথায় থাকবে। গত বছর খেলেছিলেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে।

অস্ট্রেলিয়ায় ইতিমধ্যেই বেশ জনপ্রিয় রশিদ। সদ্য টেস্ট খেলার স্বীকৃতি পেয়েছে দল।

আফগানিস্তানের জাতীয় দলে যে বিশ্বমানের ট্যালেন্ট রয়েছে তাও বার বার প্রমাণ করেছেন রশিদরা। যুদ্ধ বিদ্ধস্ত একটা দেশ থেকে এ ভাবে উঠে আসাটা সহজ ছিল না। কিন্তু রশিদরা পেরেছেন। আর সেই অশান্তির জীবনকে ছাপিয়ে দেশকে ক্রিকেট খেলেই সম্মান এনে দিতে চান একঝাঁক তরুণ-তাজা নাম।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫