ঢাকা, বুধবার,২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

আরো খবর

পিডিবিএফের সোলার কর্মীদের ভারপ্রাপ্ত এমডির অপসারণ দাবি

১৭ জানুয়ারি ২০১৮,বুধবার, ০০:৪৬


প্রিন্ট
পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের সংবাদ সম্মেলন : নয়া দিগন্ত

পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের সংবাদ সম্মেলন : নয়া দিগন্ত

পল্লী দারিদ্র্য বিমোচন ফাউন্ডেশনের ( পিডিবিএফ) ভারপ্রাপ্ত এমডি মদন মোহন সাহার দুর্নীতি ও অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ এনে তার অপসারণের দাবিতে গত রোববার জাতীয় প্রেস কাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে সংবাদ সম্মেলন করেছেন সৌরশক্তি প্রকল্পের কর্মচারীরা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুমন হোসেন। লিখিত বক্তব্যে সংস্থার ভারপ্রাপ্ত এমডির অপসারণ দাবি করা হয়।
লিখিত বক্তব্যে সুমন হোসেন বলেন, পিডিবিএফের ভারপ্রাপ্ত এমডি মদন মোহন সাহা একাধিক পদ দখল করে দুর্নীতি আর স্বেচ্ছাচারিতার পাহাড় গড়েছেন। তার নির্যাতনে তিন শতাধিক সোলার কর্মী দিশেহারা। দীর্ঘদিন তারা কোনো বেতনভাতা না পাওয়ায় পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। এমনকি সন্তানদের লেখাপড়া বন্ধের উপক্রম হয়ে পড়েছে।
চাকরিচ্যুতদের পে হাইকোর্ট রায় দিলেও তাদের কর্মস্থলে যোগ দেয়ার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। কর্তৃপ আন্দোলনকারীদের শোকজ ছাড়াও নানা ধরনের হুমকি দিয়ে আসছে। ফলে সবার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। চাকরি থাকলেও বেতন নেই কর্মীদের।
সংবাদ সম্মেলনে আরো অভিযোগ করা হয়, ভারপ্রাপ্ত এমডি মদন মোহন সাহার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ, মতার অপব্যবহার, একনায়কতন্ত্র, নিয়োগবাণিজ্য ও অনৈতিক কার্যকলাপসহ ব্যাপক অনিয়ম করছেন। তিনি বিভিন্ন ইস্যুতে প্রতিষ্ঠানের সম্পদ আত্মসাৎ করা ও তার অদতার জন্য এক বছরে প্রতিষ্ঠানের খেলাপি বেড়েছে প্রায় ৪০ কোটি টাকা। তা ছাড়া বহিরাগতদের আশ্রয়কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে পিডিবিএফ প্রধান কার্যালয়।
সংবাদ সম্মেলন শেষে প্রেস কাবের সামনেই মানববন্ধন করেন তিন শতাধিক কর্মচারী। তারা চাকরিচ্যুতদের পুনর্বহাল, বকেয়া বেতন পরিষদ, সব ধরনের হয়রানি বন্ধ, চাকরি স্থায়ীকরণসহ অন্যান্য দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন। ১৮ জানুয়ারির মধ্যে দাবি আদায় না হলে পিডিবিএফ প্রধান কার্যালয় ঘেরাওসহ লাগাতার অনশন কর্মসূচি পালন করবেন বলেও ঘোষণা দেয়া হয়। বিজ্ঞপ্তি।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫