বাণিজ্যমেলায় ওয়ালটনের ৭০০ মডেলের ৬০ পণ্য

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক

ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় এবার ৬০টিরও বেশি ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল, হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়ান্সেসে প্রদর্শন এবং বিক্রি হচ্ছে ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে। এসব পণ্যের রয়েছে সাত শতাধিক বৈচিত্র্যময় মডেল। মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের নতুন আকর্ষণ ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস।
আয়োজকরা জানান, ক্রেতারা যাতে এক ছাদের নিচেই তাদের দরকারি সব ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল, হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস, ল্যাপটপ ও স্মার্টফোনসহ আইসিটি পণ্য কিনতে পারেন সে জন্যই মেলায় সর্বোচ্চ সংখ্যক পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রি হচ্ছে। কনজ্যুমার গুডস-এর পাশাপাশি এবার প্লাস্টিক মোল্ড, ডাই, এলজিপি, এলডিপি, নাট, বোল্ট, স্ক্রুসহ ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস প্রদর্শন ও বিক্রি হচ্ছে। পণ্য উৎপাদনের সাথে সম্পর্কযুক্ত ব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কেজ সাপোর্ট বা মেশিনারিজ, যন্ত্রাংশ ও অন্যান্য সেবা প্রদানকেই ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস বোঝাচ্ছেন তারা।
ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক মো: হুমায়ুন কবীর বলেন ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের কাছে ‘মেইড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন প্রযুক্তি পণ্য তুলে ধরতেই ওয়ালটনের এত সব চমক। এবার সম্পূর্ণ নতুন পণ্য হিসেবে এসেছে এলজিপি, এলডিপি, মাস্টারব্যাচ, অ্যালুমিনিয়াম ফয়েল অ্যান্ড বোথ সাইড টেপ, প্লাস্টিক কম্পোনেন্ট, স্টিল কম্পোনেন্টসহ বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রিয়াল সলিউশনস।
জানা যায়, এবারের মেলায় বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি আইওটি বেজড স্মার্ট ফ্রিজ ও এসি, এলইডি টেলিভিশনসহ বেশকিছু নতুন মডেলের হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস এনেছে ওয়ালটন। এসিতে নতুন যুক্ত হয়েছে আয়োনাইজার প্রযুক্তি যা বিশুদ্ধ বায়ুপ্রবাহ নিশ্চিত করে। ওয়ালটন ল্যাপটপে নতুন যুক্ত হয়েছে সপ্তম প্রজন্মের কোরআই-৫ প্রসেসর সমৃদ্ধ ১৫.৬ ইঞ্চি ডিসপ্লের ল্যাপটপ। রয়েছে শিক্ষার্থীদের উপযোগী সাশ্রয়ী মূল্যের ল্যাপটপও। নতুন মডেলের পাশাপাশি ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে প্রদর্শিত হচ্ছে বিভিন্ন পণ্যের আপকামিং মডেল। এই তালিকায় আছে ওয়ালটন কারখানায় তৈরি দেশের প্রথম বড় পর্দার মাল্টিটাচ কম্পো টিভি। রয়েছে স্মার্ট ও এলইডি টিভির কয়েকটি আপকামিং মডেল।
ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের সমন্বয়ক শাহ শহীদ চৌধুরী জানান, ক্রেতাদের চাহিদা, রুচি ও ক্রয়ক্ষমতার কথা বিবেচনা করে ৭০০ এর বেশি মডেলের পণ্য এনেছেন তারা। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে প্রায় সব পণ্যের প্রযুক্তি, ডিজাইন ও কালারে আনা হয়েছে নতুনত্ব। এবার সাত হাজার বর্গফুট আয়তনের দৃষ্টিনন্দন তিন তলা প্রিমিয়ার প্যাভিলিয়ন (নম্বর ২৩) করেছে ওয়ালটন। ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের ইনচার্জ মো: শফিকুল আলম জানান, নিচ তলায় প্রদর্শিত হচ্ছে ফ্রিজ, এসি, এলইডি টেলিভিশনসহ অন্যান্য হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্সেস। এর মধ্যে রয়েছে ২১ মডেলের ফ্রিজার, ৩১ মডেলের নন ফ্রস্ট ফ্রিজ, ৮৬ মডেলের ফ্রস্ট ফ্রিজ, ১০৩ মডেলের এলইডি টিলিভিশন, ২ মডেলের আল্ট্রা এইচডি টেলিভিশন, ২৩ মডেলের এয়ার কন্ডিশনার, ২৪ মডেলের রাইস কুকার, ৫ মডেলের কিচেন কুকওয়্যার, ১৩ মডেলের আয়রন, ৬ মডেলের আইপিএস, ১০ ধরনের অটো ভোল্টেজ স্টাবিলাইজার, ২৪ মডেলের ব্লেন্ডার, ৬ মডেলের ফ্যান, এলইডি বাল্ব, কয়েক মডেলের ওভেন, ইন্ডাকশন কুকার, হেয়ার ড্রায়ার, এয়ার কুলার, ওয়াশিং মেশিন, রিচার্জেবল ও পোর্টেবল ল্যাম্প, জুসার, মাল্টি কুকার, টোস্টার, গ্যাস স্টোভ ও ওয়াটার ডিস্পেন্সার।
দ্বিতীয় তলায় আছে ১৭ মডেলের কম্প্রেসর, ২৭ মডেলের ল্যাপটপ, ৪৭ মডেলের স্মার্টফোন, ১০ মডেলের ট্যাব, ১৯ মডেলের জেনারেটর। এর মধ্যে ১ মডেলের জেনারেটর রয়েছে, যা ডিজেল চালিত। প্রদর্শিত হচ্ছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে ওয়ালটনের তৈরি উচ্চ ক্ষমতার লিফটও। তৃতীয় তলায় রয়েছে আইটি সাপোর্ট, সিসিটিভি মনিটরিং, স্টোর ও কর্মকর্তাদের কক্ষ। মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন থেকে পণ্য কিনলেই ক্রেতারা পাচ্ছে পণ্যভেদে ৮ শতাংশ পর্যন্ত মূল্যছাড়। পাশাপাশি টিভি, ফ্রিজসহ অন্যান্য ভারী পণ্যে বিনামূল্যে ক্রেতাদের ঘরে পৌঁছে দেয়ার সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন।
বাণিজ্য মেলায় সেরা ভ্যাটদাতার পুরস্কার চালু হওয়ার পর থেকে প্রতিবছরই সেরা ভ্যাটদাতার সম্মান অর্জন করে আসছে ওয়ালটন। এ ছাড়া প্রায় প্রতিবছরই সেরা প্যাভিলিয়নের পুরস্কার পাচ্ছে দেশীয় এই প্রতিষ্ঠানটি।
রুম হিটার বিক্রির ধুম
বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন নিয়ে এসেছে সাশ্রয়ী মূল্যের আকর্ষণীয় মডেলের রুম হিটার। ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের কর্মকর্তা মোহাম্মদ সালমান বলেন, এবারের বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের দুইটি মডেলের রুম হিটার আনা হয়েছিল। ক্রেতাদের চাহিদা এত বেশি ছিল যে, ইতোমধ্যে একটি মডেলের স্টক শেষ হয়ে গেছে। আর একটিমাত্র রুম হিটার অবশিষ্ট আছে। বাকি সবই বিক্রি হয়ে গেছে। তিনি বলেন, সাধারণত ওয়ালটনের ৫০০ থেকে এক হাজার ওয়াটের রুম হিটার পাওয়া যায়। গুণগতমান ও আকর্ষণীয় ডিজাইনের রুম হিটার ওয়ালটন বাজারে এনেছে এবং ক্রেতারা তাদের পছন্দ ও বাজেট অনুযায়ী রুম হিটার কিনতে পারছে।
মোহাম্মদ সালমান জানান, ওয়ালটন রুম হিটারে রয়েছে সেফটি লক। যদি কারো হাত থেকে পড়ে যায় তাহলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে রুম হিটার। আবার একটানা চার ঘণ্টা চলার পর অটোমেটিক বন্ধ হয়ে যাবে এটি। তিনি বলেন, এই হিটারে ১০-১০ স্কয়ার ফিট পর্যন্ত রুম গরম করে মাত্র ২০ থেকে ২৫ মিনিটেই। এক হাজার ওয়াটের রুম হিটার এক ঘণ্টা চালালে বিল উঠবে মাত্র এক ইউনিট। ওয়ালটন রুম হিটারের দাম রাখা হচ্ছে এক হাজার ১৯০ টাকা। সঙ্গে আছে ৭ শতাংশ বিশেষ ছাড়।
বাণিজ্য মেলায় রুম হিটার কিনতে আসা অন্তরা বলেন, মাত্র তিন থেকে চার ঘণ্টা চালিয়ে রাখলইে রুম গরম হয়ে যায়। পরে বন্ধ করে রাখলেও রুমের তাপমাত্রা অনেকক্ষণ গরম থাকে। তাই সারাক্ষণ এটি চালানোর প্রয়োজন পড়ে না। তিনি বলেন, বাজারে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের রুম হিটার আছে। অনেক কোম্পানির রুম হিটার দেখেছি। সব দেখে ওয়ালটনের রুম হিটারই বেশি পছন্দ হয়েছে। দেখতে যেমন সুন্দর, এর কিছু স্পেশাল সুবিধাও রয়েছে।

 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.