ঢাকা, সোমবার,২৩ এপ্রিল ২০১৮

ক্রীড়া দিগন্ত

ভিন্ন চ্যালেঞ্জ দেখছেন হিথ স্ট্রিক

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১৪ জানুয়ারি ২০১৮,রবিবার, ০০:০০


প্রিন্ট

বাংলাদেশের বোলিং কোচ ছিলেন হিথ স্ট্রিক। সদ্য বিদায়ী টাইগার কোচ চন্ডিকা হাতুরা সিংহের সাথেই কাজ করেছেন বাংলাদেশে। বর্তমানে হাতুরা শ্রীলঙ্কার প্রধান কোচ এবং হিথ স্ট্রিক জিম্বাবুয়ের কোচ। দুইজনে দুই মেরুতে হলেও বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় সিরিজে মিলিত হবেন এক মেরুতে। মজার ব্যাপার হলো বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের পদ কেউ পূরণ করেনি। টিম ডিরেক্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন খালেদ মাহমুদ সুজন। যাকে হাতুরা ও হিথ স্ট্রিক পেয়েছেন টাইগারদের ম্যানেজার হিসেবে। এ সিরিজটা তাই এই তিনজনের জন্য অন্য রকম পুনর্মিলনী। যে তিনজন এক সময় একসাথে একটি দলের জন্য পরিকল্পনা সাজাতেন। এখন তারাই তিনটি ভিন্ন ভিন্ন দলের হয়ে পরিকল্পনা করবেন। সবাই সবাইকে চেনেন জানেন বিধায় সিরিজটিকে দারুণ চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখছেন জিম্বাবুয়ের কোচ হিথ স্ট্রিক।
বাংলাদেশে কোচিংয়ের সময় অনেকের সাথেই কাজ করেছেন স্ট্রিক। শ্রীলঙ্কার বর্তমান কোচ চন্দিকা মাত্র কিছু দিন আগেই বাংলাদেশের দায়িত্ব ছাড়েন। তিনিও এসেছেন শ্রীলঙ্কা দলের সাথে। স্ট্রিকের মতে, ‘বর্তমানে অনেক কোচই একটা দলে এক হয়ে কাজ করে, আবার প্রতিপক্ষও হয়ে যায়। হাতুরা ও সুজনের সাথে আমার খুব ভালো সম্পর্ক হয়ে গিয়েছিল। আমি মনে করি এ সিরিজটা আমাদের সবার জন্য একটা ভালো চ্যালেঞ্জ হবে।’
বাংলাদেশে দুই বছর কাজ করার পর ২০১৬ সালে ফিরে যান হিথ স্ট্রিক। জিম্বাবুয়ে দল গত শুক্রবার ঢাকায় পা রেখে গতকাল মুখোমুখি হন সংবাদ সম্মেলনে। শুরুতেই বলে দিলেন, বাংলাদেশ তার নিজের দ্বিতীয় বাড়ি। তার কথায়, ‘আবার এসে ভালো লাগছে। যেন এক বাড়ি থেকে আরেক বাড়ি ফিরেছি। খুব বেশি দিন হয়নি, এখানে দুই বছর কাটিয়ে গিয়েছি। ফলে এখানে থাকার দিনগুলোর মতোই এখন মনে হচ্ছে।’
জিম্বাবুয়ের হয়ে ৬৫ টেস্ট খেলা এ পেসার আরো বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের সাথে একটি ভালো ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে চাই। আমি বাংলাদেশকে অনেক দিন ধরে দেখছি। মাশরাফি, মোস্তাফিজুর ও তাসকিনদের মতো এখানের অনেকেই আমার ভালো বন্ধু। আমি এখানে কোচিংয়ে অনেক সময় কাটিয়েছি। আমি যাওয়ার পরও তারা কেমন পারফর্ম করেছে তা আমি দেখেছি।’
সিরিজে প্রতিটি দলের পরিকল্পনা ও কৌশলই ফলাফলে ভূমিকা রাখবে বলে মনে করেন স্ট্রিক। তার কথায়, ‘আমরা কন্ডিশন এবং খেলোয়াড়দের সম্পর্কে জানি, হাতুরেও ঠিক তাই। শ্রীলঙ্কা এবং জিম্বাবুয়ের অনেকেই বিপিএলে খেলেছে। ফলে এখানে আর গোপন কিছু নেই। এখানে ভালো পরিকল্পনা এবং দলের কৌশলগত অবস্থানই গুরুত্বপূর্ণ হবে বলে মনে করছি।’

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫