ঢাকা, বৃহস্পতিবার,২৬ এপ্রিল ২০১৮

অনলাইন জগৎ

নেপালে ভারতের আধিপত্যের অবসান, চীনা যুগ শুরু

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৩ জানুয়ারি ২০১৮,শনিবার, ১৭:৫৭


প্রিন্ট
নেপালে ভারতের আধিপত্যের অবসান, চীনা যুগ শুরু

নেপালে ভারতের আধিপত্যের অবসান, চীনা যুগ শুরু

ভারতের উপর আর নির্ভরশীল থাকছে না নেপাল৷ চীনের সাহায্যে এবার ইন্টারনেটের সুবিধা নিচ্ছে নেপাল৷ ইন্টারনেট পরিষেবার জন্য তারা চীনা অপটিক্যাল ফাইবারের ব্যবহার করছে৷

এতদিন সাইবার স্পেসে যোগাযোগের জন্য ভারতের উপর নির্ভরশীল ছিল নেপাল৷ কিন্তু এবার তারা ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক ঘুচিয়ে জুটি বেঁধেছে চীনের সঙ্গে৷ হিমালয় পর্বতের এপার থেকে ওপারে অপটিক্যাল ফাইবার নিয়ে গিয়েছে তারা৷ চীনা ফাইবার রাসুয়াগাড়ি সীমান্ত দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ প্রতি সেকেন্ডে এর স্পিড ১.৫ গিগাবাইট৷ ভারতের বিরাটনগর, ভাইরাওয়া ও বীরগঞ্জ দিয়ে যে অপটিক্যাবল ফাইবার নিয়ে যাওয়া হয়েছে, তার থেকে এর গতি কম৷ ভারতের অপটিক্যাল ফাইবারের স্পিড প্রতি সেকেন্ডে ৩৪ গিগাবাইট৷

২০১৬ সালে চায়না টেলিকমিউনিকেশনের সঙ্গে নেপাল টেলিকম একটি মউ চুক্তি সাক্ষর করে৷ সেই চুক্তি অনুসারে নেপালের ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক চীন থেকে কাজ করবে৷

নেপালের তথ্য ও জ্ঞাপন মন্ত্রী মোহন বাহাদুর বাসনেত জানিয়েছেন, চীন থেকে হিমালয় হয়ে অপটিক্যাল ফাইবার বসানোর কাজ শুরু হয়ে গেছে৷ তিনি এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন৷ অপটিক্যাল ফাইবার লিঙ্ক নেপাল ও চীনের মধ্যে সুসম্পর্ক তৈরি করবে৷ এর ফলে দেশের (নেপালের) ইন্টারনেট পরিষেবার উন্নতি হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি৷

ভারতে আগুনে এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু
ভারতের রাজস্থানে ভয়াবহ এক অগ্নিকান্ডে একই পরিবারের কমপক্ষে ৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। রাজস্থানের রাজধানী জয়পুরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ কথা জানায়।
খবর সিনহুয়া’র।

পুলিশ বলছে, জয়পুরের বিদ্যানগর এলাকায় স্থানীয় সময় শনিবার ভোর ৪টার দিকে একটি বাড়িতে আগুন লাগলে একই পরিবারের ৫ জন মারা যায়।
এলাকাবাসী জানায়, তারা সিলিন্ডার বিস্ফোরণের বিকট শব্দ শুনতে পেয়েছেন।
প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ মনে করছে, বাড়িতে ব্যবহারের জন্য গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে এ অগ্নিকান্ড ঘটেছে।
তিন ঘন্টা চেষ্টার পর দমকল বাহিনী আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।


ভারতে হেলিকপ্টার বিধ্বংস হয়ে নিহত ৪
ভারতের মহারাষ্ট্রে আজ একটি বেসামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বংস হয়ে ৪ জন নিহত ও ৩ জন নিখোঁজ হয়েছে।
কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা সিনহুয়া আজ এ খবর দেয়।
মহারাষ্ট্রের রাজধানী মুম্বাই এর জুহু বিমান বন্দর থেকে ৭ জন আরোহী নিয়ে উড্ডয়নের পর পরই হেলিকপ্টারটি বিধ্বংস হয়।

ভারতীয় কোস্ট গার্ডের মুখপাত্র মিডিয়াকে বলেন, “উদ্ধার কর্মীরা ইতিমধ্যে ৪ যাত্রীর লাশ উদ্ধার করেছে এবং অপর ৩ জন আরোহীকে উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে।”

হেলিকপ্টারটি আজ স্থানীয় সময় বেলা ১০টা ২০ মিনিট ভারতীয় তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস করপোরেশনের (ওএনজিসি) ৫ জন সিনিয়র কর্মকর্তাকে নিয়ে উড্ডয়নের ১৫ মিনিটের মধ্যে নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সাথে যোগযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এরপর ভারতীয় কোস্ট গার্ড ও নৌ-বাহিনী তল্লাশি অভিযান শুরু করে। পাঁচটি জাহাজ এবং দু'টি এয়ারক্রাফট ওই এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছে।

এসময় কপ্টারটি মুম্বাই উপকূল থেকে ৫৫ কিলোমিটার দূরত্বে উড্ডয়নরত ছিল।
উদ্ধারকর্মীরা কপ্টারটির ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছেন।
উদ্ধারকৃতদের মধ্যে একজন হলেন তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস করপোরেশনের সিনিয়র কর্মকর্তা পংকজ গার্ক। দুর্ঘটনার কারণ তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

 

 

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫