ঢাকা, বুধবার,২৫ এপ্রিল ২০১৮

আমেরিকা

বেফাঁস মন্তব্য ও যৌন কেলেঙ্কারি ফাঁস নিয়ে বেকায়দায় ট্রাম্প

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৩ জানুয়ারি ২০১৮,শনিবার, ১৫:৪৩


প্রিন্ট
বেফাঁস মন্তব্য ও যৌন কেলেঙ্কারি ফাঁস নিয়ে বেকায়দায় ট্রাম্প

বেফাঁস মন্তব্য ও যৌন কেলেঙ্কারি ফাঁস নিয়ে বেকায়দায় ট্রাম্প

আফ্রিকার অভিবাসীদের নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দেয়ার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে ৫৫ জাতিগোষ্ঠীর সংস্থা আফ্রিকান ইউনিয়ন। ট্রাম্প আফ্রিকার দেশগুলোকে ‘অত্যন্ত নোংরা ও বসবাসের অযোগ্য’ বলে মন্তব্য করার পর তার প্রতি এ আহ্বান জানানো হলো।

ওয়াশিংটন ডিসি’তে আফ্রিকান ইউনিয়নের দপ্তর ট্রাম্পের বক্তব্যে ‘হতাশা ও ক্ষোভ’ প্রকাশ করে বলেছে, ট্রাম্প প্রশাসন আফ্রিকার জনগণকে বুঝতে ভুল করেছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বৃহস্পতিবার অভিবাসী বিষয়ক সিনেটরদের এক বৈঠকে আফ্রিকার দেশগুলো সম্পর্কে ওই বিতর্কিত মন্তব্য করেন। অবশ্য তার এ বক্তব্য গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়ার পর নিজেকে বাঁচাতে তিনি দাবি করেছেন, তিনি ওই পরিভাষা ব্যবহার করেননি।

হোয়াইট হাউজে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে উপস্থিত দু’জন রিপাবলিকান সিনেটর ট্রাম্পের আত্মপক্ষ সমর্থন করে দেয়া বক্তব্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। কিন্তু সেখানে উপস্থিত ডেমোক্র্যাট সিনেটর ডিক ডারবিন বলেছেন, ট্রাম্প আফ্রিকার দেশগুলোকে বেশ কয়েকবার ‘অত্যন্ত নোংরা’ বলে অভিহিত করেছেন এবং বহুবার ‘বর্ণবাদী’ পরিভাষা ব্যবহার করেছেন।

ট্রাম্প শুক্রবার এক টুইটার বার্তায় দাবি করেছেন, তিনি সিনেটরদের সঙ্গে বৈঠকে আফ্রিকার অভিবাসীদের নিয়ে অনেক ‘কড়া’ কথা বলেছেন কিন্তু যে পরিভাষাগুলো গণমাধ্যমে এসেছে তিনি তা প্রয়োগ করেননি। কিন্তু তার এই অস্বীকৃতিতে সন্তুষ্ট হতে পারেনি আফ্রিকান ইউনিয়ন। সংস্থাটি আফ্রিকার দেশগুলোকে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের জন্য ট্রাম্পকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

অন্যদিকে  মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক পর্নো তারকার সঙ্গে অবৈধ যৌন সম্পর্কের কথা গোপন রাখার জন্য ওই নারীকে এক লাখ ৩০ হাজার ডলার ঘুষ পরিশোধ করেছেন বলে খবর বের হয়েছে। মার্কিন পত্রিকা ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল খবর দিয়েছে, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের এক মাস আগে একজন আইনজীবীর মাধ্যমে ওই অর্থ পরিশোধ করেছেন ট্রাম্প।

বর্তমান স্ত্রী মেলানিয়ার সঙ্গে বিবাহের এক বছর পর ২০০৬ সালে অশ্লীল সিনেমার অভিনেত্রী স্টেফানি ক্লিফোর্ডের সঙ্গে গল্‌ফ খেলার সময় সাক্ষাৎ হয় ট্রাম্পের। এরপর তার সঙ্গে বিছানায় যান মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ২০১৬ সালের শরতে ক্লিফোর্ড মার্কিন টিভি চ্যানেল এবিসি নিউজকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ট্রাম্পের সঙ্গে তার বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্কের কথা প্রকাশ করেন। কিন্তু তার মুখ বন্ধ রাখার জন্য ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের আইনজীবী মাইকেল কোহেন ওই নারীকে এক লাখ ৩০ হাজার ডলার অর্থ প্রদান করেন।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল জানিয়েছে, কোহেন এই অর্থ ওই নারীকে সরাসরি না দিয়ে বরং তার আইনজীবী কেথ ড্যাভিডসনের মাধ্যমে হস্তান্তর করেছেন। এদিকে মার্কিন দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ক্লিফোর্ড অনলাইন ম্যাগাজিন স্লেট’কে দেয়া সাক্ষাৎকারেও ট্রাম্পের সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্ক নিয়ে কথা বলেছেন। নিউ ইয়র্ক টাইমসকে স্লেট গ্রুপের এডিটর-ইন-চিফ জ্যাকব ওয়েজবার্গ বলেছেন, ক্লিফোর্ড তাকে বলেছেন যে, ট্রাম্পের সঙ্গে তার অবৈধ সম্পর্ক প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

অবশ্য ট্রাম্পের আইনজীবী কোহেন সিএনএন’কে বলেছেন, ২০১১ সাল থেকে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এ ধরনের অভিযোগ উত্থাপন করা হচ্ছে। কিন্তু প্রেসিডেন্ট আরেকবার কঠোর ভাষায় এ অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫