ঢাকা, শুক্রবার,১৯ জানুয়ারি ২০১৮

উপমহাদেশ

শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদ : কন্যাকে নিয়ে মায়ের সংবাদ পাঠ

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১৩ জানুয়ারি ২০১৮,শনিবার, ১২:৪৪ | আপডেট: ১৩ জানুয়ারি ২০১৮,শনিবার, ১২:৫৯


প্রিন্ট

জয়নব আনসারি...

 

পাকিস্তানে সাত বছরের শিশু জয়নব আনসারিকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় নিজের শিশুকন্যাকে কোলে নিয়ে টিভিতে খবর পড়ে অভিনব প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশটির জনপ্রিয় এক সংবাদ উপস্থাপিকা।

সামা টিভির সংবাদ উপস্থাপিকা কিরণ নাজ খবরের শুরুতেই বলেন, ‘আজ আমি শুধু আপনাদের সংবাদ পাঠিকা নই, এখানে আজ আমি একজন মা হিসেবে উপস্থিত হয়েছি। সে কারণেই কোলে রয়েছে আমার ছোট্ট মেয়ে। এ কথা সত্য যে, অতি ছোট্ট ওই কফিনটি আজ সবচেয়ে ভারী। গোটা পাকিস্তান এ কফিনের ভারে ভারাক্রান্ত।’

শিশুকন্যাকে নিয়ে সংবাদ পাঠ করছেন মা কিরণ নাজ

 

‘পাকিস্তানের এক দানব শিশুটিকে খুন করেছে। এটি শুধু একটি শিশুর খুন নয়, গোটা সমাজের খুন।’

গত সপ্তাহে সাত বছরের ছোট্ট জয়নবকে পাকিস্তানের কাসুর থেকে অপহরণ করে তাকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করে দুষ্কৃতকারীরা। জয়নব যখন অপহৃত হয় তখন তারা বাবা-মা ওমরা পালন করতে সৌদি আরবে ছিলেন।

গত ৪ জানুয়ারি মক্তবে কুরআন পড়া শেষে বাড়ি ফেরার পথে নিখোঁজ হয় জয়নব। ৯ জানুয়ারি বাড়ি থেকে দুই কিলোমিটার দূরে ময়লার একটি ভাগাড় থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

 

যুক্তরাষ্ট্র-পাকিস্তান গোয়েন্দা তথ্যবিনিময় স্থগিত

যুক্তরাষ্ট্রকে মাঠপর্যায় থেকে প্রাপ্ত গোয়েন্দা তথ্য দেয়া বন্ধ করে দিয়েছে পাকিস্তান। এটিকে ওয়াশিংটনের সাথে পাকিস্তানের সামরিক-সহযোগিতা স্থগিতের প্রাথমিক ইঙ্গিত মনে করা হচ্ছে। এতে আফগানিস্তানে চলমান মার্কিন যুদ্ধ ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। ইংরেজি নববর্ষের দিন ভোরে ট্ইুটার বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মিথ্যা তথ্য দেয়ার অভিযোগ এনে পাকিস্তানকে সামরিক সহায়তা বন্ধের হুমকি দেন। পরে পররাষ্ট্র দফতর থেকে সেই সাহায্য বন্ধের ঘোষণা আসে। 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাতে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কোন্নয়নের গোপন বৈঠক চলমান থাকার খবর দেয়া হলেও ইসলামাবাদের কর্মকর্তারা গোয়েন্দা তথ্যবিনিময় বন্ধ করে দেয়ার কথা জানালেন। পাকিস্তান আফগান সীমান্তবর্তী অঞ্চল থেকে সংগৃহীত গোয়েন্দা তথ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে সামরিক সহযোগিতা দিয়ে আসছিল। পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খুররম দস্তগীর খান চলতি সপ্তাহে জানিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে সব ধরনের সামরিক ও প্রতিরক্ষামূলক সম্পর্ক স্থগিত করা হয়েছে। তবে এর বিস্তারিত সম্পর্কে তিনি সে সময় কিছুই জানাননি।

গতকাল শুক্রবার পাকিস্তানের সামরিক কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তারা সহযোগিতা দেয়া বন্ধ করেছেন। ইসলামাবাদের ওই সিদ্ধান্তের কারণে এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে গোয়েন্দা তথ্যের জন্য আকাশ থেকে পর্যবেক্ষণ ও যোগাযোগ ব্যবস্থায় প্রবেশ করে পাওয়া তথ্যের ওপর নির্ভর করতে হবে। পাকিস্তানের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, পাকিস্তানের বিস্তৃত আওতার মধ্যে থাকা বিভিন্ন সূত্র থেকে পাওয়া তথ্য (যেমন : পাকিস্তানি বাহিনীর হাতে ধরা পড়া সন্দেহভাজন আফগান তালেবান) থেকে শুরু করে তাদের গোয়েন্দাদের নিজস্ব কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে সংগৃহীত তথ্য যুক্তরাষ্ট্রকে সরবরাহ করা হতো।

ওই কর্মকর্তারা জানান, পাকিস্তানের তরফ থেকে তথ্য দেয়া বন্ধ করা হলেও যুক্তরাষ্ট্র চাইলে তাদের নিজস্ব প্রক্রিয়ায় তথ্য সংগ্রহ অব্যাহত রাখতে পারবে। তারা বলেন, ‘আফগানিস্তান সীমান্তে পাকিস্তানের ভেতরে যুক্তরাষ্ট্র ড্রোন উড়িয়ে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করতে পারবে যুক্তরাষ্ট্র। তবে কোনো ড্রোনই ১০০ শতাংশ নির্ভুলভাবে তথ্য সংগ্রহ করতে পারে না।’ - ফিনান্সিয়াল টাইমস

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫