ঢাকা, বুধবার,১৭ জানুয়ারি ২০১৮

উপমহাদেশ

চিন শক্তিশালী রাষ্ট্র, তবে আমরাও দুর্বল নই, হুঁশিয়ারি ভারতের সেনাপ্রধানের

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১২ জানুয়ারি ২০১৮,শুক্রবার, ১৯:০৭


প্রিন্ট
জেনারেল বিপিন রাওয়াত (ফাইল ফটো)

জেনারেল বিপিন রাওয়াত (ফাইল ফটো)

সীমান্তে ভারতের উপর চাপ বাড়াচ্ছে চীন। এবার জানালেন খোদ ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। দেশের উত্তর সীমান্তে সবচেয়ে বেশি নজর দেয়া প্রয়োজন বলে মন্তব্য করলেন তিনি। ভারতকে দুর্বল ভাবলে ভুল হবে— প্রকারান্তরে চীনকে এমন হুঁশিয়ারিও দিয়ে রাখলেন তিনি।

‘উত্তর সীমান্তের দিকে নজর ঘোরানোর সময় হয়েছে ভারতের।’ শুক্রবার এ কথা বলেছেন জেনারেল রাওয়াত। চীনের কারণেই যে উত্তর সীমান্ত খুব গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে, তা সেনাপ্রধান স্পষ্টই জানান। তবে চীনের আগ্রাসন মোকাবিলায় ভারত যে প্রস্তুত, সে বিষয়েও তিনি দেশের জনগণকে আশ্বস্ত করেছেন। জেনারেল রাওয়াত বলেছেন, ‘চীনা আগ্রাসনের মোকাবিলা করতে দেশ সক্ষম। চীন একটা শক্তিশালী রাষ্ট্র, কিন্তু আমরা কোনো দুর্বল দেশ নই।’

ভারত-ভুটান-চীন সীমান্তের ডোকলামে বেনজির পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল ২০১৭’র মাঝামাঝি সময়ে। রাস্তা তৈরিকে কেন্দ্র করে ঘনিয়ে ওঠা বিবাদের জেরে দু’দেশের বাহিনী টানা ৭৩ দিন পরস্পরের মুখোমুখি অবস্থানে দাঁড়িয়ে ছিল। সেই সঙ্কটের নিরসনের পরে ছয় মাসও কাটেনি। ফের রাস্তা তৈরিকে কেন্দ্র করে বিবাদের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। লাইন অব অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল (এলএসি) পেরিয়ে অরুণাচলের ভিতরে ঢুকে রাস্তা বানাতে শুরু করেছিল চীন। ভারতীয় বাহিনীর হস্তক্ষেপে চীনা কনস্ট্রাকশন পার্টি ফিরে যেতে বাধ্য হয়। এর মধ্যেও একাধিকবার সীমান্ত লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে চীনের বিরুদ্ধে- কখনও লাদাখে, কখনও উত্তরাখণ্ডে।

ভারতের উপর চাপ বাড়ানোর জন্যই সীমান্তে এ ধরনের কার্যকলাপ বাড়াচ্ছে চীন, ইঙ্গিত সেনাপ্রধানের। তবে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের এলাকায় কোনো অনুপ্রবেশ আমরা বরদাস্ত করব না। ... কোনো পরিস্থিতি তৈরি হলে আমাদের বাহিনী জবাব দিতে প্রস্তুত।’ সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫