ঈশ্বরগঞ্জে এডিসি পরিচয়ে বিকাশে টাকা চেয়ে ফোন

মো. আব্দুল আউয়াল ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ)

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) এডিসি পরিচয়ে ইউনিয়ন পরিষদ সচিব ও মেম্বারদের কাছে ফোন করে বরাদ্দ দেওয়ার নামে টাকা দাবির অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার একটি মোবাইল ফোন থেকে বিকাশে টাকা চেয়ে বিভিন্ন ইউনিয়নের সচিব ও মেম্বারদের কাছে ওই ফোনকল আসে।
বিভিন্ন ইউনিয়নের সচিব ও মেম্বারদের কাছে কথা বলে জানা যায়, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে পরিষদের সচিবদের কাছে ০১৫৩১৪৭৬৩৯২ এই নাম্বারে একটি কল আসে। এডিসি রেভিনিউ গোলাম কিবরিয়া পরিচয় দিয়ে বলা হয় আপনাদের পরিষদে পাঁচটি টিউবয়েল ও বিজোড় সংখ্যার ওয়ার্ডে একটি করে টিউবওয়েল ও টিন বরাদ্দ হয়েছে। দ্রুত মেম্বারদের (ইউপি সদস্য) যোগাযোগ করতে বলুন। আজকের মধ্যে যোগাযোগ না করলে বরাদ্দ ফেরত যাবে। এ সংক্রান্ত চিঠি ডিজিটাল সেন্টারের ইমেইলে পাঠানো হয়েছে।
এদিকে একই নাম্বার থেকে বিভিন্ন ইউনিয়নের মেম্বারদের কাছেও ফোন আসে। এডিসি পরিচয়ে বলা হয় ‘আমি এডিসি রেভিনিউ গোলাম কিবরিয়া বলছি, ‘আপনার ওয়ার্ডে তিনটি টিউবওয়েল ও তিন বান্ডেল টিন বরাদ্দ হয়েছে। আজ (বৃহস্পতিবার) বিকেল চার টার মধ্যে তা পেয়ে যাবেন। একটি বিকাশ নম্বর দিয়ে দ্রুত ৫ হাজার টাকা পাঠাতে বলা হয়।’ পরে ইউপি সদস্য ও ইউপি সচিবরা উপজেলা প্রশাসনের সাথে কথা বললে গোলাম কিবরিয়া নামে পরিচয় দেওয়া কোনো কর্মকর্তা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নেই বলে জানতে পারেন। তাছাড়া এ ইমেইলেও বরাদ্দ সংক্রান্ত কোন চিঠি পাওয়া যায়নি। ওই পরিস্থিতিতে ইউপি সদস্যরা কোন টাকা পাঠাননি।
উচাখিলার ইউপি সচিব হুমায়ুন কবীর ও মাইজবাগ ইউনিয়নের সচিব রফিকুল ইসলাম জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাদের মুঠোফোনে ০১৫৩১৪৭৬৩৯২নাম্বর থেকে একটি কল আসে। এডিসি রেভিনিউ গোলাম কিবরিয়া পরিচয় দিয়ে পরিষদের বিভিন্ন ওযার্ডে টিউবওয়েল ও টিন বরাদ্দ হয়েছে জানিয়ে মেম্বারদের জরুরী যোগাযোগ করতে বলাহয়। পরে তারা বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করলে মুঠোফোনে পরিচয়দেয়া নামে কোন এডিসি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নেই বলে জানতে পারেন।

ঈশ্বরগঞ্জের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মইনউদ্দিন খন্দকার বলেন, একটি চক্র এডিসি পরিচয় দিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা হাতানোর চেষ্টা করেছিলো। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। 

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.