আরোপিত অবরোধ নিরসনে পদক্ষেপ নিচ্ছে কাতার
আরোপিত অবরোধ নিরসনে পদক্ষেপ নিচ্ছে কাতার

আরোপিত অবরোধ নিরসনে পদক্ষেপ নিচ্ছে কাতার

নয়া দিগন্ত অনলাইন

সৌদি আরব ও তিনটি আরব দেশ কাতারের ওপর যে অবরোধ আরোপ করেছে তার অবসানের জন্য আন্তর্জাতিক মীমাংসার আহ্বান জানিয়েছে দোহা। কাতারের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা কিউএনএ বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লুলওয়াহ আল-খাতের বুধবার এ ঘোষণা দেন।

কয়েকদিন আগে জাতিসঙ্ঘ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, সৌদি নেতৃত্বাধীন অবরোধের কারণে কাতারের ওপর নেতিবচাক প্রভাব পড়ছে। এরপরই আন্তর্জাতিক মধ্যস্থতার আহ্বান জানালো কাতার। খাতের বলেছেন, জাতিসঙ্ঘ যে প্রতিবেদন প্রকাশে করেছে তা নিরপেক্ষ, সন্তোষজনক এবং পূর্ণাঙ্গ যার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

লুলওয়াহ আল-খাতের আরো বলেন, জাতিসঙ্ঘ প্রতিবেদনের মাধ্যমে প্রমাণিত হয়েছে যে, সৌদি নেতৃত্বাধীন অবরোধ শুধুমাত্র কাতার সরকারকে লক্ষ্য করে আরোপ করা হয়েছে এবং দোহা এখনো আশা করছে- সংলাপ ও কূটনৈতিক উপায়ে চলমান সংকটের সমাধান করা যাবে।

ইরান ও মিসরের ইখওয়ানুল মুসলিমিন, লেবাননের হিজবুল্লাহ ও ফিলিস্তিনের হামাসসহ মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রাখা এবং সন্ত্রাসবাদের প্রতি সমর্থন দেয়ার অভিযোগে গত ৫ জুন সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিশর একযোগে কাতারের ওপর অবরোধ আরোপ করে। তবে কাতার এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

কাতার বিরোধী অবরোধ ‘যুদ্ধ ঘোষণার শামিল’: প্রতিরক্ষামন্ত্রী

কাতার বলেছে, দেশটির বিরুদ্ধে অবরোধ ‘রক্তপাতহীন যুদ্ধ ঘোষণার শামিল। সৌদি আরব ও তার মিত্রদের পক্ষ থেকে অবরোধ তুলে নেয়ার জন্য দেয়া শর্তকে কাতারের পক্ষ থেকে ‘অযৌক্তিক’ আখ্যায়িত করে প্রত্যাখ্যান করার একদিন পর এ মন্তব্য করল দোহা।

কাতারের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খালিদ বিন মোহাম্মাদ আল-আতিয়া শুক্রবার ব্রিটেন-ভিত্তিক আরবি দৈনিক আল-আরাবি আল-জাদিদ পত্রিকাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেন, সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন কয়েকটি আরব দেশ দোহার বিরুদ্ধে প্রকারান্তরে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।

তিনি আরো বলেন, এসব দেশ কাতারের ওপর সমুদ্র, স্থল ও আকাশপথে যে অবরোধ আরোপ করেছে তা প্রকৃতপক্ষে ‘সেদেশের জনগণের ক্ষতি করার পাশাপাশি সামাজিক ভিত্তিকে ধ্বংস করে দেবে।’

এর আগের দিন বৃহস্পতিবার সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিশরের পক্ষ থেকে দেয়া ১৩ দফা শর্তকে অযৌক্তিক বলে প্রত্যাখ্যান করেন কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মাদ বিন আব্দুররহমান আলে সানি। তিনি বলেন, এসব দেশের সঙ্গে কাতার আলোচনায় বসতে প্রস্তুত রয়েছে তবে সার্বভৌমত্বের প্রশ্নে দোহা কোনো ছাড় দিতে রাজি নয়।

পারস্য উপসাগরীয় চারটি দেশ গত ৫ জুন কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করার পাশাপাশি দেশটির ওপর কঠোর অবরোধ আরোপ করে। সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে কথিত যোগসাজশের অভিযোগ এনে এ পদক্ষেপ নেয়া হলেও ওই অভিযোগ পরিষ্কার ভাষায় প্রত্যাখ্যান করে দোহা।

অবরোধ আরোপের দু’সপ্তাহেরও বেশি সময় পর কাতার বিরোধী পদক্ষেপ তুলে নেয়ার জন্য দোহার কাছে ১৩ দফা দাবি পেশ করে সৌদি জোট। এ সব শর্ত মেনে নেয়ার জন্য ১০ দিনের সময়সীমা বেধে দেয়া হয়। কিন্তু সেসব শর্তের ব্যাপারে কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পাশাপাশি প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী আল-আতিয়া।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.