ads

ঢাকা, শনিবার,২১ এপ্রিল ২০১৮

ইসলামী দিগন্ত

নতুন প্রকাশ

১২ জানুয়ারি ২০১৮,শুক্রবার, ০০:০০


প্রিন্ট

সাইন্টিফিক আল কুরআন
মোহাম্মদ নাছের উদ্দিন
প্রকাশক : দারুস সালাম বাংলাদেশ
৩৮/৩ বাংলাবাজার, ঢাকা।
প্রকাশকাল : ডিসেম্বর ২০১৭
হাদিয়া : ৩৫০ টাকা মাত্র।
‘তিনিই ভূমণ্ডলকে বিস্তৃত করেছেন এবং তাতে পাহাড়, পর্বত ও নদ-নদী স্থাপন করেছেন এবং প্রত্যেক ফলের মধ্যে জোড়ায় জোড়ায় সৃষ্টি করে রেখেছেন। তিনি দিনকে রাতের দ্বারা আকৃত করেন। এতে তাদের জন্য নিদর্শন রয়েছে, যারা চিন্তা করে।’ (সূরা রাদ : ৩)
কুরআন হলো ইসলামের সংবিধান, যা একটি জীবনব্যবস্থার দলিল। অন্য ধর্মগ্রন্থের মতো এই কুরআন কেবল মানুষের আধ্যাত্মিক দিক নিয়েই আলোচনা করে না বরং জীবনের সব দিকই এ গ্রন্থে বিশদভাবে আলোচিত। একটি জীবনব্যবস্থার সংবিধান হিসেবে কুরআন সব জ্ঞান-বিজ্ঞানের মূল উৎস। মহাগ্রন্থ আল কুরআনের প্রথম ওহি হলোÑ সূরা আলাকের প্রথম পাঁচ আয়াত। এ পাঁচটি আয়াতের মাধ্যমেই বিজ্ঞানচর্চার নানাবিধ মূলনীতি বর্ণিত হয়েছে। এ ছাড়া মহাগ্রন্থ আল কুরআনের বিভিন্ন আয়াতে বিজ্ঞানচর্চায় অনুপ্রেরণা দেয়া হয়েছে। পৃথিবীর একমাত্র পূর্ণাঙ্গ বিজ্ঞানময় গ্রন্থ হলো আল কুরআন, যার তথ্যাবলি কখনো কোনো ধরনের সন্দেহের মধ্যে পড়েনি ও পড়বেও না।
কুরআনের আলোকে জীবন গড়া ও ঈমানি চেতনাকে আরো সুদৃঢ় করণে আধুনিক বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় কুরআনি নির্দেশনাবলি জানার প্রয়োজনীয়তা অনস্বীকার্য। বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় কুরআনের এ সব নিদর্শনাদি আমাদের ভাবতে শিখায় তার সৃষ্টি সম্পর্কে, বিশ্বাস করতে শিখায় অসীম ক্ষমতাধর মহাপ্রভুর নির্ধারিত আখেরাতকে।
এ গ্রন্থে বিজ্ঞানের বিভিন্ন শাখায় কুরআনে বর্ণিত বিভিন্ন নিদর্শনাদি তুলে ধরা হয়েছে। বিজ্ঞানের লক্ষ্য হলোÑ অজানাকে জানা। বর্তমানে প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্তকে ভবিষ্যতের সম্ভাব্য ফলাফলের আলোকে পুনঃপুন পর্যবেক্ষণ, কিন্তু বিজ্ঞান কখনো চূড়ান্ত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে না। কারণ, মানবীয় জ্ঞান কখনো সম্যক ও সর্বব্যাপক জ্ঞান হতে পারে না। অথচ কুরআন এমন এক ঐশী বাণী, যা অজানাকে জানার, অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যতের সব তথ্যের এক বিপুল সমাহার। এ অর্থে বিজ্ঞান কুরআনের একটি ুদ্র অংশ মাত্র। কারণ কুরআনের অন্যতম মোজেজা হলোÑ সর্বকালে সমানভাবে প্রযোজ্য হওয়া।
অফসেট পেপারে ছাপা ৩৮২ পৃষ্ঠার এ চমৎকার গ্রন্থটির প্রচ্ছদ দৃষ্টিনন্দন এবং চার কালারে ছাপা। বোর্ড বাঁধাই এ গ্রন্থটি সব পাঠকই সংগ্রহে রাখতে পারেন।
হ মোহাম্মদ সালাহউদ্দীন

 

ads

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫