ঢাকা, বুধবার,২৪ জানুয়ারি ২০১৮

আমেরিকা

প্রতিদ্বন্দ্বীকে নিয়ে সংশয়ে ট্রাম্প : হার-জিত নিয়েও শঙ্কা

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১১ জানুয়ারি ২০১৮,বৃহস্পতিবার, ১৬:৫৮


প্রিন্ট
প্রতিদ্বন্দ্বীকে নিয়ে সংশয়ে ট্রাম্প :  হার-জিত নিয়েও শঙ্কা

প্রতিদ্বন্দ্বীকে নিয়ে সংশয়ে ট্রাম্প : হার-জিত নিয়েও শঙ্কা

আগামী মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী হচ্ছেন বিশ্ব বিখ্যাত হলিউড অভিনেত্রী ও টিভি হোস্ট অপরাহ উইনফ্রে। অপরাহ উইনফ্রে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন এমন খবর প্রকাশ হওয়ার পর ট্রাম্প মন্তব্য করেন, ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদের লড়াইয়ে হলিউড অভিনেত্রী ও টিভি হোস্ট অপরাহ উইনফ্রে লড়বেন না ।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, আমি অপরাহকে পছন্দ করি। তার শোতে অতিথি হয়ে গিয়েছি। আমি তাকে খুবই ভালো করে চিনি। আমার মনে হয় না তিনি প্রেসিডেন্ট পদে লড়বেন।

যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২০২০ সালের নভেম্বরে। এখনো প্রায় তিন বছর বাকি, কিন্তু এরইমধ্যে মার্কিন জনগণের মাথাব্যথা শুরু হয়ে গেছে, কে হবেন ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী। গোল্ডেন গ্লোব পুরস্কার প্রদানের আসরে অপরাহ’র দেওয়া বক্তব্যের পর গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে, তিনিই হতে যাচ্ছেন ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী।

এ বছর প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ নারী হিসেবে সেসিল বি ডিমিলে পুরস্কার পেয়েছেন অপরাহ উইনফ্রে। ১৯৫২ সালে পুরস্কারটি চালুর পর থেকে এখন পর্যন্ত আর কোনো নারী এই পুরস্কারে ভূষিত হননি। পুরস্কারটি গ্রহণের পর গোল্ডেন গ্লোবের মঞ্চে উঠে তিনি বেশ সোচ্চার বক্তব্য দেন। বক্তব্যের পর অনুষ্ঠানস্থলের সবাই দাঁড়িয়ে সম্মানও জানিয়েছেন। একইসঙ্গে পরবর্তী মার্কিন নির্বাচনে তার সম্ভাব্য প্রার্থীতার বিষয়টিও সামনে নিয়ে এসেছে।

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানের পর হলিউড তারকা মেরিল স্ট্রিপ ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেন, আমি চাই অপরাহ প্রেসিডেন্ট পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করুন। এরপর একে একে হলিউডের ডজন খানেক তারকা সে কথায় সায় দিয়েছেন। এমনকি একাধিক রিপাবলিকান নির্বাচনী বিশেষজ্ঞ পর্যন্ত অপরাহর সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বিতার ব্যাপারে ইতিবাচক মন্তব্য করেছেন।

অপরাহ নিজে অবশ্য নির্বাচনী দৌড়ের কথা অস্বীকার করেছেন। তবে তার ঘনিষ্ঠ একাধিক ব্যক্তি বলেছেন, এই ভাবনাটা তার মাথায় রয়েছে। তার দীর্ঘদিনের বন্ধু টেডম্যান গ্রাহাম কিছুটা কূটনীতিকের ভাষায় বলেন, দেশের মানুষ যদি চায়, তাহলে অপরাহ অবশ্যই নির্বাচনে দাঁড়াবেন।

যদি আজই ভোট গ্রহণ হয়, তাহলে যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ১০ পয়েন্টে হারিয়ে দিতেন মিডিয়া মোঘল ও মানবাধিকার কর্মী অপরাহ উইনফ্রে। রাসমুসেন রিপোর্টস নামে আমেরিকান একটি পুলিং কোম্পানির চলতি সপ্তাহে একটি সমীক্ষায় এ তথ্য জানিয়েছে। সমীক্ষায় আগামী ২০২০ নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং অপরাহ উইনফ্রে থাকলে ফলাফল কী রকম হবে, সেটি অনুমান করা হয়।

সমীক্ষায় জানা যায়, ৪৮ শতাংশ আমেরিকান অপরাহকে ভোট দিতেন, আর ট্রাম্প পেতেন ৩৮ শতাংশ ভোট। ডেমোক্রেটদের ৭৬ ভাগ এবং স্বতন্ত্র ভোটারদের ৪৪ ভাগ ভোট পাবেন অপরাহ।
অপরদিকে, বর্তমান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ৬৬ শতাংশ রিপাবলিকান এবং ৩৮ ভাগ স্বতন্ত্র ভোটারের ভোট পাবেন। এমনকি ট্রাম্পের দল রিপাবলিকানদের কাছ থেকেও ২২ শতাংশ ভোট পেতেন অপরাহ।

অপরদিকে, শুধু ১২ শতাংশ ডেমোক্রেট মনে করেন ট্রাম্পের ক্ষমতায় থাকা উচিত। সর্বমোট ১৪ শতাংশ ভোটার প্রার্থী নিয়ে অনিশ্চিত থাকবেন। ডেমোক্রেট, আফ্রিকান-আমেরিকান, অ-নিবন্ধিত ভোটার, নারী এবং তরুণ ভোটারদের কাছ থেকে অপরাহ উইনফ্রে বেশি ভোট পেতেন।

সম্প্রতি গোল্ডেন গ্লোব অনুষ্ঠানে অপরাহ উইনফ্রের ভাষণের পর বিশ্বব্যাপী আলোড়ন তৈরি হয়। তারই ধারাবাহিকতায় চলতি সপ্তাহের সোম ও মঙ্গলবার নানা পেশা, নানা মতের ১ হাজার জন সম্ভাব্য ভোটারের মতামত নেয়া হয়। যদিও ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, তিনি অপরাহকে সহজেই হারিয়ে দিতে পারবেন।

সূত্র : এএফপি, বিবিসি,ওয়াশিংটন পোস্ট

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫