ads

ঢাকা, শনিবার,২১ এপ্রিল ২০১৮

মধ্যপ্রাচ্য

যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দায় ও রাশিয়ার প্রশংসায় ইরান

নয়া দিগন্ত অনলাইন

১১ জানুয়ারি ২০১৮,বৃহস্পতিবার, ১৬:১৭


প্রিন্ট
যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দায় ও রাশিয়ার প্রশংসায় ইরান

যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দায় ও রাশিয়ার প্রশংসায় ইরান

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে তার দেশের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার জন্য রাশিয়ার প্রশংসা করেছেন। বুধবার বিকেলে মস্কোয় রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সঙ্গে এক বৈঠকে জারিফ ওই প্রশংসা করেন।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে বিশ্বের বিভিন্ন সঙ্কট নিরসনে আন্তর্জাতিক সমাজ হাতে গোনা যে কয়েকটি সাফল্য পেয়েছে তার মধ্যে ইরানের পরমাণু সমঝোতা অন্যতম। অথচ দুঃখজনকভাবে এই সমঝোতায় স্বাক্ষরকারী একটি দেশ এটি বাস্তবায়নতো করছেই না বরং এটি বাতিল করে দেয়ার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে।

মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেন, ইরান পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি মেনে চলছে এবং আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা আইএইএ বহুবার এ বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছে। তারপরও এই সমঝোতা ধ্বংস করে দেয়ার জন্য মার্কিন সরকারের প্রচেষ্টা দুঃখজনক ও নিন্দনীয় বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ইরানের পরমাণু সমঝোতা সঠিকভাবে বাস্তবায়নের জন্য রাশিয়াসহ সকল পক্ষের সহযোগিতা কামনা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ।

সাক্ষাতে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি বাস্তবায়নের জন্য ইরানকে ধন্যবাদ জানান। তিনি বলেন, এই সমঝোতা ক্ষতিগ্রস্ত হয় এমন কোনো পদক্ষেপ নেয়া উচিত নয়। এ সময় বিভিন্ন ক্ষেত্রে ইরান ও রাশিয়ার মধ্যে বিদ্যমান সহযোগিতা আরো শক্তিশালী করার আগ্রহ প্রকাশ করেন সের্গেই ল্যাভরভ।

ইরানের সাম্প্রতিক বিশৃঙ্খলার ব্যাপারে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদে পাস হওয়া প্রস্তাবকে ‘অগ্রহণযোগ্য ও নিন্দনীয়’ বলে প্রত্যাখ্যান করেছে তেহরান। ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি ওই প্রস্তাবের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, একটি দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে প্রস্তাব পাসের অধিকার মার্কিন পার্লামেন্টের নেই।

তিনি বুধবার রাতে তেহরানে সাংবাদিকদের বলেন, আমেরিকা অন্য দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপের যে ‘নির্বোধ ও অযৌক্তিক’ পদক্ষেপ নিয়েছে তা আন্তর্জাতিক আইন ও রীতি বিরোধী।
প্রায় দুই সপ্তাহ আগে ইরানে দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির প্রতিবাদে কয়েকটি শহরে শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ হয়।

কিন্তু কিছু সুযোগসন্ধানী ও বিদেশি মদদপুষ্ট লোক ওই বিক্ষোভকে ব্যবহার করে নাশকতামূলক তৎপরতায় জড়িয়ে পড়ে। এই ধ্বংসাত্মক তৎপরতার প্রতি তাৎক্ষণিকভাবে সমর্থন জানায় আমেরিকা, ইসরাইল ও সৌদি আরবসহ ইরানের প্রতি বিদ্বেষ পোষণকারী কিছু দেশ।
তবে কয়েকদিনের মধ্যেই ইরানের পরিস্থিতি পাল্টে যায়। সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারীদের নিন্দা জানিয়ে এবং সরকারের সমর্থনে দেশজুড়ে টানা কয়েকদিন ধরে ব্যাপক শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদ মঙ্গলবার এক প্রস্তাব পাস করে ইরানের সাম্প্রতিক নাশকতামূলক তৎপরতায় জড়িতদের প্রতি সমর্থন ঘোষণা করে। এর প্রতিক্রিয়ায় বাহরাম কাসেমি আরো বলেছেন, আমেরিকার এ ধরনের বস্তাপচা ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত প্রস্তাবের ধোঁকায় আর কোনোদিন পড়বে না ইরানি জনগণ।

 

ads

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫