কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের পরিকল্পনা :  ভারতেও ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ
কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের পরিকল্পনা : ভারতেও ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ

কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের পরিকল্পনা : ভারতেও ইসরাইল বিরোধী বিক্ষোভ

জেরুসালেম পোস্ট

ভূমধ্যসাগরের উপকূলে একটি কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে ইসরাইল। বিষয়টি নিয়ে এরইমধ্যে দখলদার ইসরাইলের মন্ত্রিসভা একটি কমিটি গঠন করেছে। প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর প্রস্তাব অনুসারে এ দ্বীপ নির্মাণের এ পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে ।

সম্প্রতি মন্ত্রিসভার বৈঠকে নেতানিয়াহু বলেছেন, দ্বীপ নির্মাণের ফলে ইসরাইলে জনসংখ্যার চাপ কমবে এবং ইসরাইলের দখলে থাকা ভূমির পরিমাণ বাড়বে।

নেতানিয়াহু আরো বলেছেন, আমাদের একটি উপকূল আছে এবং সেখানে আমরা পানি শোধনাগার ও বিদ্যুৎকেন্দ্রসহ নানা ধরনের স্থাপনা গড়ে তুলতে পারি। পাশাপাশি এ দ্বীপ আমাদেরকে বাড়তি ভূমি দেবে।

১৯৯৯ সালে ইসরাইল ও হল্যান্ডের একটি যৌথ কমিটি উপকূলের কাছে কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের সম্ভাব্যতা নিয়ে রিপোর্ট দেয়ার পর থেকে বহু কমিটি এ পর্যন্ত বিষয়টি খতিয়ে দেখেছে।

পরিবহনমন্ত্রী ইসরাইয়েল কাৎজ গাজা উপত্যকার কাছে কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের যে প্রস্তাব দিয়েছেন তার সঙ্গে এ কমিটির কোনো সম্পর্ক নেই।

অন্যদিকে ভারতের মুসলমানরা ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর আসন্ন সফরের প্রতিবাদ জানিয়েছে। তারা বলেছে, দখলদারদের নেতা নেতানিয়াহুর ভারত সফর বাতিল করতে হবে। আগামী ১৪ জানুয়ারি তিন দিনের সরকারি সফরে নেতানিয়াহু ভারতে পৌঁছাবেন বলে কথা রয়েছে।

ভারতের রাজা অ্যাকাডেমির প্রধান সাঈদ নুরি বলেছেন, নেতানিয়াহুর ভারত সফর উপলক্ষে প্রতিবাদ কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়েছে। ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী ভারতে প্রবেশের আগেই মুম্বাইয়ের মুসলমানরা মসজিদ ও দোকানগুলোতে কালো পতাকা ওড়াবে।

এছাড়া ফিলিস্তিনিদের প্রতি সমর্থনের অংশ হিসেবে ফিলিস্তিনি পতাকা ওড়ানো হবে এবং বিভিন্ন স্থানে আল-আকসা মসজিদের ছবি টানানো হবে। একইসঙ্গে ইসরাইল বিরোধী স্লোগান দেয়া হবে।

২০০৩ সালে বর্ণবাদী ইসরাইলের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী অ্যারিয়েল শ্যারনের ভারত সফরের সময়ও ব্যাপক প্রতিবাদ জানিয়েছিল ভারতের মুম্বাইয়ের মুসলমানরা।

 

সম্পাদকঃ আলমগীর মহিউদ্দিন,
প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ
১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

Copyright 2015. All rights reserved.