ঢাকা, রবিবার,২১ জানুয়ারি ২০১৮

বিবিধ

বছরজুড়ে আলোচনায় শাকিব-অপুর সম্পর্ক

মনিরুল ইসলাম রোহান

০৫ জানুয়ারি ২০১৮,শুক্রবার, ১১:৫৫ | আপডেট: ০৫ জানুয়ারি ২০১৮,শুক্রবার, ১২:০৭


প্রিন্ট
বছরজুড়ে আলোচনায় ছিল এই তারকাজুটির সম্পর্ক

বছরজুড়ে আলোচনায় ছিল এই তারকাজুটির সম্পর্ক

ভাঙ্গা-গড়ার খেলায় নিত্যই ডুবে থাকে শোবিজ অঙ্গন। আজ এ তারকার বিয়ে তো, কাল ওই তারকার বিচ্ছেদ। এসব নিয়ে কাদা ছোড়াছুড়ি তো লেগেই আছে। বিদায়ী ২০১৭ সালে বেশ কয়েকজন তারকাদম্পতির ঘর ভাঙে। সম্পর্কের টানাপড়েনের পর বিচ্ছেদ ঘটে তাদের মধ্যে। আলোচিত এসব তারকা দম্পতি তাদের ঘর ভাঙা নিয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি না হলেও এ খবর জানাজানি হয়ে যায়। তবে শেষ দিকে এসে শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের দাম্পত্য জীবনে ইতি ঘটার কাহিনী ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি করে। এ তারকাদম্পতির বিয়ের বিষয়টি চাউর হয় গত বছরের ১০ এপ্রিল। একটি টিভি চ্যানেলে অপু বিশ্বাস হঠাৎ করে সন্তান নিয়ে হাজির হন। একপর্যায়ে শাকিব খানও বিয়ে ও সন্তানের বিষয়টি স্বীকার করে নেন। কিন্তু বছরের শেষ দিকে শাকিব খান অপু বিশ্বাসকে তালাকের নোটিশ পাঠান। শোবিজের এসব জনপ্রিয় তারকার সুখের সংসার ভাঙ্গার খবরে দর্শক-ভক্তদেরও হৃদয় ভেঙেছে।

তারকাদের মধ্যে বিয়েবিচ্ছেদের তালিকায় গত বছর যোগ হয়েছেন তাহসান-মিথিলা, নিলয়-শখ, মিলা-সানজারি, আজমেরী হক বাঁধন- মাশরুর সিদ্দিকী সনেট, হাবিব ওয়াহিদ-রেহান, স্পর্শিয়া-রাফসান ও নোভা-রায়হান। আর সুপারস্টার শাকিব খান অপু বিশ্বাসকে তালাকের নোটিশ পাঠানোর খবরটিও ভক্তদের হৃদয়ে কম আঘাত দেয়নি।

তাহসান-মিথিলার বিচ্ছেদে মন ভেঙেছে ভক্তদের

শোবিজের সর্বাধিক জনপ্রিয় জুটি ছিলেন তাহসান ও মিথিলা। এই তরকা জুটির সম্পর্কের ভাঙনের খবর ছিল ব্যাপক আলোচিত। তাদের বিচ্ছেদের ঘোষণা ভক্তদের শোকের মিছিলে ভাসিয়েছিলেন শোবিজের অন্যতম আদর্শ জুটি বলে খ্যাত তাহসান-মিথিলা। এখনো পর্যন্ত অনেক ভক্ত তাদের বিচ্ছেদ মেনে নিতে পারেননি। কেউ কেউ বিস্ময় প্রকাশ করেন। ভক্তরা সামজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্নভাবে তাদের ডিভোর্স তুলে নেয়ার অনুরোধ করেন। রাজধানীর বিভিন্ন জায়গায় এ নিয়ে ভক্তরা মানববন্ধনও করেন। কিন্তু কোনো ফল আসেনি। অনেক দিন ধরেই তাহসান-মিথিলার সম্পর্ক ভালো যাচ্ছিল না। যদিও ডিভোর্সের আগে তারা দু’জন সময় নিয়েছেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত বনিবনা না হওয়ায় সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে গত ২০ জুলাই দুপুরে তাহসানের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তাহসান-মিথিলা আনুষ্ঠানিকভাবে ডিভোর্সের কথা পোস্ট করেন।
প্রসঙ্গত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালে কণ্ঠশিল্পী হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন মেধাবী ছাত্র তাহসান। ওই সময় মিথিলার সঙ্গে পরিচয়। এরপর তাহসানের মনের ঘরে বাঁধা পড়েন মিথিলা। ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট এক সুতায় আটকা পড়ে তাহসান-মিথিলার জীবন। তারকা এ দম্পতির ঘরে রয়েছে একমাত্র কন্যাসন্তান আইরা তাহরিম খান। বর্তমানে মিথিলার কাছেই থাকে আইরা।

নিলয়-শখ বিচ্ছেদের খবর

একইভাবে অবাক করেছে আরেক জনপ্রিয় জুটি শখ-নিলয়ের ডিভোর্সের খবরও। গত বছরের ৭ জানুয়ারি দীর্ঘদিনের প্রেমকে মধুর পরিণতি দিতে বিয়ে করেন নিলয়-শখ। পারিবারিক আয়োজনের বিয়েতে তাদের দেনমোহর নির্ধারিত ছিল ১০ লাখ টাকা। তারপর শখ তার পুরান ঢাকার বাসা ছেড়ে মিডিয়ায় নিয়মিত কাজ করবেন বলে নিলয়ের সঙ্গে উত্তরায় বাসা ভাড়া নিয়েছিলেন। কিন্তু বিয়ের বছর না পেরোতেই শোবিজে গুঞ্জনের ডালপালা মেলেছে নিলয়-শখের বৈবাহিক সম্পর্কে ফাটল ধরেছে। বারবার বিচ্ছেদের প্রসঙ্গটি এড়িয়ে গেলেও গত বছরের ১৭ জুলাই বিচ্ছেদের কথাই স্বীকার করে নিলেন নিলয়। তারা এখন আলাদা থাকছেন।

দশ বছরের ভালোবাসার সংসার টেকেনি মিলার

স্বামীকে একাধিক নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের দায় দিয়ে বিচ্ছেদের পথে হেঁটেছেন পপ সঙ্গীতশিল্পী মিলা। ১০ বছর প্রেম করার পর গত বছরের ১২ মে পারিবারিকভাবে পারভেজ সানজারিকে বিয়ে করেছিলেন মিলা। পারভেজ বর্তমানে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সে বৈমানিক হিসেবে কর্মরত। এর আগে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর ফাইটার পাইলট হিসেবে কাজ করেছেন। এ তারকার ডিভোর্স নিয়ে বিয়ের পরই থেকেই গুঞ্জনের ডালপালা মেলেছিল।

দুই বছর পর জানা গেল বাঁধনের ডিভোর্স

মাত্র এক মাসের পরিচয়ে চার মাসের মাথায় ব্যবসায়ী মাশরুর সিদ্দিকী সনেটকে ২০১০ সালের ৮ সেপ্টেম্বর বিয়ে করেছিলেন লাক্স তারকা অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। অভিনয় থেকে নিজেকে কিছুটা গুটিয়ে নিয়ে সংসারি হয়েছিলেন তিনি। সংসারী হবেন বলেই কিছুদিনের মধ্যে সন্তানও নিয়েছিলেন। কিন্তু কিছুদিনের মধ্যেই ভালোবাসা রূপ নেয় বিষাদে। সংসারী হতে গিয়েও আর হতে পারেননি। ৫ আগস্ট ২০১৪ তাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়। যদিও বিষয়টি পাঠকের সামনে আসে গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর।

দ্বিতীয় সংসারও টিকল না শিল্পী হাবিব ওয়াহিদের

গানের ভুবনে হাবিব ওয়াহিদ অতুলনীয় হলেও সাংসারিক জীবনে তিনি বিপরীত মেরুর একটি অচেনা মানুষ। চলতি বছরের শুরুতেই দারুণ ধাক্কা দিয়েছিল হালের শিল্পী হাবিব ওয়াহিদের সংসার ভাঙনের খবর। গেল বছরের শেষ দিকে হঠাৎ গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল হার্ট থ্রুব সঙ্গীতশিল্পী হাবিবের সংসারে টানাপড়েন চলছে। হাবিবের একাধিক ঘনিষ্ঠজনও বলেছিলেন সম্পর্ক ভালো যাচ্ছে না এই দম্পতির। দু’জনে নাকি গেল বছরের শেষে আলাদাও থেকেছেন কিছুদিন। সেই গুঞ্জনের ডালাপালা অবশেষে সত্যি হয়ে গেল। দ্বিতীয় স্ত্রী রেহানের সঙ্গে হাবিবের আনুষ্ঠানিক ডিভোর্স হয়ে গেল গত ২৬ জানুয়ারি। শিল্পী জীবনের প্রথমে ২০০৩ সালে লুবিয়ানার সঙ্গে প্রেম করে প্রথম বিয়ে করেন হাবিব ওয়াহিদ। কিছুদিন পর সেই সংসার ভেঙে যায়। এরপর মডেল-অভিনেত্রী মোনালিসার সঙ্গে গভীর সম্পর্কে জড়ান হালের জনপ্রিয় এই শিল্পী। ঘোষণা দেয়া হয়েছিল তারা বিয়েও করবেন। কিন্তু অজ্ঞাত কারণে সেই সম্পর্কের পরিণতি আসেনি। তার কিছুদিন পরই হুট করে ২০১১ সালের ১২ অক্টোবর পারিবারিক সিদ্ধান্তে চট্টগ্রামের মেয়ে রেহানকে বিয়ে করেন হাবিব। এই সংসারে হাবিবের আলিম ওয়াহিদ নামে এক ছেলেসন্তান রয়েছে।

তারকা দম্পতি স্পর্শিয়া-রাফসানের ডিভোর্স

ঘর ভেঙেছে মডেল-অভিনেত্রী অর্চিতা স্পর্শিয়ার। তার স্বামী নির্মাতা রাফসান আহসানের সঙ্গে গত ২১ আগস্ট রাজধানীর মোহাম্মদপুরের কাজী অফিসে ডিভোর্সের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। স্পর্শিয়া-রাফসান ভালোবেসে পারিবারিকভাবেই বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু সন্দেহ সংশয়ে শেষ রক্ষা হলো না তাদের।

ঘর ভেঙেছে নোভার

শোবিজ অঙ্গনের মধ্যে ঘর ভাঙনের মিছিলে সর্বশেষ নাম লিখিয়েছেন নোভা আহমেদ। ছোট পর্দার অভিনেত্রী হলেও গত ২৬ আগস্ট ডিভোর্সের পর ভালোভাবে নেয়নি ভক্ত ও দর্শকরা। ২০১১ সালের ১১ নভেম্বর ভালোবেসেই বিয়ে করেছিলেন জনপ্রিয় নাট্যনির্মাতা রায়হান খানকে। ২০১৩ সালের ২৮ জুলাই তাদের ঘরে জন্ম নেয় রাফাজ রায়হান। ছয় বছর সংসার করার পর কাজী অফিসে গিয়ে তারা পরস্পরকে ডিভোর্স দেন। তা প্রকাশ হয় গত ৮ অক্টোবর। কী কারণে তাদের সংসার ভাঙনের কবলে পড়লো সে বিষয়ে স্পষ্ট কিছু জানা যায়নি।

সময়ের আলোচিত জুটি শাকিব খান-অপু বিশ্বাস

এ বছর শোবিজ অঙ্গনের সবচেয়ে আলোচিত খবর হচ্ছে শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিয়ের খবর এবং পরবর্তী সময়ে তালাকের নোটিশে সুপার স্টার শাকিব খানের স্বাক্ষর। বছর শেষে এটিই এখন আলোচনার বিষয়। গত ২২ নভেম্বর তালাকনামায় স্বাক্ষর করেন শাকিব খান। এরপর শাকিব খান ওই চিঠি গত ২৮ নভেম্বর অপু বিশ্বাসের গুলশানের নিকেতনের বাসায় এবং বগুড়ার গ্রামের বাড়িতে পাঠালে দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। তবে অপু বিশ্বাস এখনো এ ডিভোর্স মেনে নেননি। শাকিব খান এখন ছবির শুটিংয়ে ভারতে। দেশে এলে আলোচনার মাধ্যমেই বিষয়টির সুরাহা করবেন বলে জানিয়েছেন অপু। এখন আবার শোনা যাচ্ছে তাদের মিটিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে পরিবার। ডিভোর্সের নোটিশ পাওয়ার বেশ কিছুদিন পর অপু বিশ্বাস গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, শাকিব খান যদি দ্বিতীয় বিয়েও করতে চায় সে ব্যাপারে তার মত আছে। শুধু ছেলে আব্রাম খান জয়ের কথা চিন্তা করে প্রথম স্ত্রী হিসেবে সারাজীবন কাটিয়ে দিতে চাই। দেখা যাক হালের আলোচিত এই জুটির সম্পর্ক শেষ পর্যন্ত কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়।

 

 

Logo

সম্পাদক : আলমগীর মহিউদ্দিন

প্রকাশক : শামসুল হুদা, এফসিএ

১ আর. কে মিশন রোড, (মানিক মিয়া ফাউন্ডেশন), ঢাকা-১২০৩।
ফোন: ৫৭১৬৫২৬১-৯

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | নয়া দিগন্ত ২০১৫